বুধবার ১৯ জুন ২০১৯


শ্রীলঙ্কার সঙ্গে থাকছে বৃষ্টির বাধাও


আমাদের কুমিল্লা .কম :
11.06.2019

মোটেও স্বস্তির খবর নেই আবহাওয়ার পূর্বাভাসে। ব্রিস্টলের আকাশে চোখ রাঙাচ্ছে বৃষ্টি। এবারের বিশ্বকাপে সবচেয়ে বড় বাধা হয়ে দাঁড়ানো এই ‘প্রতিপক্ষ’ সরিয়ে বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা ম্যাচ হবে কিনা— এই শঙ্কাই এখন উঁকি দিচ্ছে ক্রিকেট ভক্তদের মনে।আবহাওয়া রিপোর্টে বৃষ্টির সম্ভাবনা থাকায় মন খারাপ ব্রিস্টলের প্রবাসী বাংলাদেশি থেকে শুরু করে সব টাইগার সমর্থকের। টানা দুই ম্যাচ হেরে কোণঠাসা বাংলাদেশের জন্য এই ম্যাচে জয়ের বিকল্প নেই। গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় বিকেল সাড়ে ৩টায়। সরাসরি দেখা যাবে গাজী টেলিভিশন, মাছরাঙা টেলিভিশন ও স্টার স্পোর্টস চ্যানেলে। অবশ্য তার আগে বৃষ্টির বাধা পেরোতে হবে! কার্ডিফের সোফিয়া গার্ডেনসের ‘লাকি ভেন্যু’তে জয়ে ফিরতে না পারলেও ব্রিস্টলে ঘুরে দাঁড়াতে মরিয়া বাংলাদেশ। ২০১০ সালে এই মাঠেই ইংল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম জয় পেয়েছিল বাংলাদেশ। মাশরাফির নেতৃত্বের সঙ্গে ব্যাটিং-বোলিংয়ে জ্বলে ওঠায় সেবার ৫ রানের ঐতিহাসিক জয় পেয়েছিল বাংলাদেশ। আগে ব্যাট করে টাইগাররা নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে করেছিল ২৩৬। এই সংগ্রহটাই ইংল্যান্ডের জন্য কঠিন করে তুলেছিলেন মাশরাফি, শফিউল, রাজ্জাক, রুবেল ও সাকিব। তাদের চমৎকার বোলিংয়ে ইংলিশরা অলআউট হয় ২৩১ রানে। ৯ বছর আগের সেই সুখস্মৃতি হারের বৃত্ত ভাঙার অনুপ্রেরণা জোগাচ্ছে বাংলাদেশকে।মাশরাফি অবশ্য পুরোনো ইতিহাস মনে রাখতে চান না। সোমবার সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেছেন, ‘কার্ডিফে আগের ম্যাচেও আমাদের সুখস্মৃতি ছিল। কিন্তু সেটা কোনও কাজেই লাগেনি। আগামীকালের (মঙ্গলবার) ম্যাচেও আগের জয়ের বিষয়টি কোনও কাজে দেবে না। আমাদের নতুনভাবে শুরু করতে হবে। সবাই সেরাটা দিতে মুখিয়ে আছে। আশা করি উত্তেজনাপূর্ণ ম্যাচ হবে।জিততে গেলে ব্যাটিং-বোলিংয়ে ভালো করার বিকল্প নেই মাশরাফিদের। কিন্তু এই মুহূর্তে বাংলাদেশের সবচেয়ে দুচিন্তার জায়গা ছন্দহীন বোলিং। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে বাংলাদেশের কোনও বোলারই ভালো প্রতিরোধ গড়তে পারেননি৷ পেসারদের পারফরম্যান্স নিয়েই চিন্তাটা বেশি। সোফিয়া গার্ডেনসের উইকেটে বাড়তি একজন পেসার নেওয়ার আলোচনা শোনা গেলেও শেষ পর্যন্ত হয়নি। তবে লঙ্কানদের বিপক্ষে রুবেল হোসেনের প্রথমবার মাঠে নামার জোর সম্ভাবনা রয়েছে।

রুবেল একাদশে এলে মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন কিংবা অফ স্পিনার মেহেদী হাসান মিরাজের একজনকে বাদ পড়তে হতে পারে৷ কিন্তু গত তিন ম্যাচে মিরাজের পারফরম্যান্সের দিকে তাকালে তার ওপর ‘কোপ’ দেওয়াটা টিম ম্যানেজমেন্টের জন্য কঠিনই। আরও একটি পরিবর্তনের কথাও শোনা গেছে। মোহাম্মদ মিঠুনকে বসিয়ে লিটন দাস কিংবা সাব্বির রহমানকে একাদশে সুযোগ দেওয়া হতে পারে। এই আলোচনায় কিছুটা এগিয়ে সাব্বিরই! তবে দুশ্চিন্তা দানা বাঁধছে সাকিবকে নিয়ে। পায়ের চোটে এই অলরাউন্ডার সোমবার অনুশীলন করেননি।

সাম্প্রতিক পরিসংখ্যানে শ্রীলঙ্কার চেয়ে এগিয়ে বাংলাদেশ। তবে বিশ্বকাপ বলছে অন্য কথা। মুখোমুখি লড়াইয়ে একবারও জিততে পারেনি লাল-সবুজ জার্সিধারীরা। ২২ গজের বিশ্ব আসরে প্রতিটি ম্যাচেই বাজেভাবে হারতে হয়েছে বাংলাদেশকে। এবার বিশ্বকাপে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে চতুর্থ ম্যাচে নেমে পুরোনো রেকর্ড নতুন করে লেখার সুযোগ মাশরাফিদের সামনে।

শ্রীলঙ্কার ব্যাটিং কোচ জোনাথন লুইস সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশকে সমীহই করে গেছেন। তিনি বলেছেন, ‘তারা ভালো দল, এ ব্যাপারে কোনও সন্দেহ নেই। শেষ দুটি ম্যাচের একটিতে তারা জিততে পারতো। ওদের সম্পর্কে আমাদের ভালো ধারণা আছে। বাংলাদেশের বিপক্ষে লড়াই করতে আমাদের ছেলেরা প্রস্তুত।’

যদিও শেষ পর্যন্ত ম্যাচটি হবে কিনা, তা নিয়েই জন্মেছে শঙ্কা। রবিবার থেকে শুরু করে সোমবার পর্যন্ত ব্রিস্টলে থেমে থেমে বৃষ্টি হয়েছে। ম্যাচের দিনও বৃষ্টির সম্ভাবনা প্রবল। তাছাড়া এখানেই পণ্ড হয়েছে পাকিস্তান-শ্রীলঙ্কা ম্যাচ৷ মাশরাফিরা নিশ্চিতভাবেই এমন কিছু চাচ্ছেন না।