শনিবার ১৯ অক্টোবর ২০১৯


কুমিল্লায় ডেঙ্গু জ্বরে একজনের মৃত্যু


আমাদের কুমিল্লা .কম :
05.08.2019


মাহফুজ নান্টু: কুমিল্লা আদর্শ সদর উপজেলার কাটানিসার গ্রামে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে আলহাজ আবদুল হাইয়ের ছেলে মো:আনোয়ার হোসেন (৪৩) নামে একজন মৃত্যুবরণ করেন। মৃত্যুকালে ১ ছেলে মেয়ে রেখে যান। চিকিৎসকদের অবহেলায় আনোয়ার হোসেন মারা যান বলে পরিবার অভিযোগ করে।
পরিবার সূত্রে জানা যায়,আনোয়ার হোসেন গত চার দিন আগে জ্বরে আক্রান্ত হয়ে কুমিল্লা মেডিকেল সেন্টার হসপিটালে ভর্তি হন। হসপিটালে অসুস্থ আনোয়ার হোসেনের সঠিক রোগ নির্ণয় করতে সক্ষম হয়নি। পরে শনিবার রোগীর অবস্থার অবনতি হলে তাকে ঢাকায় ল্যাব এইড হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ প্রদান করে দায়িত্বরত চিকিৎসকরা। ঢাকায় নেয়ার পথে মারা যান আনোয়ার হোসেন।
মৃত আনোয়ার হোসেনের বড় ভাই জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন,গত ৩ তারিখ রাত ৩ টায় আমার ছোট ভাই আনোয়ার হোসেনকে কুমিল্লা মেডিকেল সেন্টার হসপিটালে ভর্তি করানো হয়। তবে টাওয়ার হসপিটালে দায়িত্বরত চিকিৎসক কোন কিছু বুঝে উঠার আগে আইসিওতে রাখার নির্দেশ দেন। এর মাঝে চলে পরীক্ষা নিরীক্ষা। আমরা পরীক্ষা নিরীক্ষা বাবদ ৪৭ হাজার টাকা পরিশোধ করি। ৩ আগষ্ট বিকেলে আমাদেরকে বলা হয় রোগীর অবস্থা আশংকাজনক আপনারা ঢাকার ল্যাব এইড হসপিটালে নিয়ে যান।
পরে বিকেল সাড়ে ৪টায় ল্যাবএইডে নিয়ে গেলে ল্যাব এইডের চিকিসকরা জানান,আনোয়ার হোসেন কুমিল্লায় মারা গেছেন।
মৃত আনোয়ার হোসেনের ভাতিজা এমবিবিএস প্রথম বর্ষের ছাত্র সামির আহমেদ জানান,আমার চাচার রিপোর্ট অনুযায়ী দেখলাম কুমিল্লা মেডিকেল সেন্টার হসপিটালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আমার চাচা আনোয়ার হোসেনের রক্তচাপ তেমন ছিলো না। এছাড়াও কুমিল্লা টাওয়ার হাসপাতালে যথাযথ চিকিৎসা দিতে পারেনি। ফলে চাচার মৃত্যু হয়। আমি ল্যাবএইডের চিকিৎসকদের সাথে কথা বলেছি। তারাও একই কথা বলেছেন।
অভিযোগের বিষয়ে কুমিল্লা মেডিকেল সেন্টার হসপিটালের এজিএম মোঃ ফখরুল ইসলাম বলেন, আমরা আগামীকাল (আজ) রোগীর ব্যবস্থাপত্র দেখে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানাবো।
সিভিল সার্জন ডা.মুজিবুর রহমান বলেন, আমাদের কাছে রোগীর স্বজনরা লিখিত অভিযোগ করুক। অভিযোগ পেলে আমরা তদন্ত করবো। তদন্তে হাসপাতালের গাফিলতি পেলে বিধি অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।