রবিবার ১৭ ডিসেম্বর ২০১৭


কুমিল্লায় শেখ হাসিনার সিদ্ধান্তকেও অগ্রাহ্য করা হয়েছে


আমাদের কুমিল্লা .কম :
16.09.2017

 

নেতাদের শাসালেন সেতুমন্ত্রী
বিএনপির আন্দোলন এখন টেমস নদীর পাড়ে বেগম জিয়ার ভ্যানিটি ব্যাগে

 

সৌরভ মাহমুদ হারুন,মাহফুজ নান্টু ও মাসুদ আলম।।

 

শুক্রবার বিকালে কুমিল্লা জেলার বুড়িচং উপজেলার নিমসার জুনাব আলী ডিগ্রী কলেজ মাঠে কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের প্রতিনিধি সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এমপি বলেছেন, শেখ হাসিনার সিদ্ধান্ত নৌকা প্রতীককে বিজয়ী করতে হবে, খারাপ লোককে পকেট ভারী করার জন্য দলে টানবেন না। খারাপ লোকেরা সন্ত্রাসী কর্মকান্ড, বিশৃংখলা সৃষ্টি করবে এবং দলে কোন্দলের সৃষ্টি করবে। তাদেরকে আমাদের দলের দরকার নেই। কেউ এর ব্যতিক্রম করলে তার ব্যাপারে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
সেতুমন্ত্রী কুমিল্লার আওয়ামী লীগের নেতাদের উদ্দেশ্য করে বলেন, এ সভায় যতো শৃঙ্খলা দেখি। তবে সত্যকথা ও বাস্তবতা হলো দলের নেতারাই শৃঙ্খলা মানেন না। নিকট অতীতে কুমিল্লায় শেখ হাসিনার সিদ্ধান্তকেও অগ্রাহ্য করা হয়েছে। নৌকাকে অবমাননা করা হয়েছে। এমন নেতা এই মঞ্চেও আছে। আওয়ামী লীগে ঘরের ভেতর ঘর, মশারীর ভেতর মশারী দেখতে চাই না। তিনি এক পর্যায়ে মঞ্চের নেতাদের দিকে আঙুল দিয়ে বলেন, এখানে সমস্যা আছে,মাঠের কর্মীদের দিকে হাত দিয়ে বলেন ওইখানে সমস্যা নেই।
তিনি আরও বলেন, আগামী সংসদ নির্বাচনে বিএনপিকে নিয়ে ভয়ের কারণ নেই, যদি আওয়ামী লীগ আওয়ামী লীগের পরাজয়ের কারণ না হয়। সেতুমন্ত্রী বলেন, বিএনপি এখন বাংলাদেশ নালিশ পার্টি। এই পার্টির আন্দোলন নেই। তারা আন্দোলনে ব্যর্থ এবং নির্বাচনেও ব্যর্থ। সব কিছুতে ব্যর্থ হয়ে এখন প্রেস ব্রিফিং আর মিথ্যাচারের পুরানো ভাঙ্গা রেকর্ড বাজানো ছাড়া বিএনপির আর কোন কাজ নেই।
শুক্রবার বিকালে কুমিল্লা জেলার বুড়িচং উপজেলার নিমসার জুনাব আলী ডিগ্রী কলেজ মাঠে কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের প্রতিনিধি সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। তিনি আরো বলেন, বিএনপি আন্দোলনের ডাক দেয়, আন্দোলন হয় না। এই মাসে না ওই মাসে। এই ঈদে না ওই ঈদে। এই পরীক্ষা না ওই পরীক্ষার পর। এই বছর না ওই বছর। বিএনপির আন্দোলন হবে কোন বছর সঠিক ভাবে তারা নিজেরাও জানে না। এখন বিএনপির আন্দোলনের মরা গাঙ্গে আর জোয়ার আসে না।
তিনি আরো বলেন, রোজার ঈদের আগে আন্দোলনের ডাক দিয়ে বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া এখন লন্ডনের টেমস নদীর পাড়ে। রোজার ঈদ গেল, কোরবানির ঈদ গেল তারপরও আন্দোলনের দেখা নেই। আন্দোলন এখন লন্ডনের টেমস নদীর পাড়ে বেগম জিয়ার ভ্যানিটি ব্যাগে।
সেতুমন্ত্রী বক্তব্য শেষ করে আবার মাইকে যান। তিনি মতিন খসরুকে বলেন- আপনি শুধু বুড়িচংয়ের নন, পরিকল্পনা মন্ত্রীকে বলেন আপনি নাঙ্গলকোটের নন,রেলমন্ত্রীকে বলেন আপনি শুধু চৌদ্দগ্রামের নন। আপনাদের পুরো কুমিল্লার দিকে খেয়াল রাখতে হবে।
প্রতিনিধি সভায় সভাপতিত্ব করেন কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল এমপি। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য এডভোকেট আব্দুল মতিন খসরু এমপি, আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ এমপি, আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক একে এম এনামুল হক শামীম। বক্তব্য রাখেন কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রেলমন্ত্রী মজিবুল হক মুজিব এমপি, কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি তাজুল ইসলাম এমপি, কুমিল্লা জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান রিয়াল এডমিরাল মোঃ আবু তাহের, দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদ হোসেন স্বপন, আওয়ামী লীগ নেতা প্রকৌশলী আবদুস সবুর,কুমিল্লা মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আরফানুল হক রিফাত,কুমিল্লা জেলা পিপি মোস্তাফিজুর রহমান লিটন, বরুড়ার সাবেক এমপি নাছিমুল আলম চৌধুরী নজরুল, সদর দক্ষিণ উপজেলা চেয়ারম্যান গোলাম ছারোয়ার, ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলা চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর খান চৌধুরী, বুড়িচং উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এড. আবুল হাসেম খান, লাকসাম উপজেলা চেয়ারম্যান এড. ইউনুছ ভূইয়া ও লাকসাম পৌরসভা চেয়ারম্যান অধ্যাপক আবুল খায়েরসহ বিভিন্ন উপজেলা থেকে আগত আওয়ামী লীগের দলীয় নেতৃবৃন্দ।