শুক্রবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০১৯


একে একে হাসপাতালে ভর্তি হলো ৪৭ শিক্ষার্থী


আমাদের কুমিল্লা .কম :
06.02.2019

 কচুয়া প্রতিনিধি ।।
কচুয়া উপজেলার নন্দনপুর উচ্চ বিদ্যালয় ও প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শতাধিক শিক্ষার্থী অজ্ঞাত রোগে আক্রান্ত হয়েছে। আক্রান্তদের মধ্যে ৪৭ জনকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এর মধ্যে সাতজন শিক্ষার্থী প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি ফিরেছে। আরও ৪০ জন শিক্ষার্থী স্থানীয় বিভিন্ন ক্লিনিকে চিকিৎসা নিচ্ছে।
নন্দনপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হারাধন চন্দ্র ভৌমিক বলেন, দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে পঞ্চম শ্রেণির এক ছাত্রী হঠাৎ করে শ্রেণিকক্ষে ঘুরে পড়ে। পরে তাকে দেখে প্রাথমিক বিদ্যালয় ও উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা জ্ঞান হারিয়ে শ্রেণিকক্ষে ঘুরে পড়তে থাকে। এ অবস্থা চলে বিকেল সাড়ে ৪টা পর্যন্ত। অজ্ঞাত রোগে আক্রান্ত শিক্ষার্থীদের কচুয়া সদর হাসপাতালসহ স্থানীয় বিভিন্ন ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়।
খবর পেয়ে কচুয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নীলিমা আফরোজ, সহকারী কমিশনার (ভূমি) রুমন দে ও কচুয়া থানা পুলিশের ওসি (তদন্ত) শাহজাহান কামাল বিকেলে হাসপাতালে গিয়ে আক্রান্ত শিক্ষার্থীদের খোঁজখবর নেন।

স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ডা. সোহেল রানা বলেন, আমাদের ধারণা প্রথমে যে ছাত্রী আক্রান্ত হয়েছে সে না খেয়ে বিদ্যালয়ে এসেছে। ক্ষুধার কারণে সে ঘুরে পড়তে পারে। তার এ অবস্থা দেখে আতঙ্কে অন্যরা আক্রান্ত হতে থাকে। এটিকে গণহিস্টিরিয়া বলা হয়। আক্রান্ত শিক্ষার্থীদের নিয়ে ভয় পাওয়ার কিছু নেই। উপযুক্ত চিকিৎসায় দ্রুত হয়ে উঠবে তারা।