মঙ্গল্বার ২১ †g ২০১৯


বিনামূল্যের ঔষুধের দাম ৪৫০ টাকা!


আমাদের কুমিল্লা .কম :
07.03.2019

 

আলিফ নামের একজন ভোক্তা জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের কুমিল্লা জেলা কার্যালয়ের ফেসবুক পেজে গতকাল অভিযোগ করেন যে, তার খালা মনোয়ারা বেগম (৫০) জেলার লালমাই উপজেলার ভুশ্চি বাজারের মেসার্স ভাই ভাই মেডিকেল থেকে একটি চোখের ড্রপ (অখঊজঈঙগ উঝ ৫সষ) ক্রয় করেন ৪৫০ টাকা দিয়ে অথচ তার বাজার মূল্য ১৫০ টাকা। আশ্চর্যের বিষয় হলো মনোয়ারা বেগম না বুঝেই বাড়িতে নিয়ে দেখেন এটি ফিজিশিয়ান সাম্পল। যা কোম্পানির পক্ষ থেকে বিনামূল্যে বিতরণের জন্য ডাক্তারদের সরবরাহ করা হয়। আর সেটাই তার কাছে বিক্রয় করা হলো ৪৫০ টাকায়। জেলা কার্যালয়ের ফেসবুক পেজের (িি.িভধপবনড়ড়শ.পড়স/ফহপৎঢ়পড়সরষষধ) মাধ্যমে বিষয়টি এ দপ্তরের নজওে আনার পর আজ জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের পক্ষ থেকে প্রতিষ্ঠানটিতে অভিযান পরিচালনা করা হয়। অভিযানে দেখা যায় প্রতিষ্ঠানটিতে প্রচুর মেয়াদ উত্তীর্ণ ঔষধ ও ফিজিশিয়ান সাম্পল। স্পটে হাজির মনোয়ারা বেগম জানান “আমি লেখাপড়া জানি না আমার কাছ থেকে এটার দাম নিছে ৪৫০ টাকা। পরে শুনেছি এটার দাম ১৫০ টাকা। এখন জানছি এটা বিনামূল্যের ঔষধ।” অভিযান পরিচালনাকারী কর্মকর্তা ও কুমিল্লা জেলা কার্যালয়ের সহকারি পরিচালক মো: আছাদুল ইসলাম এর সতত্য নিশ্চিত হয়ে ক্রেতার টাকা ফেরৎ দেওয়ার নির্দেশনা দেন ও অধিদপ্তরের প্রশাসনিক ব্যবস্থায় ঐ প্রতিষ্ঠানকে ৩০,০০০ টাকা জরিমানা করেন। একই দিন পাশের ইকরা মেডিকেলকে মেয়াদ উত্তীর্ণ ঔষধ রাখার অভিযোগে ১০,০০০ টাকা ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাবার প্রস্তুতের অভিযোগে আল আমিন হোটেলকে ৫০০০ টাকা জরিমানা করা হয়। এ সময় ভূশ্চি বাজারে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইনের বিভিন্ন বিধান সম্বলিত স্টিকার লাগানো হয়। স্থানীয় প্রশাসন ও ভুশ্চি তদন্ত কেন্দ্রের আইন শৃঙ্খলা বাহিনী এ কাজে সার্বিক সহযেগিতা করেন। -প্রেস বিজ্ঞপ্তি।