মঙ্গল্বার ২৪ GwcÖj ২০১৮


ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের নৌকার পক্ষে কাজ করতে হবে – রেলমন্ত্রী


আমাদের কুমিল্লা .কম :
08.01.2018

চৌদ্দগ্রাম প্রতিনিধি:


রেলপথমন্ত্রী মুজিবুল হক বলেছেন, ছাত্রলীগের ইতিহাস গৌরবের ইতিহাস। বঙ্গবন্ধুর হাতে গড়া এই পাঠশালা থেকে তৈরি হয়েছে দেশের অনেক মেধাবী শিক্ষার্থী। গণতান্ত্রিকভাবে গড়ে উঠা এ ছাত্র সংগঠন স্বাধীনতা যুদ্ধে অনেক অবদান রেখেছে। তিনি আরও বলেন, এই ছাত্র সংগঠনকে কোন অবস্থাতেই কলঙ্কিত করা যাবে না। ছাত্র-ছাত্রীদেরকে শিক্ষার প্রতি মনোনিবেশ হতে হবে। কারণ-একমাত্র পড়ালেখাই একটি জাতির মেরুদন্ড। এসময় তিনি ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদেরকে আগামী ২০১৯ সালে জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রস্তুত থাকার নির্দেশ প্রদান করে বলেন, বাংলার প্রধানমন্ত্রী আ’লীগের সভানেত্রী যাকে নৌকা মার্কার মনোনয়ন দিবেন, তার পক্ষে কাজ করে নৌকাকে বিজয় করে আনতে হবে। তিনি ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদেরকে সতর্ক করে বলেন, আপনাদেরকে লক্ষ্য রাখতে হবে-ছাত্রলীগের মধ্যে যেন ছাত্রশিবির ও ছাত্রদল প্রবেশ করতে না পারে। তিনি এলাকায় বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছাত্রলীগ সংগঠন কে শক্তিশালী করে গড়ে তুলে জামায়াত-শিবির মুক্ত চৌদ্দগ্রাম গড়ে তোলার আহবান জানান।
বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ৭০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে গতকাল রোববার দুপুরে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম এইচ জে পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে আয়োজিত ছাত্র সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
সমাবেশে প্রধান বক্তা ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসেন বলেন, জোটের শাসন আমলে সন্ত্রাসের জনপথ খ্যাত চৌদ্দগ্রাম, এখন শান্তির জনপথ। কুমিল্লা জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক রেলমন্ত্রী মুজিবুল হকের রাজনৈতিক দূরদর্শিতার কারণে তা সম্ভব হয়েছে। তিনি ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের পড়ালেখার মনোযোগী ও খেলাধুলার পাশাপাশি আধুনিক তথ্য প্রযুক্তির সাথে তাল মিলিয়ে চলার আহবান জানান। তিনি আরো বলেন, নিরক্ষর,মাদক,জঙ্গিবাদ ও মৌলবাদ মুক্ত বাংলাদেশ গড়তে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের অগ্রণী ভূমিকা পালন করতে হবে। এ সময় তিনি জ্বালও পোড়াও আন্দোলনের নামে বোমা মেরে মানুষ হত্যাকারী সন্ত্রাসী ও জঙ্গিবাদী নেত্রী খালেদা জিয়াকে গ্রেফতারের দাবি জানান।
চৌদ্দগ্রাম উপজেলা ছাত্রলীগের আহবায়ক তৌফিকুল ইসলাম সবুজের সভাপতিত্বে সমাবেশে বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা আ’লীগের সাধারন সম্পাদক সামছুদ্দিন আহমেদ চৌধুরী সেলিম, সাংগঠনিক সম্পাদক পৌর মেয়র মিজানুর রহমান, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান এবিএম এ বাহার, উপজেলা আ’লীগ নেতা জিএম মীর হোসেন মীরু, ভ.ম আফতাবুল ইসলাম, আকতার হোসেন পাটোয়ারী, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ সভাপতি জিএম জাহিদ হোসেন টিপু, উপজেলা যুবলীগ সভাপতি শাহজালাল মজুমদার, গুণবতী ইউপি চেয়ারম্যান সৈয়দ আহাম্মদ খোকন, কালিকাপুর ইউপি চেয়ারম্যান মাহবুব হোসেন মজুমদার, কাশিনগর ইউপি চেয়ারম্যান মোশারেফ হোসেন, চিওড়া ইউপি চেয়ারম্যান একরামুল হক, মুন্সিরহাট ইউপি চেয়ারম্যান মাহফুজ আলম, উজিরপুর ইউপি চেয়ারম্যান জয়নাল আবেদীন খোরশেদ, জগন্নাথদীঘি ইউপি চেয়ারম্যান জানে আলম ভুঁইয়া, ঘোলপাশা ইউপি চেয়ারম্যান কাজী জাফর, ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সম্পাদক ইসমাঈল হোসেন শাহীন, সাবেক কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক সাইফুল ইসলাম, বর্তমান সহ-সভাপতি অহিদুর রহমান জয়, হাবিবুর রহমান সুমন, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ সম্পাদক শেখ জয়নাল আবেদীন রতন, কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সদস্য কামরুল হাসান মুরাদ, কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আবু তৈয়ব অপি, সাধারন সম্পাদক লোকমান হোসেন রুবেল, চৌদ্দগ্রাম উপজেলার সাবেক সভাপতি মারুফ হোসেন মজুমদার। চৌদ্দগ্রাম উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম আহবায়ক কাউছার হামিদ, কাজী আল রাফি,মতিউর রহমান জালাল, নুরুল আলম,মোতালেব হোসেনের যৌথ পরিচালনায় সমাবেশে বিভিন্ন পর্যায়ের ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।