শুক্রবার ২৩ অগাস্ট ২০১৯


মেয়র মিরুকেও ছেঁটে ফেললো আওয়ামী লীগ


আমাদের কুমিল্লা .কম :
05.02.2017

সমকালের সাংবাদিক আব্দুল হাকিম শিমুলকে গুলি করার ঘটনায় সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর পৌরসভার মেয়র হালিমুল হক মিরুকে দল থেকে সাময়িক বহিষ্কার করেছে আওয়ামী লীগ। মিরু সিরাজগঞ্জ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদকের পাশাপাশি শাহজাদপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যকরী সদস্য ছিলেন। এই গুলির ঘটনায় দল থেকে বহিষ্কৃত হয়েছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য কে এম  নাসির উদ্দিনও।

এর আগে স্কুলের বার্ষিক ক্রীড়া অনুষ্ঠানে ছাত্রদের পিঠ পাড়ানোর ঘটনায় আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কার হয়েছেন চাঁদপুরের হাইমচর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নূর হোসেন পাটোয়ারি।

রবিবার দুপুরে ১২টায় শাহজাদপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের এক জররি বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। আওয়ামী লীগের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী দলের স্থানীয় শাখা কাউকে সাময়িক বহিষ্কার করতে পারে। এরপর কেন স্থায়ী বহিষ্কার করা হবে না সে বিষয়ে কারণ দর্শানো নোটিশ পাঠানো হয়। আর তার বক্তব্যেও পর এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয় দলের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী বৈঠকে।

মিরুকে আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন শাহজাদপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আজাদ।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হাসিবুর রহমান স্বপন ঢাকাটাইমসকে বলেন, ‘দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ, হত্যার মত অপরাধের সাথে যুক্ত থেকে দলের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করার অভিযোগ এনে মিরুকে ও কে এম নাসির উদ্দিনকে বহিষ্কার করা হয়।’

গত বৃহস্পতিবার শাহজাদপুরে আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের বিরোদের জেরে মেয়র মিরুর বাড়িতে হামলার চেষ্টা করে দলের একাংশের কর্মীরা। এ সময় বাড়ির ভেতর থেকে গুলি করা হলে তা গিয়ে লাগে সমকালের স্থানীয় প্রতিনিধি আব্দুল হাকিম শিমুলের গায়ে। শুক্রবার মারা যান তিনি। শনিবার পুলিশ জানায়, মিরু নিজে গুলি করেছেন।

শটগান হাতে শাহজাদপুর পৌরসভা মেয়র হালিমুল হক মিরু

শটগান হাতে শাহজাদপুর পৌরসভা মেয়র হালিমুল হক মিরু

এই ঘটনায় মিরুসহ ১৮ জনের নাম উল্লেখ করে আরও ২৫ জনকে অজ্ঞাত আসামি করে মামলা করেছেন শিমুলের স্ত্রী নুরুন্নাহার। এরই মধ্যে মেয়রের দুই ভাইসহ বেশ কয়েকজন গ্রেপ্তার হয়েছেন। আত্মগোপনে থাকা মিরুকেও গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের শুক্রবারই জানিয়েছেন, মিরুর বিরুদ্ধে তড়িৎ ব্যবস্থা নেয়া হবে।  শনিবার সিরাজগঞ্জ থেকে নির্বাচিত আওয়ামী লীগ নেতা মোহাম্মদ নাসিম সাংবাদিক শিমুলের বাড়িতে গিয়ে তার স্ত্রীকে বিচারের আশ্বাস দেন। আর পরদিনই স্থানীয় আওয়ামী লীগ মিরুর বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নিল।

আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতারা গত কয়েক মাস ধরেই দলের শৃঙ্খলা রক্ষার বিষয়টি নিয়ে কাজ করছেন। কেউ অপকর্ম করলে পার পাবেন না- আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেও এমন হুঁশিয়ারি দিচ্ছেন বারবারই। তিনি বলেছেন, কারও জন্য আওয়ামী লীগের বদনাম হবে-এটা কোনোভাবেই দল মেনে নেবে না।

সম্প্রতি চাঁদপুরের হাইমচর উপজেলা চেয়ারম্যান নূর হোসেন পাটোয়ারিকেও সাময়িক বহিষ্কার  করে আওয়ামী লীগ। তার নির্বাচনী এলাকায় একটি স্কুলের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় ছাত্রদেরকে মানবসেতু বানিয়ে তাদের ওপর দিয়ে হাঁটার ঘটনায় সমালোচিত হয়েছিলেন এই জনপ্রতিনিধি।