বুধবার ১৩ নভেম্বর ২০১৯
  • প্রচ্ছদ » sub lead 1 » আমরা যখন ঘুমিয়ে পুলিশ তখন জেগে থাকে :এমপি বাহার


আমরা যখন ঘুমিয়ে পুলিশ তখন জেগে থাকে :এমপি বাহার


আমাদের কুমিল্লা .কম :
27.10.2019

মাহফুজ নান্টু। গতকাল কমিউনিটি পুলিশিং ডে উদযাপন উপলক্ষে কুমিল্লা পুলিশ লাইনস্ মিলনায়তনে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে কুমিল্লা সদর আসনের এমপি আ.ক.ম বাহাউদ্দিন বাহার বলেন, মুক্তিযুদ্ধে রয়েছে বাংলাদেশ পুলিশের অসামান্য অবদান। আইনশৃংখলা রক্ষায় দিন রাত কাজ করে পুলিশ। কুমিল্লা জেলায় ২৪শ’ পুলিশ সদস্য রয়েছে। তারা পালাক্রমে ডিউটি দেয়। আমরা যখন ঘুমিয়ে পুলিশ তখন জেগে থাকে। তারা যদি ঘুমায় তাহলে আমাদের ঘুম হারাম হয়ে যাবে। প্রধান অতিথি সাংসদ বাহাউদ্দিন আরো বলেন,আসুন অপরাধ প্রবণতা হ্রাস করতে পুলিশের সাথে হাতে হাত মিলিয়ে কাজ করি,কমিউনিটি পুলিশিংয়ের মাধ্যমে একটি সুন্দর সমাজ গড়ি।

আলোচনা সভায় মূখ্য আলোচক হিসেবে চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি খন্দকার গোলাম ফারুক বলেন, পুলিশই জনতা-জনতাই পুলিশ। আর পুলিশের সাথে জনতার সর্ম্পকটা এমন না হলে সমাজে বিদ্যমান অপরাধ শূন্যমাত্রায় আনা সম্ভব না। কারণ পুলিশের কাছে সব তথ্য উপাত্ত থাকে না। যারা সমাজে বসবাস করেন তারা জানেন কারা অপরাধী। কোথায় জঙ্গিগোষ্ঠি অবস্থান করছে। নিকট অতীতে যেভাবে বাংলাদেশে জঙ্গি উত্থান ঘটে, বিভিন্ন স্থাপনায় হামলা হয়েছিলো। সে সময় বিদেশী দাতা সংস্থাসহ বিনিয়োগকারীরা আমাদের থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছিলো।ওই সময়টাতে সাধারণ মানুষ পুলিশের সাথে হাতে হাত মিলিয়ে জঙ্গি উত্থানকে নিবৃত্ত করতে কমিউনিটি পুলিশিং ব্যাপক ভূমিকা রাখে। তাই বলতে পারি আমাদের দেশের স্থায়ী উন্নয়নে কমিউনিটি পুলিশিং গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।
এদিকে কমিউনিটি পুলিশিং ডে’র আলোচনা সভার আগে সকাল ১০টায় একটি র‌্যালি নগরীর প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে পুলিশ লাইনস্ মিলনায়তনে এসে শেষ হয়। র‌্যালিতে নেতৃত্ব দেন চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি খন্দকার গোলাম ফারুক। র‌্যালিতে উপস্থিত ছিলেন কুমিল্লা পুলিশ সুপার মোঃ সৈয়দ নুরুল ইসলাম, হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডাঃ তৃপ্তিশ চন্দ্র ঘোষ ,কুমিল্লা কমিউনিটি পুলিশিং এর সাধারণ সম্পাদক ও অজিতগুহ কলেজের অধ্যক্ষ হাসান ইমাম মজুমদার ফটিক, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ আব্দুল্লাহ আল মামুন,মোঃ শাখাওয়াত হোসেনসহ জেলা পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা। পরে ডাঃ তৃপ্তিশ চন্দ্র ঘোষের সার্বিক সহযোগিতায় আলোচনা সভার পূর্বে স্বেচ্ছায় রক্তদান কর্মসূচির উদ্বোধন করেন চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি খন্দকার গোলাম ফারুক।
আলোচনা সভায় কমিউনিটি পুলিশিং ডে উপলক্ষে আয়োজিত রচনা ও চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগীতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার ও কমিউনিটি পুলিশিং এ ভূমিকা রাখায় প্রফেসর শান্তিরঞ্জন ভৌমিক ও সদর দক্ষিন থানার এক উপ-পরিদর্শককে সম্মাননা প্রদান করা হয়। এ সময় নারী নেত্রী পাপরী বসু, সাবেক কালচারার অফিসার বশিরুল আনোয়ারসহ জেলা সুশীল সমাজের প্রতিনিধি ও জেলা পুলিশের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ উপস্থিত ছিলেন।