শুক্রবার ২৪ জানুয়ারী ২০২০


চান্দিনায় গণপিটুনিতে ডাকাত নিহত


আমাদের কুমিল্লা .কম :
29.11.2019

চান্দিনা প্রতিনিধি : কুমিল্লার চান্দিনায় গণপিটুনিতে রিপন (৩২) নামে এক ডাকাত নিহত হয়েছে। বুধবার দিনগত রাত সাড়ে ১২টায় চান্দিনা উপজেলার কেরনখাল ইউনিয়নের ডুমুরিয়া এলাকায় গণপিটুনির পর ভোরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু ঘটে তার। নিহত রিপন কুমিল্লা বরুড়া উপজেলা বাঁশতলী গ্রামের রমিজ উদ্দিন এর ছেলে।
পুলিশ সূত্রে জানা যায়- বুধবার রাত দেড়টায় ১০-১৫ জনের একটি ডাকাত দল ডুমুরিয়া গ্রামের মো. রফিকুল ইসলাম মুহুরীর বাড়িতে ডাকাতি শেষে পালানোর সময় স্থানীয় লোকজন ধাওয়া করে ডাকাত রিপনকে আটক করে গণপিটুনি দেয়।
খবর পেয়ে চান্দিনা থানা পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে তাকে উদ্ধার করে চান্দিনা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়। সেখানে তার অবস্থার অবনতি ঘটলে ভোর পৌঁনে ৪টায় তাকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক ডাকাত রিপনকে মৃত ঘোষনা করে।
চান্দিনা থানার ওসি মো. আবুল ফয়সল বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন- ডাকাত রিপন এর বিরুদ্ধে বরুড়া থাকায় ৫টি ডাকাতি মামলা রয়েছে। ডুমুরিয়া গ্রামের মো. রফিকুল ইসলাম মুহুরীর বাড়িতে ডাকাতির ঘটনায় এবং গণপিটুনিতে ডাকাত নিহতের ঘটনায় থানায় পৃথক দুইটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।
খোঁজ নিয়ে জানা যায়- বুধবার রাত ১২টায় কলাপসিবল গেইটের তালা ও দরজা ভেঙ্গে রাত ১২টায় রফিক মুহুরী ঘরে প্রবেশ করে ডাকাতদল। এসময় রফিক মুহুরীর ঘর থেকে ২টি ল্যাপটপ, ২টি মোবাইল সেট, নগদ ১৫ হাজার টাকা লুটে নেয়। ডাকাতদের হামলায় মো. রফিকুল ইসলাম মুহুরীর ছেলে রুবেল আহত হয়।
পরে একই বাড়ির মনির হোসেন এর ঘরে প্রবেশ করে ডাকাতদল। এসময় মনির হোসেন এর ঘর থেকে একটি মোবাইল ফোন, পাঁচ ভরি স্বর্ণ সহ মালামাল লুটে নেয়। সর্ব শেষে আবু তাহের এর ঘরে ঢুকে ডাকাদল। তবে ওই ঘর থেকে কোন মালামাল লুট করতে পারেনি।
এদিকে খবর পেয়ে সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার দাউদকান্দি সার্কেল আবু সালাম চৌধুরী ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।