বুধবার ২১ ফেব্রুয়ারী ২০১৮


শ্রেষ্ঠ প্রতিষ্ঠান শিক্ষাবোর্ড মডেল কলেজ, শ্রেষ্ঠ অধ্যক্ষ ড.এমদাদ


আমাদের কুমিল্লা .কম :
21.01.2018

স্টাফ রিপোর্টার।। কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ড সরকারি মডেল কলেজ সদর দক্ষিন উপজেলার কলেজ পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ প্রতিষ্ঠান এবং একই কলেজের অধ্যক্ষ ড. এ কে এম এমদাদুল হক শ্রেষ্ঠ প্রতিষ্ঠান প্রধান নির্বাচিত হয়েছেন। জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ ২০১৮ উপলক্ষে গত বৃহস্পতিবার এ ঘোষনা দেওয়া হয়। কলেজের ফরাফল, শিক্ষকদের যোগ্যতা, অবকাঠামোগত সুবিধা, প্রশাসনিক ও আর্থিক শৃঙ্খলা, আইসিটি দক্ষতা, পঠন পাঠনে নিয়মানুবর্তিতা প্রভৃতি বিবেচনায় কলেজটিকে শ্রেষ্ঠ ঘোষণা করা হয়।
প্রতিষ্ঠান প্রধান হিসেবে ড. এমদাদ ২০১৭ সালেও কলেজ পর্যায়ে উপজেলা ও জেলায় শ্রেষ্ঠ অধ্যক্ষ নির্বাচিত হয়েছিলেন। শিক্ষাগত যোগ্যতা,প্রশাসনিক দক্ষতা ও আর্থিক শৃঙ্খলা,প্রকাশনা,গবেষণা,আইসিটি দক্ষতা,উদ্ভাবনী ও সৃজনশীল উদ্যোগ,সততা প্রভৃতি গুণাবলী বিবেচনায় ড.এমদাদকে শ্রেষ্ঠ প্রতিষ্ঠান প্রধান নির্বাচিত করা হয়েছে।
জানা যায়, কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ডের অর্থায়নে এবং শিক্ষা মন্ত্রনালয়ের তত্ত্বাবধানে পরিচালিত কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ড মডেল কলেজ একটি সুশৃংখল প্রতিষ্ঠান হিসেবে বেশ সুনাম অর্জন করেছে।বিভিন্ন পাবলিক পরীক্ষায় প্রতিষ্ঠানটি ঈর্ষনীয় ফলাফল অর্জন করে আসছে। সহ-শিক্ষা কার্যক্রম ,ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডে কলেজের শিক্ষার্থীরা কৃতিত্বের স্বাক্ষর রেখে আসছে। কলেজ অধ্যক্ষ ড.এ কে এম এমদাদুল হক জানান,শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সার্বিক তত্ত্বাবধানে ও কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ডের অর্থায়নে কলেজটি পরিচালিত হয়ে আসছে। এটি একটি বিশেষায়িত প্রতিষ্ঠান । গত ১৮ সেপ্টেম্বর সরকার কলেজটিকে সরকারিকরণ করে। বর্তমানে এ কলেজের সভাপতি শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব জনাব চৌধুরী মুফাদ আহমদ। বিভিন্ন সময়ে এ কলেজের পরিচালনা পরিষদের সভাপতির দায়িত্ব পালন করেছিলেন সাবেক শিক্ষা সচিব জনাব এন আই খান, জনাব খন্দকার রাকিবুর রহমান, জনাব এ এস মাহমুদ প্রমুখ। এ কলেজের প্রতিষ্ঠাতা অধ্যক্ষ ছিলেন কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ডের বর্তমান সচিব ও চেয়ারম্যান (ভারপ্রাপ্ত) প্রফেসর মো. আব্দুস ছালাম। পরবর্তীতে অধ্যক্ষ ছিলেন প্রফেসর মোঃ রুহুল আমিন যিনি বর্তমানে কুমিল্লা সরকারি মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ। প্রতিষ্ঠানটির নেতৃত্বে যারা ছিলেন তারা সবাই অত্যন্ত দক্ষ ও মেধাবী। এ জন্যই এ প্রতিষ্ঠানটি এ পর্যায়ে আসতে পেরেছে।