শনিবার ২৮ gvP© ২০২০


ভুয়া সরকার ও নির্বাচন কমিশন মিলে গণতন্ত্রকে জবাই করেছে- মির্জা ফখরুল


আমাদের কুমিল্লা .কম :
20.12.2018


খালেদা জিয়ার মুক্তি চাইলে ধানের শীষে ভোট দিতে হবে -কাদের সিদ্দিকী
নাঙ্গলকোটের ওসিকে প্রত্যাহারের দাবি
মাসুদ আলম/ মাসুমুর রহমান মাসুদ।।
বিএনপি মহাসচিব ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের মূখপাত্র মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘৩০ তারিখের নির্বাচনে আপনারা সকলে ভোট দিয়ে কেন্দ্র পাহারা দিবেন। ভোট গণনা শেষে ফলাফল নিয়ে ঘরে ফিরবেন’।
বুধবার দুপুর ১টায় কুমিল্লার চান্দিনা রেদোয়ান আহমেদ বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ মাঠে নির্বাচনী পথসভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি নেতা-কর্মীদের প্রতি এ আহবান জানান।
তিনি আরও বলেন, এ সরকার চক্রান্তকারী সরকার। জনগণের কাছে কোন চক্রান্তই টিকবে না। আপনারা কেন্দ্র পাহারা দিয়ে ভোট বিপ্লব ঘটনাবেন। আপনাদের ভোটের মাধ্যমে মুক্ত হবে গণতন্ত্র, মুক্তি পাবেন বেগম খালেদা জিয়া, দেশে ফিরতে পারবেন তারেক জিয়া।
মির্জা ফখরুল তার বক্তৃতায় বর্তমান সরকার ও নির্বাচন কমিশনকে ভুয়া আখ্যায়িত করে বলেন, এ সরকারও ভুয়া এবং এ নির্বাচন কমিশনও ভুয়া। একজন নির্বাচন কমিশনার বলছেন- লেভেল প্লেইং ফিল্ড নেই, আর প্রধান নির্বাচন কমিশনার বলছেন তার কথা সঠিক নয়। তাদের মাধ্যমে সুষ্ঠু নির্বাচন আশা করা যায় না।
তিনি বলেন, এই আওয়ামীলীগের সরকার ক্ষমতায় আসার পর থেকে একে একে বাংলাদেশের মানুষের স্বাধীনতায় অর্জন করা সকল সম্পদ কেড়ে নিয়েছি। আমাদের কথা বলার অধিকার কেড়ে নিয়েছে, আমাদের সংগঠন করার স্বাধীনতা কেড়ে নিয়েছে, সর্বপরি আমাদের ভোটের অধিকার কেড়ে নিয়েছে।
তত্ত্ববধায় সরকারের ব্যবস্থা বাতিল করে ২০১৪ সালে মানুষের সমর্থন ছাড়া জোর করে বেআইনি ভাবে ক্ষমতা দখল করে বসে আছে। আজকে তারা ক্ষমতায় আছে, নির্বাচনের সময়ে এই ক্ষমতায় থাকা কোন ক্রমেই উচিত হয়নি। আজকে তারা প্রশাসনকে ব্যবহার করছে, পুলিশকে ব্যবহার করছে, নির্বাচন কমিশনকে ব্যবহার করছে। এবারের নির্বাচন প্রশাসনের বিরুদ্ধে নির্বাচন, এই নির্বাচন পুলিশের বিরুদ্ধে নির্বাচন।
এসময় তিনি কুমিল্লা-৭ (চান্দিনা) আসনের ধানের শীষ প্রতীক প্রার্থী এলডিপি মহাসচিব ড. রেদোয়ান আহমেদ ও কুমিল্লা-৩ (মুরাদনগর) আসনের ধানের শীষ প্রতীক প্রার্থী কাজী মুজিবুল হক এর হাতে ধানের শীষ তুলে দিয়ে তাদের পক্ষে জনগণের কাছে ভোট প্রার্থনা করেন।
কুমিল্লা উত্তর জেলা বিএনপি সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মফিজ উদ্দিন ভূইয়ার সভাপতিত্বে এ সময় প্রধান বক্তার বক্তৃতা করেন এলডিপি মহাসচিব ড. রেদোয়ান আহমেদ। এসময় উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রিয় বিএনপি নেতা আব্দুল আউয়াল খান, চান্দিনা উপজেলা যুবদল সভাপতি কাজী সাখাওয়াত হোসেন, কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মোফাজ্জল হোসেন বশির, কুমিল্লা উত্তর জেলা এলডিপি’র সভাপতি কেএম শামসুল হক মাস্টার, উপজেলা এলডিপি’র সভাপতি বাচ্চু মিয়া চেয়ারম্যান, সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ আতিকুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক বিজেপি প্রার্থী সাবেক চেয়ারম্যান শাহ্জাহান সিরাজ, এলডিপি নেতা অধ্যক্ষ মো. মনিরুল ইসলাম ভূইয়া, সাবেক চেয়ারম্যান মো. নূরে আলম, উপজেলা ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি মো. শরীফুজ্জামান, উপজেলা গণতান্ত্রিক ছাত্রদল আহ্বায়ক রাজিব আহমেদ ভূইয়া, পৌর গণতান্ত্রিক যুবদল সাধারণ সম্পাদক জামশেদ আহমেদ জাকি, এলডিপি নেতা মোবারক হোসেন মোবা, গণতান্ত্রিক ছাত্রদল নেতা মো. সাজ্জাদ হোসেন।
মনির চৌধুরীর নির্বাচনী সভায় বঙ্গবীর :
কুমিল্লার সদর দক্ষিণ উপজেলার এক জনসভায় কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী বলেছেন, আগামী ৩০ ডিসেম্বর মানুষের মুক্তির দিন। আমাকে একজন বলেছিল, আপনি বঙ্গবন্ধুকে মনে রেখে রাজনীতি করেন। বঙ্গবন্ধুর মেয়ে মানুষ হত্যা করে। ’৭১ সালে পাকিস্তানিরা পারেনি। এই সরকারও জুলুম করে ঠিকে থাকতে পারবে না।
গতকাল বুধবার বিকেল ৪টায় কুমিল্লা-১০ (নাঙ্গলকোট-সদর দক্ষিণ-লালমাই) আসনে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট মনোনীত ধানের শীষের কারান্তরীণ মনিরুল হক চৌধুরীর সমর্থনে আয়োজিত নির্বাচনী জনসভায় এসব কথা বলেন।

বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী বলেন, পুলিশ দিয়ে নির্বাচনে জয়লাভ করা যায় না। খালেদা জিয়ার মুক্তি চাইলে ৩০ তারিখ ধানের শীষে ভোট দিতে হবে। ভোটকেন্দ্র রক্ষা করতে হবে। সুতরাং, সবাই প্রস্তুুত হোন।
তিনি বলেন, নাঙ্গলকোট থানার ওসি নাকি প্রতিদিন গ্রেফতার করেন, আমি হুঁশিয়ার করে দিতে চাই, এক মাঘে শীত যায় না। ওসিকে প্রত্যাহার করতে হবে। মনিরুল হক চৌধুরীকে জেলখানায় রেখে কোনোকিছু করতে পারবে না। ধানের শীষের একমাত্র প্রতীক খালেদা জিয়া। মনিরুল হক চৌধুরীকে সেই প্রতীকে নির্বাচিত করুন।
‘জিয়াউর রহমান, আসম আব্দুর রব, কাদের সিদ্দিকী যেখানে, আমি বলবো, আমরাই স্বাধীনতা। পুলিশ প্রতিদিন গ্রেফতার করে, আমরা ভয় পাই না। ঐক্যবদ্ধ ও সুশৃঙ্খল থাকলে বিজয় কেউ ঠেকাতে পারবে না। এই সরকার ভয় পেয়েছে।’
জনসভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের মেয়র মনিরুল হক সাক্কু, কেন্দ্রীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মোস্তাক মিয়া, আব্দুল আউয়াল খান, মনিরুল হক চৌধুরীর মেয়ে ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ড. চৌধুরী সায়মা হক, নির্বাহী কমিটির সদস্য মোস্তফা খান সফরী, মো. সালাহ্উদ্দিন ভুইয়া শিশির ও বিএনপির চেয়ারপারসনের প্রেস উইং সদস্য শামসুদ্দিন দিদার প্রমুখ।
দাউদকান্দি :
এ দিকে, নির্বাচনী জনসভায় যোগ দিতে কুমিল¬া যাবার পথে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের দাউদকান্দি বিশ্বরোডে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এক পথসভায় বক্তৃতাকালে বিএনপি’র স্থায়ী কমিটির সিনিয়র সদস্য, কুমিল¬া-১ ও ২ আসনের বিএনপি’র প্রার্থী ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেনকে ধানের শীষে ভোট দিয়ে বিপুলভাবে বিজয়ী করার জন্য জনগণের প্রতি উদাত্ত আহবান জানিয়েছেন। শত প্রতিকুলতার মাঝেও ধানের শীষের পক্ষে ব্যাপক প্রচারনা চালানো এবং গণজোয়ার সৃষ্টির জন্য জনগণকে ধন্যবাদ জানান। দাউদকান্দি বিশ্বরোডে এসে পৌঁছলে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুলকে ফুলের তোড়া দিয়ে শুভেচ্ছা জানান ড. মোশাররফের ছেলে বিএনপি’র জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মারুফ হোসেন। এই সময় ড. মারুফের নেতৃত্ব্ কুমিল¬া উত্তর জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মো. আক্তারুজ্জামান সরকার, বিএনপি নেতা একেএম শামছুল হক, মো. দেলোয়ার হোসেন মিয়াজী, খন্দকার মাহবুব হোসেন, নূরুল আমীন সরকার, যুবদল নেতা ভিপি শাহাবুদ্দিন ভূইয়া, পিটার চৌধুরী, বাবুল মোল¬া, শরীফ চৌধুরী, কাউন্সিলর মোস্তাক মিঞা, খন্দকার বিল¬াল হোসেন, সালাহউদ্দিন, ছাত্র দল নেতা আব্দুল বাসেদ ও আসাদুজ্জামান লিমন প্রমূখ। দাউদকান্দি বিশ্বরোডের পথসভাটি লোকে লোকারণ্য হয়ে বিশাল জনসভায় রূপ নেয়।