রবিবার ২১ অক্টোবর ২০১৮


কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে এয়ারটেল’র ‘ইয়োলো ফেস্ট’


আমাদের কুমিল্লা .কম :
17.05.2018

মিডিয়া রিলিজ ।। দেশের শীর্ষ ইয়ুথ ব্র্যান্ড এয়ারটেল সম্প্রতি কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় প্রাঙ্গণে ‘ইয়োলো ফেস্ট’র আয়োজন করে। এ সময় ক্যাম্পাসজুড়ে গেমস ও মিউজিক জোনগুলোতে ছিল শিক্ষার্থীদের উপচে পড়া ভিড়।
ইয়োলো ফেস্ট’র অংশ হিসেবে সঙ্গীত পরিবেশন করেন জনপ্রিয় ব্যান্ড ভাইকিংস। তাদের জনপ্রিয় সব গানের মূর্চ্ছনায় ব্যাপকভাবে আলোড়িত হন শিক্ষার্থীরা। সারাদিন ধরেই শিক্ষার্থীরা এয়ারটেল স্টোর, এয়াটেল দুনিয়া ও এয়ারটেল গেম জোনের তিনটি ভিন্ন ভিন্ন বুথে কুপন ট্যুরের জন্য ভিড় করেন। যার মধ্যে এয়ারটেল স্টোরে বিশেষ অফারে এয়ারটেলের ফোরজি সিম ক্রয়ের সুযোগ ছিলো। অন্যদিকে আইফ্লিক্স, মাইপ্ল্যান ও বিডি অ্যাপস’র প্রদর্শনীতে ভিড় করেন দর্শনার্থীরা। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি ভিড় করেন ফান বুথ, গেম জোন, ভিআর গেম ও বাস্কেটবল গেমসগুলোতে।
‘ইয়োলো’র (ইউ অনলি লিভ ওয়ান্স) মূল সুরের সাথে তাল মিলিয়ে তারুণ্যের অদম্য শক্তি উদযাপনের উদ্দেশে দেশজুড়ে ক্যাম্পাসগুলোতে গেমিং ও মিউজিক্যাল কনসার্ট’র আয়োজন করা হচ্ছে।

রবি’র ব্র্যান্ড এয়ারটেল সম্পর্কে: ভারতী এন্টারপ্রাইজের একটি আর্ন্তজাতিক ব্র্যান্ড ‘এয়ারটেল’ গ্রাহক সংখ্যার দিক থেকে বিশ্বের তৃতীয় বৃহত্তম মোবাইল ফোন অপারেটর। ২০১৬ সালের ২৮ জানুয়ারি মালয়শিয়ার আজিয়াটা গ্রুপ ও ভারতের ভারতী এন্টারপ্রাইজ বাংলাদেশে পরিচালিত তাদের কার্যক্রম একীভূতকরণের বিষয়ে একমত হয়। এরপর মাননীয় উচ্চ আদালতের সম্মতিক্রমে একীভূত কোম্পানি হিসাবে ১৬ নভেম্বর, ২০১৬ হতে বাণিজ্যিক কার্যক্রম শুরু করে রবি। রবি-এয়ারটেল একীভূতকরণের অংশ হিসেবে এয়ারটেল’কে তার একটি ব্যান্ড হিসেবে পরিচালিত করার অনুমোদন পেয়েছে রবি, ০১৬ নম্বর সিরিজ ব্যবহারকারী গ্রাহকরা এয়ারটেল ব্র্যান্ডের অন্তর্ভূক্ত।

রবি সম্পর্কে: এশিয়ার টেলিযোগাযোগ বাজারের অন্যতম কোম্পানি আজিয়াটা গ্রুপ বারহাদের (মালয়েশিয়া) একটি কোম্পানি হচ্ছে রবি আজিয়াটা লিমিটেড (রবি)। এটি বাংলাদেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম মোবাইল ফোন অপারেটর। অপারেটরটি ডিজিটাল সেবা চালুর দিক থেকে অনেক ক্ষেত্রে পথিকৃতের ভূমিকা পালন এবং দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলের সুবিধাবঞ্চিত মানুষের দোরগোরায় মোবাইল নেটওয়ার্ক পৌঁছে দেয়ার জন্য ব্যাপকভাবে বিনিয়োগ করেছে। রবিতে ভারতী এয়ারটেল ইন্টারন্যাশনাল (সিঙ্গাপুর) প্রাইভেট লিমিটেড এবং এনটিটি ডকোমো ইনকর্পোরেশনের আশিংক মালিকানা রয়েছে।