বৃহস্পতিবার ১৪ নভেম্বর ২০১৯
  • প্রচ্ছদ » sub lead 2 » বুড়িচংয়ে পাঁচ বছর ভেঙ্গে আছে সেতু, ঝুঁকি নিয়ে চলাচল


বুড়িচংয়ে পাঁচ বছর ভেঙ্গে আছে সেতু, ঝুঁকি নিয়ে চলাচল


আমাদের কুমিল্লা .কম :
21.08.2019


জেএইচ বাবু, বুড়িচং।।
কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলা সদর থেকে শংকুচাইল পর্যন্ত সড়কটির রাজাপুর রেল স্টেশনের পাশে একটি সেতু পাঁচ বছর ধরে ভেঙ্গে আছে। প্রতিদিন ওই সেতুতে ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছে হাজারো যানবাহন।
সরেজমিনে দেখা যায়, রাজাপুর রেল স্টেশনের পাশের সেতুটির মাঝখানের ঢালাই ভেঙ্গে আছে। ব্রিজের রডগুলি উন্মুক্ত হয়ে আছে। সড়ক দিয়ে চলাচলরত গাড়িগুলি ব্রিজের উপর দিয়ে হেলেদুলে যাচ্ছে। ৫ বছর পূর্বে ব্রিজের মাঝখানে প্রথমে ভেঙ্গে যায়। আস্তে আস্তে ওই অংশ বড় হতে থাকে। এক পর্যায়ে ওই ব্রিজটি দিয়ে গাড়ি চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। পরে রেলওয়ে ডাবল লাইনের কাজের কর্তৃপক্ষ ভাঙ্গা অংশে স্টিলের সিট দেয়। পুনরায় ওই সড়কে গাড়ি চলাচল শুরু হয়। বর্তমানে ওই স্টিলের সিটগুলি বাঁকা হয়ে গেছে, যে কোন সময় ব্রিজটিতে ঘটতে পারে বড় ধরনের দুর্ঘটনা।
ওই সড়কের সিএনজি অটো রিকশা চালক আবুল কালাম জানান, বুড়িচং থেকে শংকুচাইল পর্যন্ত ওই সড়কটিতে প্রতিদিন সহ¯্রাধিক সিএনজি অটো রিকশা, মাইক্রোবাস, পিকআপ, ট্রাক্টর, মোটরসাইকেল যোগে হাজার-হাজার মানুষ চলাচল করে। ওই ব্রিজটি ভেঙ্গে যাওয়ায় গাড়ি চলাচলে সমস্যা হচ্ছে।
ওই সড়কের যাত্রী ব্যবসায়ী রাকিবুল ইসলাম বলেন, সড়কটি দিয়ে রাজাপুর ইউনিয়নের চড়ানল, হায়দ্রাবাদ, পাঁচোড়া, নবীয়াবাদ, শংকুচাইল, ঘিলাতলা, দক্ষিণ গ্রাম, উত্তর গ্রামসহ বিভিন্ন এলাকার হাজারো লোকজন উপজেলা সদরে যাতায়ত করেন। ব্রিজটি ঝঁকিপূর্ণ,যেকোন সময় ভেঙ্গে পড়তে পারে। আমরা দ্রুত ব্রিজটি সংস্কারের দাবি জানাই।
এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ ইমরুল হাসান বলেন, ব্রিজটি এল.জি.ই.ডি এর আওতাধীন, বুড়িচং থেকে শংকুচাইল পর্যন্ত সড়কটি পুনঃনির্মাণের জন্য অনুমোদন হয়েছে। সড়কটির সাথে ব্রিজটিও নতুন করে নির্মাণ করা হবে।