সোমবার ২৩ †m‡Þ¤^i ২০১৯


বুড়িচংয়ে ৩ সহ¯্রাধিক অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন


আমাদের কুমিল্লা .কম :
30.04.2019

অবৈধ গ্যাস সংযোগ দিয়ে হাতিয়ে নেয়া হয়েছে কয়েক কোটি টাকা

জে এইচ বাবু,বুড়িচং।।
বুড়িচং উপজেলার ষোলনল ও পীরযাত্রাপুর ইউনিয়নের ২১ টি গ্রামের প্রায় ২০ কিলোমিটার ৩ সহ¯্রাধিক অবৈধ গ্যাস সংযোগ সোমবার দুপুরে বিচ্ছিন্ন করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত ও বাখরাবাদ কর্তৃপক্ষ। এসময় ১২’শ ফুট অবৈধ গ্যাস লাইন উত্তোলন করা হয়।
জানা যায়, জেলার বুড়িচং উপজেলার ষোলনল ইউনিয়নের খাড়াতাইয়া পশ্চিম পাড়া এলাকার মৃত হাজী হায়দার আলীর পুত্র হাবিবুর রহমান টুনু, একই গ্রামের আবদুল মজিদের ছেলে আবুল হাসেম, বুড়বুড়িয়া গ্রামের মৃত আনোয়ার হোসেনের ছেলে আতাউর রহমান বাবু, একই গ্রামের মৃত কালা মিয়ার ছেলে আলফু মিয়াসহ একটি প্রভাবশালী মহল দীর্ঘদিন ধরে উপজেলার ষোলনল ও

পীরযাত্রাপুর ইউনিয়নের ২১ টি গ্রামে অবৈধ গ্যাস সংযোগ দিয়ে আসছিল। এই মহলটি ইতিমধ্যে ২০ কিলোমিটার পাইপ লাইন টেনে প্রায় ৩ হাজার গ্যাস সংযোগ দেয়। সংযোগ প্রতি ৩০ থেকে ৫০ হাজার টাকা করে কোটি টাকা হাতিয়ে নেয় মহলটি। সংযোগ দিয়েই ক্ষান্ত হয়নি তাঁরা। ভুয়া বিল বই তৈরি করে প্রতি মাসে বিল উত্তোলন করে আসছিল। এ খবরে ২৯ এপ্রিল বুড়িচং উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তাহমিদা আক্তারে নেতৃত্বে র‌্যাব-১১ সিপিসি-২ এর ভারপ্রাপ্ত কমান্ডার প্রণব কুমার, বাখরাবাদ গ্যাস ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানির লিমিটেডের ডিজিএম রবিউল হক ও পুলিশের যৌথ অভিযানে কুমিল্লার আমতলী কামারখাড়া ব্রিজ সংলগ্ন এলাকা থেকে বুড়িচং ষোলনল ইউনিয়নের ২১ গ্রামের প্রায় ৩ হাজার অবৈধ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে। এসময় প্রায় ১২’শ ফুট অবৈধ গ্যাস লাইন উত্তোলন করা হয়। বুড়িচং উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তাহমিদা আক্তার অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন করার সত্যতা নিশ্চিত করেন।
এদিকে গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন হওয়ার খবরে ওই এলাকায় কয়েক হাজার গ্রাহক বিল বই নিয়ে হাজির হয়ে বিক্ষোভ করতে থাকে। গ্রহকরা বলেন, আমরা হাজার-হাজার টাকা দিয়ে গ্যাস সংযোগ নিয়েছি এবং প্রতি মাসে বিল দিয়ে আসছি। লাইনগুলি অবৈধ কিনা আমাদের জানা ছিল না। আমাদের সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হলে আমাদের টাকা ফেরত দেওয়া হোক।
বাখরাবাদ গ্যাস ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানির লিমিটেডের ডিজিএম রবিউল হক জানান, অভিযান চালিয়ে প্রায় ১২’শ ফুট অবৈধ লাইন উত্তোলন করা হয়েছে। পর্যায়ক্রমে ২০ কিলোমিটার অবৈধ লাইন উত্তোলন করা হবে। অবৈধ গ্যাস সংযোগের সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার প্রস্তুতি চলছে।


এ ব্যাপারে ষোলনল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. সিরাজুল ইসলাম জানান, অবৈধভাবে সংযোগকৃত গ্যাসের লাইন বিচ্ছিন্ন করার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে সংযোগ বিচ্ছিন্ন না করার অনুরোধ করি এবং সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে বিল প্রদানের বই দেখাই। তখন কর্তৃপক্ষ এই বইগুলোকে অফিসের ইস্যুকৃত বই না বলে জানান।