মঙ্গল্বার ১৯ নভেম্বর ২০১৯
  • প্রচ্ছদ » sub lead 2 » সচেতন হলে কেউ দালালের খপ্পরে পড়ে ক্ষতিগ্রস্থ হবে না:জেলা প্রশাসক


সচেতন হলে কেউ দালালের খপ্পরে পড়ে ক্ষতিগ্রস্থ হবে না:জেলা প্রশাসক


আমাদের কুমিল্লা .কম :
25.09.2019

মাহফুজ নান্টু। বর্হিগমন ও বৈদেশিক মুদ্রা আয়ে সারা দেশে পথিকৃত কুমিল্লা জেলা। তবে এ জেলাতেও অনেকই আছেন যারা বিভিন্ন দেশে শ্রমিক হিসেবে যাওয়ার জন্য দালালের খপ্পরে পড়ে সর্বস্বান্ত হয়েছেন। অনেকে স্বল্প প্রশিক্ষণে এবং মৌখিক চুক্তিতে বিভিন্ন দেশে গিয়ে প্রতারিত হয়েছেন। তাদেরসহ সকলের উদ্দেশ্য একটাই কথা আপনি আপনার বর্হিগমন সর্ম্পকে সচেতন হোন,দক্ষতা ও যোগ্যতায় অনন্য হোন তাহলে আর কেউ দালালের খপ্পরে পড়ে সর্বস্বান্ত হবেন না। সভা-সেমিনার করে জনসচেতনতা বৃদ্ধি করা যায় না। সকলে নিজের প্রয়োজনে সচেতন হবেন। দক্ষতা অর্জন করে বর্হিগমন করবেন। মঙ্গলবার কুমিল্লা জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে সেন্টার ফর কমিউনিটি ডেভেলপমেন্ট এসিসটেন্ট (সিসিডিএ) এবং রিফিউজি এ্যান্ড মাইগ্রেটরি মুভমেন্ট রিসার্চ ইউনিট কুমিল্লার আয়োজনে সোশাল এ্যান্ড ইকোনমিক এক্সক্লুশন এ্যান্ড মাইগ্রেশন (এসইউএম) প্রকল্প অবহিতকরণ সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে জেলা প্রশাসক মো:আবুল ফজল মীর এ কথা বলেন।
অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মো:মোস্তফা কায়জারের সভাপতিত্বে সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো: নাজমুল হাসান, এ্যান্ড মাইগ্রেটরি মুভমেন্ট রিসার্চ (রামরু) কুমিল্লার ইউনিট এর প্রকল্প কর্মসূূচি পরিচালক মেরিনা সুলতানা।
সভায় সিসিডিএর আদমপুর শাখা ব্যবস্থাপক মো:মাসুদ আলমের সঞ্চালনায় আরো বক্তব্য রাখেন রাষ্ট্রীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত কৃষি-পরিবেশ সংগঠন মতিন সৈকত। উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ফ্রেন্ডশীপ ফাউন্ডেশন এর নির্বাহী পরিচালক এসএম মিজান, সিসিডিএর উপরিচালক মো:লুৎফুর রহমান, সিসিডিএর প্রকল্প সমন্বয়ক মো:শাহজাহান।
সভার প্রথম পর্বে দুটি সংগঠনের বিগত দিনের কার্যক্রম উপস্থাপন করা হয়,দ্বিতীয় পর্বে ছিলো উন্মুক্ত আলোচনা।
বিভিন্ন সময় দালালদের খপ্পরে পড়ে সর্বস্বান্ত হয়ে দেশে আসা কয়েকজন নারী উন্মুক্ত আলোচনায় তাদের উপর নির্যাতনের বিষয়টি উপস্থাপন করেন।
সভায় সভাপতির বক্তব্য কায়জার মোহাম্মদ ফারাবী বলেন, আমরা সচেতন হবো। এনজিওগুলো লোক দেখানো নয় সাধারণ মানুষকে সচেতন করতে সত্যিকার অর্থেই ভূমিকা রাখবে। আর আমরা যে অবস্থানেই আছি প্রত্যেকে প্রত্যেকের অবস্থান থেকে সচেতন হলে স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়া সময়ের ব্যাপার হবে মাত্র।
সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ নাজমুল হাসান বলেন,প্রতারক-দালাল ধরতে আইনশৃংখলা বাহিনীর প্রতিটা ইউনিট বদ্ধপরিকর। তবে তার আগে আমরা যেন প্রতারিত না হই-দালালের খপ্পরে পড়ে সর্বস্বান্ত না হই সে ব্যাপারে সবাই সচেতন থাকবো।