বৃহস্পতিবার ১৯ †m‡Þ¤^i ২০১৯


চৌদ্দগ্রামের মাস্টার হাবিব হত্যা মামলায় দুই নারীসহ ৫ জনের যাবজ্জীবন


আমাদের কুমিল্লা .কম :
13.02.2019

স্টা রিপোর্টার।।
কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামের জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে মাস্টার হাবিবুর রহমান হত্যা মামলায় দুই নারীসহ ৫জনের যাবজ্জীবন সাজা দিয়েছে আদালত। বুধবার কুমিল্লার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ ৪র্থ আদালতের বিচারক নূর নাহার বেগম শিউলী এ আদেশ দেন। সাজার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী অতিরিক্ত পিপি অ্যাডভোকেট রেজ্জাকুল ইসলাম খোসরু।
নিহত মাস্টার হাবিবুর রহমান চৌদ্দগ্রাম মিয়া বাজার প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ছিলেন।
তিনি জানান, কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে ২০০২ সালের ৭অক্টোবর জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে ধরে রাতে নিজ বসত ঘরের দরজা ভেঙ্গে গুলি করে মাস্টার হাবিবুর রহমানকে হত্যা করা হয়। ওই ঘটনায় হত্যার দ্বিতীয় দিন নিহতের ছেলে আশিকুর রহমান সুমন কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে বাদি হয়ে ৮ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন। এ মামলায় আদালত ২০ জনের স্বাক্ষগ্রহণ ও মামলার কৌশলীদের যুক্তিতর্ক শেষে ৫ আসামিকে যাবজ্জীবন সাজার আদেশ প্রদান করেন। সাজাপ্রাপ্ত আসামিগনের মধ্যে ৩ জন পলাতক রয়েছেন। এছাড়াও বাকী তিন অভিযুক্ত মৃত্যুবরণ করেন।
সাজাপ্রাপ্তরা হলেন, ইকবাল মজুমদার, মোস্তাফিজুর রহমান, শাহ আলম, হাসিনা বেগম এবং নাজনিন আক্তার।
মামলা সূত্রে জানা যায়, মাস্টার হাবিবুর রহমানে প্রতিবেশি মৃত আনু মিয়ার পরিবারের সাথে বাড়ির সীমানা ও জমি সংক্রান্ত বিরোধ ছিল। ওই বিরোধকে ঘিরে রাত ২টায় আনু মিয়ার ছেলে মোস্তাফিজুর রহমান ও শাহ আলমসহ অভিযুক্তরা মাস্টার হাবিবুর রহমানকে হত্যার পরিকল্পনা নিয়ে তার বাড়িতে যায়। তারপর বসত ঘরের দরজা ভেঙ্গে ভিতরে প্রবেশ করে দেশীয় অস্ত্র পাইপগান দিয়ে গুলি করে হত্যা করে। ভয়ে মাস্টার হাবিবুর রহমানের স্ত্রী, ছেলে-মেয়েসহ পরিবারের লোকজন ঘর থেকে পালিয়ে যায়। পালানো অবস্থায় তারা দেখতে পায় মাস্টার হাবিবুর রহমানকে হত্যা করে মোস্তাফিজুর রহমান, শাহ আলম তাদের বাড়ি থেকে দৌড়ে পালিয়ে আসছে এবং তারা তাদেরকে চিনতে পারেন।