বৃহস্পতিবার ২৩ †g ২০১৯


বাবা-মাকে হারিয়ে বাকরুদ্ধ প্রবাস ফেরত ছেলে


আমাদের কুমিল্লা .কম :
13.02.2019

দীর্ঘদিন দুবাই থেকে দেশে আসছে ছেলে। এই খবরে আনন্দে আত্মহারা বাবা-মা কারো উপর ভরসা না করে নিজেরাই রওয়ানা দিয়েছেন বন্দরনগরী চট্রগ্রামে। কিন্ত বিধি বাম। ছেলেকে দেখার আগেই পথিমধ্যে মাইক্রোবাসে আগুন লেগে জীবন্ত দগ্ধ হয়ে মারা যান বাবা-মাসহ তিনজন।

১২ ফেব্রুয়ারি মঙ্গলবার রাতে বাবা-মাকে দাফন করে বাকরুদ্ধ হয়ে পড়েন বিদেশ ফেরত আবদুর রহিম। একই পরিবারের দুইজনকে হারিয়ে কান্না থামছে না কুমিল্লার মনোহরহঞ্জের হাসনাবাদ ইউনিয়নের কমলপুর গ্রামে।

মঙ্গলবার সকাল ৭টার দিকে চট্টগ্রামের মিরসরাই উপজেলার নিজামপুর এলাকায় একটি মাইক্রোবাসে আগুন লেগে স্বামী-স্ত্রীসহ গাড়ির চালক নিহত হয়। আহত হন চারজন।

এতে কুমিল্লার মনোহরগঞ্জ উপজেলার হাসনাবাদ ইউনিয়নের কমলপুর গ্রামের আবদুর রহমান (৬৫) ও তার স্ত্রী কুসুমফুল বেগম (৫৫) এবং মাইক্রোবাসের চালক নোয়াখালীর চাটখিল উপজেলার বাঞ্ছা গ্রামের রুবেল (৩৫) নিহত হন।

এ দুর্ঘটনায় মাইক্রোবাস থেকে লাফিয়ে পড়ে আহত হন আরও চারজন। আহতরা হলেন- আবদুর রহমানের ছেলে আবুল কালাম (৩৫), নাতি আবদুল মালেক (১২), মো. রাশেদ (৯) ও স্বজন মো. হাসান (২০)।

মঙ্গলবার রাতে আবদুর রহমান ও তার স্ত্রী কুসুমফুল বেগমকে তাদের পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে। আহতদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন নিহত দম্পতির প্রবাস ফেরত ছেলে আবদুল মমিন।

মঙ্গলবার রাতে আবদুর রহমানের প্রবাস ফেরত ছেলে আবদুল মমিন বলেন, আমি সোমবার দুবাই থেকে চট্টগ্রাম বিমানবন্দর হয়ে দেশে আসি। এরপর এক আত্মীয়ের বাসায় রাতযাপন করি। চট্টগ্রাম থেকে আমাকে বাড়ি আনার জন্য বাবা আবদুর রহমান, মা কুসুমফুল বেগম, আমার ভাইয়ের ছেলে মালেকসহ ছয়জন একটি মাইক্রোবাস ভাড়া করে মঙ্গলবার সকালে চট্টগ্রামের উদ্দেশ্যে যায়। আমার জন্যই আমার বাবা-মাকে প্রাণ হারাতে হয়েছে।