শুক্রবার ১৭ অগাস্ট ২০১৮


ছুটির দিনে গভীর রাত পর্যন্ত মার্কেটে-মার্কেটে উপচেপড়া ভিড়


আমাদের কুমিল্লা .কম :
09.06.2018

মাহফুজ নান্টু:

সকাল থেকে প্রচ- ভ্যাপসা গরমে দিন শুরু। নগরীর অভিজাত বিপণিবিতান হিসেবে পরিচিত ইস্টার্ন ইয়াকুব প্লাজা। শুক্রবার সকাল সাড়ে ৯টা। তখনো খোলেনি ইস্টার্ন ইয়াকুব প্লাজার মূল ফটক । কিন্তু তার আগেই ক্রেতারা ভিড় করেছে ওই বিপণিবিতানের সামনে। শুক্রবার ছুটির দিন বলেই এমন অবস্থা। বেলা বাড়ার সাথে সাথে নগরীর বিভিন্ন অভিজাত বিপণিবিতান- ফুটপাতে ক্রেতাদের ভিড়ে মুখর হতে থাকে গোটা নগরী। কারণ সামনে যে ঈদ। আর ঈদ আনন্দের প্রধান অনুষঙ্গ নতুন পোশাক কিনতেই সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত এমন উপচেপড়া ভিড়।
সকাল সাড়ে এগোরোটায় নগরীর মনোহরপুর পূবালী চত্বর এবং রামঘাট এলাকায় ঈদের কেনাকাটা করতে আসা সাধারণ মানুষের পদচারণা আর যানবাহনের চাপে প্রচ- যানজট সৃষ্টি হয়। এমন যানজট পরিলক্ষিত হয় কান্দিরপাড় সাত্তারখান,ময়নামতি ও খন্দকার হক টাওয়ার সামনে।
বেলা সাড়ে ১১টা। পরিবার পরিজন নিয়ে বেসরকারি ব্যাংক কর্মকতা ইকবাল হোসেন। তিনি জানান, ভাই সপ্তাহে ছুটির দিন ছাড়া আমাদের ব্যাংকারদের কোন অবসর নেই, একটু স্বচ্ছন্দে কেনাকাটা করবো। তাই সকাল সকাল চলে এলাম কেনাকাটা করতে।
সাত্তারখান কমপ্লেক্সের প্রথম ও দ্বিতীয় ফ্লোরে প্রবেশ করতে বেশ কষ্ট হচ্ছে আগত ক্রেতাদের। সামনে দাড়ানো নিরাপত্তা কর্মীদের হিমশিম খেতে হচ্ছে। শপিং কমপ্লেক্সের সামনে যানবাহন ঠিক রাখা ও ক্রেতাদের সুশৃঙ্খলভাবে বিপণিবিতানে প্রবেশ করাতে করাতে তারা ঘেমে নেয়ে একাকার হচ্ছেন। তবুও একটু দম ফেলবার সুযোগ নেই। একটু এদিক ওদিক হলে মুহূর্তে যানজট লেগে ভয়াবহ আকার ধারণ করতে পারে।
সাত্তারখান শপিং মলের পরব অভিজাত বস্ত্র বিপণীতে দেখা গেলো প্রচ- ভিড়। ক্রেতাদের মধ্যে মহিলাদের সংখ্যাই বেশি। বিক্রয়কর্মী হুমায়নের সাথে কথা বলতে চাইলে সংক্ষেপে জানালেন ভাই প্রচ- চাপে আছি। ক্রেতাদের বেশ চাপ আছে। বেচাকেনাও চলছে। বেলা বাড়লে আরো বাড়বে ক্রেতাদের চাপ-বেচাকেনা।
ইর্স্টান ইয়াকুব প্লাজার চতুর্থ ফ্লোরে স্বাধীন ফ্যাশনে প্রবেশ করতে চোখ আটকে গেলো তরুণ ক্রেতাদের ভিড় দেখে। বেশিরভাগ ক্রেতারা পাঞ্জাবি পছন্দ করতে ব্যস্ত সময় পার করছেন। স্বাধীন ফ্যাশনের স্বত্বাধিকারী নাজমুল হাসান রানা জানান, ভাই কথা বলার সময় পাচ্ছি না। ক্রেতা সামলানো বড় সমস্যা। তিনজন বিক্রয়কর্মী আছে। তবুও সমস্যা হচ্ছে। আজ শুক্রবার ছুটির দিন এবং ঈদ আসন্ন তাই ক্রেতাদের উপচেপড়া ভিড়। বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ৭ম সেমিস্টারের শিক্ষার্থী ফারহান। নগরীর বাদুড় এলাকায় অভিজাত বস্ত্র বিপণীর শো রুম সেইলর থেকে পছন্দের পাঞ্জাবি কিনেছেন ২২শ টাকায়। এত ভিড়ের মধ্যে পছন্দের পাঞ্জাবি কিনতে পেরে আনন্দিত ফারহান। শেষ বিকেলে এবং সন্ধ্যায় শপিংমলগুলোতে বাড়তে থাকে ক্রেতাদের চাপ। নারী ও তরুণীদের সংখ্যাই বেশি।
নগরীর ঝাউতলা এলাকায় প্রধান সড়কের পাশে ইফতার করছিলেন আরিফ। তার হাতে বেশ কয়েকটি ব্যাগ। আরিফ ঢাকায় পানি উন্নয়ন বোর্ডে হেড অফিসে চাকরি করেন। বাড়ি সদর দক্ষিণ উপজেলায়। ছুটির দিন বলে পরিবার পরিজন নিয়ে কেনাকাটা করতে এসেছেন। কেনাকাটা করতে করতে ইফতারের সময় হয়ে যায়। রেস্টুরেন্টে জায়গা না পেয়ে সড়কের পাশে দাঁড়িয়ে ইফতারের পর্বটা সেরে নিচ্ছেন। তিনি জানান, ভাই বোনের জন্য কেনাকাটা শেষ। মা ও বাবার জন্য কেনাকাটা বাকি আছে।
রাত সাড়ে ১১ টায় নগরীর ইর্স্টান প্লাজা, মনোহরপুরের হিলটন টাওয়ার,গণি ভুইয়া ম্যানশন ,সাইবার ট্রেড সেন্টার, ময়নামতি গোল্ডেন টাওয়ারে প্রায় একই রকম ভিড়। কোথাও একটু অবসর চোখে পড়েনি। ক্রেতারা কেনাকাটা করছেন। বাইরে দেখা গেলো পুলিশ ও র‌্যাবের পৃথক টহল।