সোমবার ২৩ †m‡Þ¤^i ২০১৯


কাশ্মিরে নিরাপত্তা বাহিনী ও ‘জঙ্গি’দের বন্দুকযুদ্ধ, নিহত ৫


আমাদের কুমিল্লা .কম :
18.02.2019

কাশ্মিরের পুলওয়ামাতে আধা সামরিক বাহিনীর (সিআরপিএফ) গাড়ি বহরে আত্মঘাতী হামলার রেশ না কাটতেই সোমবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) সন্দেহভাজন জঙ্গিদের গুলিতে নতুন করে চার ভারতীয় সেনা নিহত হয়েছেন। এর মধ্যে একজন মেজরও আছেন। এছাড়া নিরাপত্তা বাহিনীর পাল্টা গুলিতে নিহত হয়েছে ওই সন্দেহভাজন জঙ্গিদের আশ্রয়দাতাও। সবমিলে এখন পর্যন্ত পাঁচজনের প্রাণহানির খবর নিশ্চিত করেছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়া। সোমবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) সকালে সন্দেহভাজন জঙ্গিরা অতর্কিতভাবে গুলি করার পর দুই পক্ষের মধ্যে এ বন্দুকযুদ্ধ হয়। 

বৃহস্পতিবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) পুলওয়ামাতে আরডিএক্স বিস্ফোরক ভর্তি গাড়ি নিয়ে ‘সেন্ট্রাল রিজার্ভ পুলিশ ফোর্স’র গাড়ি বহরে আত্মঘাতী হামলা চালানো হয়। এতে বহরের ৭০টি গাড়ির মধ্যে একটি বাস সম্পূর্ণভাবে ভস্মীভূত হয়ে যায়। প্রাণ হারায় বাহিনীর অন্তত ৪৪ সদস্য। হামলার পর জঙ্গিগোষ্ঠী জইশ-ই-মোহাম্মদ ঘটনার দায় স্বীকার করে দেওয়া বিবৃতিতে জানায়,তাদের হয়ে পুলওয়ামারই বাসিন্দা আদিল আহমেদ দার ওই হামলা চালিয়েছে। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে গত কয়েকদিন ধরে কাশ্মির পরিস্থিতি বেশ উত্তপ্ত রয়েছে। এর মধ্যেই সোমবার নতুন করে নিরাপত্তা বাহিনী ও সন্দেহভাজন জঙ্গিদের মধ্যে সংঘর্ষ ছড়িয়ে পড়েছে।
টাইমস অব ইন্ডিয়ার প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, জঙ্গিদের উপস্থিতির খবরের ভিত্তিতে সোমবার ভোরে পুলওয়ামার পিনগ্লান এলাকা ঘিরে ফেলে ভারতীয় নিরাপত্তা বাহিনী। সেখানে তল্লাশি চালানোর সময় সন্দেহভাজন জঙ্গিরা নিরাপত্তা বাহিনীর ওপর গুলি চালায়। এরপর দুই পক্ষের মধ্যে শুরু হয় বন্দুকযুদ্ধ। এতে নিহত হয় পাঁচ সেনা সদস্য। পুলওয়ামায় সম্প্রতি আত্মঘাতী হামলা চালানো আদিল দারের সঙ্গে এ হামলাকারীদের সম্পৃক্ততা রয়েছে বলে সন্দেহ করা হচ্ছে। তারা যে বাড়িতে আশ্রয় নিয়েছিল সে বাড়ির মালিক নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে নিহত হয়েছে।