রবিবার ২১ GwcÖj ২০১৯


শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে কুমিল্লার ৩ উইকেটের জয়


আমাদের কুমিল্লা .কম :
19.01.2019


বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) ২০তম ম্যাচে টস জিতে খুলনা টাইটানসকে প্রথমে ব্যাটিংয়ে আমন্ত্রণ জানায় কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। শুক্রবারের দ্বিতীয় ম্যাচে সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ইমরুল কায়েসের নেতৃত্বাধীন কুমিল্লার বিপক্ষে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের নেতৃত্বাধীন খুলনা নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৮১ রান সংগ্রহ করে। ১৮২ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে ১৯.৪ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে জয়ের লক্ষ্যে পৌঁছে যায় কুমিল্লা।
কুমিল্লার দুই ওপেনার তামিম ইকবাল ও এনামুল হক বিজয় দুর্দান্ত সূচনা করেন। দলীয় ১১৫ রানের মাথায় বিদায় নেন তামিম। তার আগে তিনি ৪২ বলে ৭৩ রানের দুর্দান্ত একটি ইনিংস খেলেন। তার ইনিংসে ছিল ১২টি চার ও ১টি ছক্কার মার। এরপর সাজঘরে ফেরেন আনামুল হক বিজয়। তিনি ৩৭ বলে ৪০ রান করেন। দলনায়ক ইমরুল কায়েস ক্রিজে এসে দ্রুতগতিতে রান তোলেন। তিনি ১১ বলে ২৮ রান করে সাজঘরে ফিরে যান।
দলীয় ১৫৩ রানে লিয়াম ডসন ও কায়েসের বিদায়ে চাপে পড়ে যায় কুমিল্লা। এরপর শহিদ আফ্রিদি ৯ বলে ১২ রান করে বিদায় নেন। এরপর জিয়াউর রহমানও ০ রান করে বিদায় নিলে শেষ ওভারে কুমিল্লার জয়ের জন্য লাগে ৮ রান। থিসারা পেরেরা এক চার ও এক ছয়ের সাহায্যে কুমিল্লাকে জয় এনে দেন। পেরেরা ৭ বলে ১৮ রানে অপরাজিত থাকেন। খুলনার পক্ষে জুনায়েদ খান ৪টি, লাসিথ মালিঙ্গা ১টি, মাহামুদুল্লাহ ১টি করে উইকেট নেন।
এর টসে হেরে ব্যাট করতে নেমে প্রথম ওভারেই শূন্য রানে সাজঘরে ফেরেন খুলনার ওপেনার জহুরুল ইসলাম অমি। দ্বিতীয় উইকেটে আল আমিন-জুনায়েদ ৭১ রানের জুটি গড়ে প্রাথমিক ধাক্কা কাটিয়ে উঠেন । ১৯ বলে ৪ বাউন্ডারি আর ১ ছক্কায় আল আমিন ৩২ রান করে বিদায় নেন। তাকে ফেরানন শহীদ আফ্রিদি। পরে মাহমুদউল্লাহকেও ফেরান আফ্রিদি। আউট হওয়ার আগে ৯ বলে ২ ছক্কায় ১৬ রান করেন খুলনার অধিনায়ক।
১৬তম ওভারে রানআউটে কাটা পড়েন জুনায়েদ সিদ্দিকি। তার আগে ৪১ বলে ৪টি করে চার ছক্কায় ৭০ রান করেন তিনি। এরপর ডেভিড মালানের ২৫ বলে ২৯, আরিফুল হকের ৯ বলে ১৩ রান ও কার্লোস ব্র্যাথোয়েথের ৯ বলে ১২ রানের ওপর ভর করে ২০ ওভারে ১৮১ রান করে খুলনা। কুমিল্লার পক্ষে শহীদ আফ্রিদি ৪ ওভারে ৩৫ রানের বদলে ৩ উইকেট নেন। ২ উইকেট নেন ওয়াহাব রিয়াজ।