বৃহস্পতিবার ৪ জুন ২০২০
  • প্রচ্ছদ » sub lead 2 » উপসর্গ নিয়ে মৃতের লাশ নিয়ে ১১ঘন্টা বসেছিলেন স্ত্রী ও তিন সন্তান !


উপসর্গ নিয়ে মৃতের লাশ নিয়ে ১১ঘন্টা বসেছিলেন স্ত্রী ও তিন সন্তান !


আমাদের কুমিল্লা .কম :
11.05.2020

স্টাফ রিপোর্টার।।
কুমিল্লার দেবিদ্বারে করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া ব্যক্তির লাশ দাফনে আত্মীয়-স্বজন ও এলাকাবাসী কেউ এগিয়ে আসেনি। ১১ ঘন্টা লাশ নিয়ে বসেছিলেন স্ত্রী ও অবুঝ তিন সন্তান। পওে সে¦চ্ছাসেবক লীগ নেতার উদ্যোগে গোসল, জানাযা ও দাফন সম্পন্ন করা হয়। রোববার ঘটনাটি ঘটেছে দেবিদ্বার উপজেলার বরকামতা ইউনিয়নের নবীয়াবাদ গ্রামে।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শনিবার দিবাগত ভোর ৪টায় করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা যান নবীয়াবাদ গ্রামের সাবেক কৃষি কর্মকর্তা শাহেদ আলী ভূইয়ার ছেলে হেলাল ভূইয়া। তিনি গত কয়েক দিন যাবৎ জ্বর-ঠান্ডা ও কাশিসহ করোনা উপসর্গ নিয়ে ঘরে চিকিৎসা নিচ্ছিলেন। পারিবার তার অসুস্থতার বিষয়টি গোপন রেখেছিলো। বিকাল ৩ ঘটিকার দিকে কুমিল্লা জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা লিটন সরকারের উদ্যোগে লাশের গোসল, জানাযা ও দাফন সম্পন্ন করা হয়।
এ বিষয়ে জেলা সে¦চ্ছাসেবক লীগ নেতা লিটন সরকার জানান, ভোর রাতে লোকটি মারা গেলে লাশের পাশে অসহায় স্ত্রী ও অবুঝ তিনটি সন্তান কান্না-কাটি করলেও এলাকাবাসী বা তার কোন স্বজন এগিয়ে আসেনি। লাশ দাফনতো দূরের কথা ওই অসহায় পরিবারটিকে সান্ত¦না দিতেও তার বাড়িতে কেউই আসেনি। স্থানীয় স্বেচ্ছাসেবক লীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের নিয়ে লাশের গোসল, জানাযা ও দাফন সম্পন্ন করি।
উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. আহাম্মদ কবির জানান, হেলাল ভূইয়ার মৃত্যুর খবরটি আমরা পাইনি। তার পরিবারের লোকজন বা স্থানীয় জনপ্রতিনিধি কেউই বিষয়টি অবগত করেননি। মৃত্যুর পর তিন ঘন্টার মধ্যে স্যাম্পল কালেকশন করতে হয়। যখন জেনেছি তখন স্যাম্পল নেওয়ার সময় ছিলোনা। তবে তার পরিবারের সদস্যদের স্যাম্পল নেওয়ার ব্যবস্থা করা হবে।