শনিবার ২৪ অগাস্ট ২০১৯


ভিক্টোরিয়া কলেজ অধ্যক্ষ রতন কুমার সাহা ওএসডি


আমাদের কুমিল্লা .কম :
31.05.2019

বিভিন্ন খাতে অনিয়ম ও স্বেচ্ছাচারিতার অভিযোগ

স্টাফ রিপোর্টার।।
দায়িত্ব শেষ হওয়ার পূর্বে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর রতন কুমার সাহাকে বদলি করা হয়েছে। নতুন অধ্যক্ষ করা হয়েছে কুমিল্লা মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর রুহুল আমিন ভূঁইয়াকে। বৃহস্পতিবার রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে একটি বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ বদলি আদেশ দেন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের উপসচিব ড. শ্রীকান্ত কুমার চন্দ। কলেজ অধ্যক্ষ রতন কুমার সাহাকে বিশেষ কর্মকর্তা হিসেবে পদায়নের মাধ্যমে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরে (মাউশি) বদলির আদেশ দেয়া হয়েছে। এদিকে কুমিল্লা মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ডের চেয়ারম্যান করা হয়েছে কুমিল্লা মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষাবোর্ডের সচিব প্রফেসর আব্দুস সালাম মিয়াকে। শিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে। কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া সরকারি কলেজের একাধিক সূত্রে জানা যায়, বর্তমান অধ্যক্ষ প্রফেসর রতন কুমার সাহার চলতি বছরের নভেম্বর মাসে অবসরে যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু মেয়াদ শেষ হওয়ার পূর্বে আকস্মিক বদলি করা হয় তাকে। কলেজ ফান্ড থেকে ৫০ হাজার ও প্রতি শিক্ষক থেকে এক হাজার টাকা করে চাঁদা নিয়ে মাউশির সাবেক প্রয়াত পরিচালকের চিকিৎসার নামে প্রায় দুই লাখ উত্তোলন করে ১ লাখ টাকা প্রদান, শিক্ষক-শিক্ষিকাদের সাথে দুর্ব্যবহার, যেকোনো বিষয়ে একক সিদ্ধান্ত গ্রহণ, বিগত অধ্যক্ষ প্রফেসর আবু তাহেরের সময়ে নারী কেলেঙ্কোরির অভিযোগে হলের দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি পাওয়া শিক্ষককে পুনরায় কলেজের নবাব ফয়জুন্নেছা ছাত্রীনিবাসের সহকারী প্রভোস্টের দায়িত্ব প্রদান, হলসহ বিভিন্ন স্থানে বিতর্কিত ব্যক্তিদের দায়িত্বপ্রদানে একক সিদ্ধান্ত গ্রহণ, ফান্ডের টাকা ব্যবহার করে বিভিন্ন সংগঠন থেকে পদক লাভ, বিভিন্ন সময়ে কলেজে বহিরাগত বখাটেদের দ্বারা ছাত্রী উত্ত্যক্তের ঘটনায় প্রশ্নবিদ্ধ ভূমিকা, বহিরাগতদের দ্বারা কলেজের ক্যাফেটেরিয়া নিয়ন্ত্রণ, পুকুর লিজ দেওয়া এবং মসজিদ ফান্ডের টাকার হিসেব সঠিকভাবে সংরক্ষণ না করাসহ একাধিক অভিযোগের ভিত্তিতে মন্ত্রণালয় থেকে তাকে অব্যাহতি দেয়া হয় বলে জানা গেছে। এদিকে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, গত এক বছরে নতুন খাত সৃষ্টিসহ বিভিন্ন খাতে আয় বৃদ্ধি পেয়েছে। তারপরও দৃশ্যমান উন্নয়ন কাজ না করা সত্ত্বেও কলেজের ফান্ড তলানিতে চলে এসেছে। কলেজ অধ্যক্ষ প্রফেসর রতন কুমার সাহা ভারতে অবস্থান করায় এ বিষয়ে তার বক্তব্য জানা যায়নি।