শুক্রবার ৭ অগাস্ট ২০২০


শেখ হাসিনাকে মোদির উষ্ণ অভ্যর্থনা


আমাদের কুমিল্লা .কম :
07.04.2017

চার দিনের সফরে ভারত পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। শুক্রবার সকাল ১২টার পর বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বোয়িং ৭৭৭ আকাশ প্রদীপ বিমানটি নয়াদিল্লির পালাম বিমান ঘাঁটিতে পৌঁছায়। বিমানের সিঁড়িতে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে উষ্ণ অভ্যর্থনা জানান ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

এ সময় ভারতের ভারীশিল্প ও সরকারি প্রতিষ্ঠানবিষয়ক মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয় এবং দিল্লিতে বাংলাদেশের হাই কমিশনার সৈয়দ মোয়াজ্জেম আলী উপস্থিত ছিলেন। পরে লাল গালিচা সংবর্ধনা দেয়ার পর মোটর শোভাযাত্রা সহকারে শেখ হাসিনাকে নিয়ে যাওয়া হয় ভারতের রাষ্ট্রপতি ভবন রাইসিনা হিলে। এই সফরে প্রধানমন্ত্রী সেখানেই থাকবেন।

রাষ্ট্রপতি ভবনে মধ্যাহ্নভোজ শেষে তিনি সেখানে বিশ্রাম নেবেন। আজ বিকালে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করবেন।

সাত বছর পর এটি শেখ হাসিনার প্রথম দ্বিপক্ষীয় ভারত সফর। ২০১৫ সালের ১৯ অগাস্ট ভারতে রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জির স্ত্রী শুভ্রা মুখার্জির শেষকৃত্যানুষ্ঠানে যোগ দিতে দিল্লি গিয়েছিলেন শেখ হাসিনা।

এর আগে সকাল ১০টার পর প্রধানমন্ত্রী ও তার ৩৫১ জন সফরসঙ্গীকে নিয়ে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ছেড়ে যায় বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের আকাশ প্রদীপ ফ্লাইটটি। দুই ঘণ্টার পর বিমানটি দিল্লি পৌঁছায়।

এই সফরে ভারতের সঙ্গে সাইবার নিরাপত্তা, প্রযুক্তি, পরমাণু বিদ্যুৎ, বিজ্ঞান ও প্রতিরক্ষাসহ বিভিন্ন বিষয়ে ৩৫টির মতো চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর হতে পারে।

সফরের দ্বিতীয় দিন শনিবার দুই দেশের প্রধানমন্ত্রীর মধ্যে আনুষ্ঠানিক বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। এতে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে। সেখানে বহুল প্রতীক্ষিত তিস্তার পানি চুক্তি নিয়ে কথা হতে পারে। এদিন ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে খুলনা-কলকাতা রুটে বাস চলাচল উদ্বোধন করবেন দুই প্রধানমন্ত্রী। পরে ভারতের প্রধানমন্ত্রীর দেয়া নৈশভোজে অংশ নেবেন শেখ হাসিনা।

তৃতীয় দিন রবিবার জয়পুর বিমানবন্দর থেকে হেলিকপ্টারে করে আজমির শরিফে যাবেন প্রধানমন্ত্রী। এখানে জিয়ারত শেষে দিল্লির উদ্দেশে রওনা দেবেন। সেদিনই দুপুরে রাষ্ট্রপতি ভবনে মধ্যাহ্নভোজ শেষে বিশ্রাম নেবেন। সন্ধ্যা ছয়টার দিকে বৈঠক করবেন ভারতের বিরোধী দল কংগ্রেসের সভাপতি সোনিয়া গান্ধির সঙ্গে। সন্ধ্যা সাতটায় ভারতের রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জির সঙ্গে সৌজন্য বৈঠক করবেন তিনি। এরপর প্রধানমন্ত্রীর সৌজন্য রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জির পক্ষ থেকে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও নৈশভোজের আয়োজন করা হয়েছে।

সফরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে আত্মদানকারী ভারতীয় সেনাদের পরিবারবর্গের সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন। এ ছাড়া ভারতের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে যৌথ আয়োজনে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ‘অসমাপ্ত আত্মজীবনী’র হিন্দি অনুবাদ গ্রন্থের প্রকাশনাতেও অংশ নেবেন তিনি।

চার দিনের সফর শেষে আগামী সোমবার রাত আটটার দিকে বাংলাদেশে ফিরবেন শেখ হাসিনা।