শুক্রবার ২২ নভেম্বর ২০১৯


তিতাসে গণপিটুনিতে যুবকের মৃত্যু


আমাদের কুমিল্লা .কম :
24.10.2019

তিতাস প্রতিনিধি।। কুমিল্লার তিতাস উপজেলার দড়িকান্দি গ্রামে শাহরিয়ার (৩৩) নামে এক যুবককে গণপিটুনি দিয়ে এলাকাবাসী মেরে ফেলেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। সে মৃত এসডু মিয়ার ছেলে।তিতাস থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সৈয়দ মো.আহসানুল ইসলাম এ কথার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ঘটনার সাথে জড়িত সন্দেহে ২ জনকে আটক করা হয়েছে।

জানা যায় বুধবার দিবাগত রাতে নিহত শাহরিয়ার মোঃ সুমন মিয়া নামের এক প্রবাস ফেরত লোকের খামারে গরু চুরি করতে যায়। তখন এলাকাবাসী তাকে হাতে নাতে ধরে ফেলে এবং গণপিটুনি দেয়। এক পর্যায়ে শাহরিয়ার এর অবস্থা বেগতিক দেখে এলাকাবাসী পুলিশে খবর দেয়। এক পর্যায়ে শাহরিয়ার পানি খেতে চায়, পানি দিলে পানি পান করার পর পরই সে মারা যায়। পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে নাদিম মাস্টার নামে একজনকে ও পরে আরেকজনসহ মোট ২জনকে আটক করে নিয়ে যায়।
এলাকাবাসী জানা যায় শাহরিয়ার একজন খন্ডকালীন আনসার সদস্য। সে এলাকায় বখাটে হিসেবে পরিচিত। চুরি, ছিনতাই, মাদক সেবন, ইভটিজিং, শিশু অপহরণ করে মুক্তিপণ আদায় ও সন্ত্রাসী কার্যকলাপ ইত্যাদি ছিল তার নিত্যনৈমিত্তিক কাজ। তার অত্যাচারে এলাকাবাসী ছিল অতিষ্ঠ। বিগত কয়েক মাস আগে এলাকাবাসী তার অত্যাচার সহ্য করতে না পেরে একটি মানববন্ধনও করে।
দীর্ঘদিনের পুঞ্জীভূত ক্ষোভের বহিঃপ্রকাশ তার এই গণপিটুনিতে মৃত্যু। জানা যায় তার বিরুদ্ধে থানায় একাধিক মামলা রয়েছে। সে প্রায়ই তার পরিচয় গোপন রাখত। তার বাড়ি কোথায় জিজ্ঞাসা করা হলে সে বলত, তার বাড়ি জিয়ারকান্দি।
তিতাস থানা পুলিশ জানায়, লাশ কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হবে ময়নাতদন্তের জন। মামলার প্রক্রিয়া চলছে।