শনিবার ১৫ ডিসেম্বর ২০১৮
  • প্রচ্ছদ »sub lead 1 » বরুড়া সরকারি কলেজের নতুন অধ্যক্ষ জহিরুল ইসলাম পাটোয়ারী


বরুড়া সরকারি কলেজের নতুন অধ্যক্ষ জহিরুল ইসলাম পাটোয়ারী


আমাদের কুমিল্লা .কম :
07.02.2018


আলা উদ্দিন আজাদ।। বরুড়া শহীদ স্মৃতি সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ হিসেবে যোগদান করেছেন প্রফেসর জহিরুল ইসলাম পাটোয়ারী। গত ৩০ জানুয়ারি শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক প্রজ্ঞাপনে তাকে অধ্যক্ষ নিয়োগ দেয়ার পর ১ ফেব্রুয়ারি আনুষ্ঠানিকভাবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন। যোগদান অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ ও প্রাণি বিদ্যা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক প্রফেসর শাহাদাৎ হোসেনসহ শিক্ষক পরিষদ নেতৃবৃন্দ। এর আগে তিনি দীর্ঘ দিন মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর কুমিল্লা অঞ্চলের উপ- পরিচালক হিসেবে কর্মরত ছিলেন। বর্ণাঢ্য জীবনের অধিকারী প্রফেসর জহিরুল ইসলাম পাটোয়ারী ১৯৬৭ সালের ৩১ ডিসেম্বর কুমিল্লা জেলার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার শ্রীপুর ইউনিয়নের হোসেনপুর গ্রামে এক সম্ভ্রান্ত পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতা মফিজ উদ্দিন পাটোয়ারী ও মাতা জোবেদা খাতুন। মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পরিক্ষায় কৃতিতে¦র সাথে উত্তীর্ণ হয়ে কুষ্টিয়া ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে ব্যবস্থাপনা বিভাগে ভর্তি হন। সেখানে থেকেও কৃতিত্বের সাথে ¯œাতক ও ¯œাতকোত্তর সম্পন্ন করেন তিনি। তাছাড়াও ঢাকা ইউনানী মেডিকেল কলেজ থেকে ৪ বছরের ডি ইউ এম এস কোর্সের শিক্ষার্থী হিসেবে সম্মিলিত মেধা তালিকায় প্রথম শ্রেণিতে ২য় স্থান অর্জন করেন। শিক্ষা জীবন শেষে ১৪ তম বিসিএস পরীক্ষায় সাধারণ শিক্ষা বিভাগে উত্তীর্ণ হয়ে ১৯৯৩ সালে লাকসাম নবাব ফয়জুন্নেছা সরকারি কলেজে ব্যবস্থাপনা বিভাগের প্রভাষক হিসেবে যোগদানের মধ্য দিয়ে কর্মজীবনে প্রবেশ করেন। সেখানেও যথেষ্ট দক্ষতার পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন সময় শিক্ষক পরিষদের নির্বাচিত সম্পাদক ও যুগ্ম সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। তাছাড়াও বিসিএস সাধারণ শিক্ষা সমিতির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সচিব হিসেবেও তিনি ২বার নির্বাচিত হন। দীর্ঘ ৮ বছর পর সহকারী অধ্যাপক হিসেবে পদোন্নতি লাভ করে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া সরকারি কলেজে যোগদান করেন। সেখানেও একাডেমিকও প্রশাসনিক কাজে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন। বিশেষ করে ভিক্টোরিয়ায় ৬ বারের মতো শিক্ষক পরিষদের সম্পাদক নির্বাচিত হয়েও যথেষ্ট দক্ষতার পরিচয় দেন। অন্যদিকে বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সাথেও তিনি সম্পৃক্ত রয়েছেন। বরুড়া শহীদ স্মৃতি সরকারি কলেজে অধ্যক্ষ হিসেবে যোগদান করার পর কলেজের শিক্ষক পরিষদসহ বিভিন্ন সামাজিকও সাংস্কৃতিক সংগঠনের পক্ষ থেকে তাকে আনুষ্ঠানিকভাবে বরণ করে নেওয়া হয়।