বুধবার ১৩ নভেম্বর ২০১৯


পরীক্ষার্থীর হাউমাউ কান্না অত:পর…


আমাদের কুমিল্লা .কম :
09.11.2019

স্টাফ রিপোর্টার।। শুক্রবার কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষার প্রথম দিনের প্রথম শেসন ছিল সকাল ১০টায়। ঢাকার গাবতলী থেকে ভোর ৪টায় রওয়ানা দিয়ে যানজট পেরিয়ে কুমিল্লায় এসে পরীক্ষার হলের সামনে দাঁড়াতে দাঁড়াতে পরীক্ষার সময় চলে যায় ১৮ মিনিট। স্বাভাবিক ভাবেই আইনশৃংখলা বাহিনীর সদস্য ও পরীক্ষা হলের দায়িত্বপ্রাপ্তরা ফারহানা খানম নামের ঐ ছাত্রীটিকে হলে ঢুকতে দিচেছ না । ছাত্রী ও অভিভাবকের অনুনয় বিনয়ের পরেও যখন হলে ঢুকতে পারছিলনা ফারহানা তখন জুড়ে দিল হাউ মাউ করে কান্না। তার কান্না উপস্থিত সকলের হৃদয় ছুঁয়ে যায়।
পরে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. এমরান কবির চৌধুরীর মানবিক হস্তক্ষেপে ২৫ মিটির পর হলে ডুকতে পারে সে। কুবি ভিসি নিজেই এ কথা নিশ্চিত করেছেন।
এ বিষয়ে জানতে চাইলে উপাচার্য এমরান কবির চৌধুরী বলেন, ‘মেয়েটি কান্নাকাটি করছে। মানবিক দিক বিবেচনায় তাকে সুযোগ দেয়া হয়েছে। এমন চার-পাঁচজন ছাড়া মোটামুটি পরীক্ষা সুষ্ঠু হয়েছে।
পরীক্ষার্থী ফারহানা এ প্রতিবেদককে বলেন, আগের দিন কুমিল্লায় থাকার মত হোটেল ব্যবস্থা করা যায়নি। ফলে বাধ্য হয়ে ভোর ৪টায় গাবতলী থেকে কারযোগে রওয়ানা দেই। কিন্তু রাস্তায় রাস্তায় যানজট পেরিয়ে আসতে দেরী হয়ে যায়।