শনিবার ১৬ ডিসেম্বর ২০১৭


বিচার বিভাগীয় কর্মচারী কল্যাণ সমিতি কুমিল্লার সংবর্ধনা


আমাদের কুমিল্লা .কম :
19.11.2017

 

স্টাফ রিপোর্টার।। কুমিল্লা বীর চন্দ্র নগর মিলনায়তনে বিচার বিভাগীয় কর্মচারী কল্যাণ সমিতি কুমিল্লার আয়োজনে বিদায়ী কর্মচারী, কৃতি ছাত্র-ছাত্রী সংবর্ধনা এবং বার্ষিক প্রীতিভোজ অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত বুধবার সন্ধ্যায় আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন কুমিল্লা জেলা ও দায়রা জজ বেগম জেসমিন আরা বেগম। বিশেষ অতিথি ছিলেন- কুমিল্লার বিশেষ জজ (জেলা জজ) মোহাম্মদ ইসমাইল,নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালতের বিচারক (জেলা জজ) আজিজ আহমদ ভূইয়া,চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজি¯েট্রট মোঃ হেমায়েত উদ্দিন,অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ (২য় আদালত) বেগম শামছুন্নাহার বেগম। অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ (৩য় আদালত) মোঃ আবদুর রহিম, পি.পি ঃ অ্যাডভোকেট মোস্তাফিজুর রহমান লিটন ও কুমিল্লা বারের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট সৈয়দ নুরুর রহমান।
অতিথি হিসেবে আরো উপ¯িহত ছিলেন জজশীপের যুগ্ম জেলা জজ বেগম শায়লা শারমিন, ল্যান্ড সার্ভেয়ার ট্রাইব্যুনালের যুগ্ম জেলা জজ বেগম ফাতেমা ফেরদৌস, যুগ্ম জেলা জজ ও ভারপ্রাপ্ত জজ, নেজারত বিভাগ রোকন উদ্দিন কবির, চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজি¯েট্রট আদালতের সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজি¯েট্রট ও ভারপ্রাপ্ত ম্যাজি¯েট্রট, নেজারত বিভাগ কাজী আরাফাত উদ্দিন ও অন্যান্য সিনিয়র সহকারী জজবৃন্দ, সহকারী জজবৃন্দ, সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজি¯েট্রটবৃন্দ ও জুডিসিয়াল ম্যাজি¯েট্রটসহ কুমিল্লা বিচার বিভাগের সকল স্তরের কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা।
কুমিল্লা জেলা ও দায়রা জজ বেগম জেসমিন আরা বেগম কুমিল্লা আইন অঙ্গনে কর্মরত সকল জজশীপ থেকে শুরু করে ঝাঁড়ুদার পর্যন্ত সবাইকে উদ্দেশ্য করে বলেন- মানব সেবার ব্রত নিয়ে প্রত্যেককে কাজ করতে হবে। তাহলেই ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠা করা সম্ভব। তিনি বলেন- কাজের ফাঁকে ফাঁকে আনন্দ না থাকলে ভালো কাজ করা যায় না। তিনি আরো বলেন- একজন আসামি দোষী প্রমাণিত না হওয়া পর্যন্ত তাঁর সাথে খারাপ আচরণ করা যাবে না। তিনি বিচার বিভাগীয় কর্মচারী কল্যাণ সমিতি কুমিল্লার বিভিন্ন সমস্যা-সংকটের কথা শুনেন এবং তা বাস্তবায়নেরও আশ্বাস দেন।
অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিচার বিভাগীয় কর্মচারী কল্যাণ সমিতি, কুমিল্লা সভাপতি মোঃ জহির উদ্দিন।
অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন বিচার বিভাগীয় কর্মচারী কল্যাণ সমিতি, কুমিল্লার সিনিয়র সহ-সভাপতি হারাধন আচার্য (সেরেস্তাদার) ও অর্থ সম্পাদক মোঃ হাছান (বেঞ্চ সহকারী )। স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিচার বিভাগীয় কর্মচারী কল্যাণ সমিতি, কুমিল্লার সাধারণ সম্পাদক মোঃ মঞ্জিল হোসেন ( বেঞ্চ সহকারী )।
সমিতির কল্যাণমূলক কার্যক্রমের বিবরণ দিয়ে বক্তব্য রাখেন, বিচার বিভাগীয় কর্মচারী কল্যাণ সমিতি, কুমিল্লার সিনিয়র সহ-সভাপতি মোঃ ইউছুফ আলী (স্টেনোগ্রাফার)। তিনি বলেন,কুমিল্লায় নানা প্রতিকূলতার মধ্য দিয়ে ১৯৯৩সাল থেকে সমিতিটি কাজ করে আসছে। এখানে অসুস্থ্য সদস্যদের চিকিৎসা সহায়তাসহ বিভিন্ন সহায়তা দেয়া হচ্ছে। তিনি অনুষ্ঠান আয়োজনে মাননীয় জেলা জজ মহোদয়সহ সকলের সহযোগিতা কৃতজ্ঞতার সাথে তুলে ধরেন। তিনি সমিতির আগামী দিনের পথচলায় প্রধান অতিথিসহ সবার সহযোগিতা কামনা করেন।
বিদায়ী অতিথিদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সেরেস্তাদার মোঃ ছিদ্দিকুর রহমান। বিদায় সম্মাননা জানানো হয় সেরেস্তাদার বিমল চন্দ্র সিংহ, মোঃ নেছার আহমেদ সেলিম, অসীম কুমার দাস, মোঃ সোহরাব মিয়া, মোঃ ছিদ্দিকুর রহমান, আফতাবুর রহমান, এ কে এম মনিরুজ্জামান, মোঃ শাহজাহান, জারীকারক ছায়েদুল হক, মোঃ মোশাররফ হোসেন, মোঃ আবদুর রাজ্জাক, মোঃ সিদ্দিকুর রহমান, মোঃ শহীদুল ইসলাম, কামরুল ইসলাম, মাহবুবুল আলম, মোঃ আওলাদ হোসেন, মোঃ আমীর হোসেন, উত্তম কুমার দেব, মোঃ আবুল কাশেম, ড্রাইভার ইসহাক মিয়া, অফিস সহায়ক মোহন মিয়া ও মোঃ আবদুল মালেককে।
সদস্যদের সন্তান কৃতি ছাত্র-ছাত্রীদেরও সংবর্ধনা দেয়া হয়। কৃতি ছাত্র-ছাত্রীরা হচ্ছে,মাহিম মালিক, এইচ এস সি-২০১৬, গোল্ডেন জিপিএ-৫। দানিয়েল সরোয়ার ভূঁইয়া-এইচ এস সি-২০১৭ জিপিএ-৫। মোঃ সাফায়েত হোসেন ইমরান-এইচ এস সি-২০১৬ জিপিএ-৫। মোসাঃ মারিয়া আক্তার সুইটি-এস এস সি-২০১৭ গোল্ডেন জিপিএ-৫। নুসরাত জাহান নিশাত-এস এস সি-২০১৬ জিপিএ-৫। ফয়সাল আহমেদ-এস এস সি-২০১৫ জিপিএ-৫। মোঃ জালাল আহমেদ জাবির-এস এস সি-২০১৭ জিপিএ-৫।
মোঃ আশরাফুল হোসেন-এস এস সি-২০১৭ জিপিএ-৫। ইসরাত জাহান-এস এস সি-২০১৬ জিপিএ-৫। রিফাত হাসান-এস এস সি-২০১৫ জিপিএ-৫। সামিয়া জাহান- জে এস সি-২০১৬ বৃত্তিপ্রাপ্ত (ট্যালেন্টপুলে)।