রবিবার ১৯ জানুয়ারী ২০২০


কৃষি ব্যাংকের গ্রিল কেটে ১১ লক্ষাধিক টাকা লুট


আমাদের কুমিল্লা .কম :
05.12.2019

আবদুল মান্নান,চৌদ্দগ্রাম(সদর)।।  কুমিল্লায় কৃষি ব্যাংকে ভল্টের তালা ভেঙ্গে ১১ লক্ষাধিক টাকা লুটের ঘটনা ঘটেছে। মঙ্গলবার দিবাগত গভীর রাতে জেলার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার ২নং উজিরপুর ইউনিয়নের কৃষি ব্যাংক মিয়াবাজার শাখায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশ ব্যাংকের ২ গার্ড ও ১ পিয়নসহ ৩জনকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।
জানা গেছে, জনবহুল মিয়াবাজারের সালমান হায়দার মার্কেটের তৃতীয় তলায় অবস্থিত বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংকের মিয়াবাজার শাখা। ব্যাংকের ম্যানেজার সাকিব সালেহীন জানান, মঙ্গলবার ব্যাংকের কর্ম দিবস শেষে গার্ড শাহজাহানকে রেখে কর্মস্থাল ত্যাগ করেন তিনি, রাত ৮টার পর থেকে ব্যাংকটির পাহারার দায়িত্ব ছিলো গার্ড সেলিমের ওপর। তিনি আরও জানান, বুধবার সকালে জানতে পারেন- ব্যাংকের উত্তর দিকের জানালা কেটে ও ব্যাংকের ভল্টের তালা ভেঙ্গে টাকা লুটে নেয়া হয়েছে। ওই রাতে পাহারার দায়িত্বে থাকা পিমা লিমিটেডের গার্ড সেলিম (৪৯) জানান, আমি হার্টের রোগী। শারীরিক অসুস্থাতার কারণে রাত ১০টার পর বাড়িতে চলে যাই। সকালে ঝাড়–দার রঞ্জিত ঝাড়– দিতে আসলে বিষয়টি জানাজানি হয়।
কৃষি ব্যাংক কুমিল্লা অঞ্চলের জিএম মোঃ আমিনুল বাহার জানান, ব্যাংক থেকে ভল্টের তালা ভেঙ্গে ১১লাখ ১৫ হাজার ২১৫টাকা লুটে নেয়া হয়েছে। দায়িত্বে অবহেলার কারণে এঘটনা ঘটে থাকতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। ব্যাংটিতে ৬জন কর্মকর্তা ১জন কর্মচারী ও ২জন গার্ড কর্মরত আছেন। ব্যাংকে কোন সিসি ক্যামেরা নেই। সকালে খবর পেয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আব্দুল্লাহ আল মামুন, ডিবির এলআইসিটিম, চৌদ্দগ্রাম থানার ওসি আব্দুল্লাহ আল মাহফুজসহ পুলিশ কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে পৌঁছেন।
অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ব্যাংকের দুইগার্ড শাহজাহান, সেলিম ও পিয়ন আবু তাহেরকে থানায় নেয়া হয়েছে।
কুমিল্লা পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম জানান, আমি কুমিল্লায় যোগদানের পর ব্যাংকগুলোর কর্মকর্তাদের নিয়ে বৈঠক করে ব্যাংকে সিসি ক্যামেরা স্থাপনসহ নিজস্ব নিরাপত্তা ব্যাবস্থা জোরদার করার আহবান জানিয়েছিলাম। কিন্তু ওই ব্যাংকটিতে কোনও সিসি ক্যামেরা ছিলো না এবং নিরাপত্তা ব্যবস্থা ছিলো দুর্বল। ঘটনাটি তদন্তে পুলিশ কাজ করছে। আশা করি সহসাই প্রকৃত ঘটনা উদঘাটন হবে এবং সংশ্লিষ্টরা ধরা পড়বে।