বৃহস্পতিবার ২২ অক্টোবর ২০২০
  • প্রচ্ছদ » sub lead 2 » দেবিদ্বারে ছুরিকাঘাতে কিশোর খুনের ঘটনায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি


দেবিদ্বারে ছুরিকাঘাতে কিশোর খুনের ঘটনায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি


আমাদের কুমিল্লা .কম :
13.02.2020

দেবিদ্বার প্রতিনিধি : কুমিলøার দেবিদ্বারে প্রতিপÿের ছুরিকাঘাতে শাকিল (১৬) নামে এক কিশোর খুনের ঘটনায় দেবিদ্বার থানায় মামলা দায়ের ও আরিফুল ইসলাম(২০) নামে এক আসামিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। আরিফুলকে বুধবার কুমিলøা ৪নং আমলী আদালতে হাজির করা হলে, বিকেল ৪টায় আদালতের জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট রোকেয়া বেগমনে নিকট ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি প্রদানকালে হত্যাকাÐের দায় স্বীকার করলে তাকে কুমিলøা কেন্দ্রীয় কারগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।
ওই হত্যাকান্ডের ঘটনায় নিহত শাকিলের মা হাসনেয়ারা বেগম বাদী হয়ে মঙ্গলবার রাতে উপজেলার ধামতী গ্রামের কাঠ মিস্ত্রিপাড়ার রফিকুল ইসলাম মিস্ত্রি’র এক মেয়ে ও দুই ছেলে জহিরুল ইসলাম(২৫), আরিফুল ইসলাম(১৭) ও কন্যা ফাতেমা আক্তার(৩৫), একই গ্রামের আব্দুল মান্নান চৌধূরীর ছেলে সোলেমান চৌধুরী(৩০) ও নাছির উদ্দিন চৌধুরীর ছেলে মোঃ সানাউল হক চৌধুরীকে(২৬) এজহারনামীয় এবং অজ্ঞাতনামা আরো ১২জনকে অভিযুক্ত করে ওই মামলা দায়ের করেন।
নিহত সাকিল উপজেলার জাফরগঞ্জ ইউনিয়নের খয়রাবাদ গ্রামের তাজুল ইসলামের ছেলে, সে একই উপজেলার সুলতানপুর ইউনিয়নের রাধানগর গ্রামের নানার বাড়ি থেকে হকারী করে খেলার সামগ্রী বিক্রি করত। ঘটনার সময় রাধানগর গ্রামের অপর আহত ৪জনের মধ্যে শরীফ মিয়াজী, সোহাগ মিয়াজী ও আল-আমিনকে দেবীদ্বার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এবং মারাত্মক আহত খোরশেদ আলমকে কুমিলøা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়,- প্রায় দেড় মাস পূর্বে ধামতী গ্রামের একটি মাহফিলে আসা রাধানগর গ্রামের শরীফ মিয়াজির সাথে চটপটি খাওয়া নিয়ে ধামতী মিস্ত্রিপাড়ার রফিক মিয়ার ছেলে আরিফের বাগ-বিতন্ডা ও হাতা হাতি হয়, ওই ঘটনাটি মাহফিলে আসা লোকজন উভয়কে শান্তনা দিয়ে মিমাংসা করে দেন। হত্যাকান্ডের ঘটনার দিন অর্থাৎ গত সোমবার বিকেল ৫টায় রাধানগর উচ্চ বিদ্যালয়ের সাথে ধামতী গ্রামের তরুণদের মধ্যে (রাধানগর ও ধামতী গ্রামের সীমানায়) ক্রিকেট খেলা ছিল। ওই খেলা দেখতে রাধানগর গ্রামের পিকাপ ভ্যান চালক শরীফ মিয়াজী পিকাপভ্যান নিয়ে ধামতী গ্রামের মিস্ত্রিবাড়ির সামনে আসলে, পূর্বে চটপটি খাওয়ার ঘটনার দ¦›দ্বকে পুনরাবৃত্তি করে মিস্ত্রিপাড়ার আরিফ ও সানাউল হক শরীফ মিয়াজীকে মারধর করে।

শরীফ মিয়াজী ওই মারধর করার সংবাদ মোবাইল ফোনে রাধানগর গ্রামের শাকিল, আল-আমিন, বিলøাল হোসেন, খোরশেদ আলমসহ কয়েকজনকে জানালে তারা ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন, এসময় তাদের সাথেও বাগবিতন্ডা, হাতাহাতি এক পর্যায়ে আরিফ তার পকেটে থাকা ছোরা বের করে সাকিলের বুকের বামপাশে ছুরি বসিয়ে দিলে সে ঘটনাস্থলেই লুটিয়ে পড়ে। স্থানীয়রা তাকে দ্রæত চান্দিনা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত: ঘোষণা করেন। এসময় আহত ৪জনকেই হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

নিহত শাকিলের বাবা তাজুল ইসলাম জানান, তিনি ২ বিয়ে করেছেন। দ্বিতীয় স্ত্রী নিয়ে কুমিলøা শহরে পিকাপ ভ্যান দিয়ে ফার্মের মুরগী বিভিন্ন স্থানে সরবরাহ করেন। প্রথম স্ত্রী সাকিলকে নিয়ে রাধানগর তার বাবার বাড়িতে থাকেন। পুত্র হত্যার ঘটনায় তিনি অভিযুক্তদের দৃষ্টান্তমূলক শা¯িÍ দাবি করেন।

এ ব্যাপারে দেবিদ্বার থানার ওসি জহিরুল আনোয়ার জানান,- পূর্বশত্রæতার জের ধরে সাকিলকে খুন করা হয়, ওই ঘটনায় নিহতের মা’ বাদী হয়ে থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। অভিযুক্ত আরিফুলকে (২০) গোপন সংবাদ ও তথ্যপ্রযুক্তির সহায়তায় ঢাকা ডেমরায় আত্মগোপনে থাকা অবস্থায় মঙ্গলবার রাতে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অন্যান্য আসামিদের গ্রেফতার অভিযান অব্যাহত আছে।