মঙ্গল্বার ২১ নভেম্বর ২০১৭


ট্রাম্পের সঙ্গে কংগ্রেসের দ্বন্দ্ব আরও বেড়েছে


আমাদের কুমিল্লা .কম :
25.08.2017

যুক্তরাষ্ট্র-মেক্সিকো সীমান্তে দেয়াল

অনলাইন ডেস্ক।।

 

যুক্তরাষ্ট্র-মেক্সিকো সীমান্তে দেয়াল নির্মাণের অর্থ বরাদ্দ নিয়ে প্রয়োজনে ফেডারেল সরকারকে অচল করে দেওয়ার প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের হুমকি ও কংগ্রেসের বিরোধীদলীয় সদস্যদের সমালোচনা করার প্রেক্ষাপটে ট্রাম্প-কংগ্রেস দ্বন্দ্ব আরও প্রকট হয়েছে।

গত মঙ্গলবার রাতে সীমান্তবর্তী রাজ্য আরিজোনার ফিনিক্সে এক সমাবেশে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, ডেমোক্র্যাটরা দেয়াল করতে দিতে চাইবে না। কিন্তু সরকার অচল করে দেওয়া লাগলেও তিনি তা করবেন। অবশ্যই দেয়াল গড়বেন। অভিবাসন নিয়ন্ত্রণের জন্যই যুক্তরাষ্ট্রের জনগণ তাঁকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করেছেন।

এ হুঁশিয়ারির পরদিন অর্থাৎ গত বুধবার ট্রাম্প কেবল ডেমোক্র্যাটদের সঙ্গেই তাঁর বিরোধ পাকাপোক্ত করলেন তা নয়, করেছেন নিজ দল রিপাবলিকান পার্টির কংগ্রেসম্যানদের সঙ্গেও। ওই দেয়াল নির্মাণে অর্থ বরাদ্দে কংগ্রেসের ডেমোক্র্যাট সদস্যরা বুধবার তাঁদের বিরোধিতা আরও জোরালো করেছেন।
তবে কংগ্রেসের প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার পল ডি রায়ান সরকার অচল করে দেওয়ার ট্রাম্পের হুমকিকে হালকা করে তুলে ধরে এদিন সাংবাদিকদের বলেন, ওই দেয়াল নির্মাণ বিতর্ক যদি শেষমেশ অমীমাংসিতই রয়ে যায়, তবে আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর অর্থবছর শেষে সরকারে অচলাবস্থা তৈরি হওয়া ঠেকাতে অর্থায়ন নিয়ে কংগ্রেস কোনো সাময়িক ব্যবস্থা নিতে পারে। তিনি আরও বলেন, চূড়ান্ত পর্যায়ে দেয়াল নির্মাণের জন্য অর্থ বরাদ্দ করতেই হবে।

ফিনিক্সের সমাবেশে ট্রাম্প শুধু ডেমোক্র্যাট কংগ্রেস সদস্যদেরই নয়, নিজ দলীয় কংগ্রেস সদস্যদেরও সমালোচনা করেন। তাঁদের মধ্যে পরোক্ষভাবে রিপাবলিকান সিনেটর জেফ ফ্লেক ও জন ম্যাককেইনের নাম উল্লেখ করেন তিনি। এ ঘটনায় বুধবার রিপাবলিকান কংগ্রেস সদস্যরা ট্রাম্পের ওপর ক্ষোভ ঝাড়েন।
রিপাবলিকান সিনেটর শার্লি ডেন্ট বলেন, ‘রিপাবলিকান সিনেটরদের সঙ্গে দ্বন্দ্বে জড়ানো প্রেসিডেন্টের জন্য সম্পূর্ণ বিপরীত ফলদায়ক ঘটনা হয়ে দাঁড়াবে। গুরুত্বপূর্ণ এজেন্ডা হাতে নিতে তাঁদের প্রয়োজন হবে তাঁর।’ ট্রাম্পের উদ্দেশে তিনি প্রশ্ন রেখে বলেন, ‘তিনি কি ভাবেন, জন ম্যাককেইন, জেফ ফ্লেক ও সুসান কলিন্সের চেয়ে ডেমোক্র্যাট সিনেটররাই তাঁর জন্য বেশি সহযোগিতাপূর্ণ হবেন? এটা হতে পারে না।’

এদিকে ওরেগনে মার্কিন কর নীতি নিয়ে এক অনুষ্ঠানে রায়ান বলেন, ‘আমি মনে করি না, সরকার অচল হয়ে যাক সেটা কেউ চাইবেন। এটা আমাদের জন্য ভালো হবে, সেটাও আমি মনে করি না।’

ট্রাম্পের হুমকিতে ক্ষোভ জানিয়েছেন ডেমোক্র্যাট দলীয় নেতারাও। সিনেটের সংখ্যালঘু নেতা চার্লস ই শুমার ও প্রতিনিধি পরিষদের সংখ্যালঘু নেতা ন্যান্সি পেলোসি বলেন, ‘দেয়াল নির্মাণের অর্থ বরাদ্দ নিয়ে সরকারে যদি অচলাবস্থা সৃষ্টি হয়, তার জন্য ট্রাম্প দায়ী থাকবেন।’

প্রসঙ্গত, যুক্তরাষ্ট্র সরকারের ব্যয় বরাদ্দ বিলে মেক্সিকো সীমান্তে দেয়াল নির্মাণের তহবিল নিশ্চিত করতে কংগ্রেসে রিপাবলিকানদের ডেমোক্র্যাটদের সমর্থন নিশ্চিত করতে হবে। কিন্তু ডেমোক্র্যাটদের সমর্থন পাওয়ার সম্ভাবনা এ ক্ষেত্রে কম। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প দেয়াল নির্মাণের কাজ শুরু করার জন্য ১৬০ কোটি মার্কিন ডলার বরাদ্দের আবেদন করেছেন।

-সৌজন্যে প্রথম আলো