রবিবার ৯ অগাস্ট ২০২০


এক সপ্তাহে একই থানার ১০ পুলিশ সদস্য করোনা পজিটিভ


আমাদের কুমিল্লা .কম :
14.05.2020

চাঁদপুর প্রতিনিধি।।
করোনা সংক্রমণ রোধে কাজ করতে গিয়ে চাঁদপুরে এক সপ্তাহের মধ্যে একই থানার ১০ জন পুলিশ সদস্য করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এর মধ্যে পাঁচ জন উপপরিদর্শক (এসআই), চার জন কনস্টেবল, একজন ট্রাফিক পুলিশ। সদর থানার করোনা পজিটিভ পুলিশ সদস্যরা বর্তমানে আইসোলেশনে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এছাড়া আক্রান্তদের সংস্পর্শে আসা আরও বেশ কয়েকজন পুলিশ সদস্যকে কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। তাদের কোয়ারেন্টিন করার জন্য পুলিশ শহরের তিনটি হোটেলও ভাড়া নিয়েছে।
চাঁদপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) জাহেদ পারভেজ চৌধুরী জানান, মাঠপর্যায়ে কাজ করতে গিয়ে গত ৭ মে প্রথম তিন জন পুলিশ সদস্যের রিপোর্ট পজিটিভ আসে। এরপর ৯ মে আরও পাঁচ জনের রিপোর্ট পজিটিভ আসে। আর ১৩ মে বুধবার একজন ট্রাফিক সদস্যের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে।
তিনি জানান, ‘যারা আক্রান্ত হয়েছেন তাদের আক্রান্ত হওয়ার এক সপ্তাহ আগেই তাদের হোটেলে কোয়ারেন্টিন করেছিলাম। যখন তারা নমুনা দেন তখনই তাদের আলাদা করা হয়। ফলে এই পুলিশ সদস্যরা ছাড়া নতুন করে কেউ আক্রান্ত হননি।’
চাঁদুপুরে মাঠ পর্যায়ের কাজ করতে গিয়ে করোনা আক্রান্ত হচ্ছেন পুলিশ সদস্যরা
তিনি জানান, ‘আমরা মোট ১০ জন পুলিশ সদস্য বলছি এ কারণে, আমার আরেকজন কনস্টেবল ছিল রাজারবাগে। তিনি ফিজিওথেরাপি ট্রেনিং করছিলেন এবং সেখানেই আক্রান্ত হয়েছেন। যেহেতু তিনি আমাদের চাঁদপুরে বদলি তাই আমরা তাকে এখানের হিসাবেই দেখাবো।’
তিনি বলেন, ‘পুলিশ সদস্যদের আইসোলেশন, কোয়ারেন্টাইন এবং আলাদা থাকার জন্য তিনটি হোটেল নিয়েছি। এছাড়া আমাদের পুলিশ সদস্যদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রীর কোনও অভাব নেই।’
চাঁদপুরের পুলিশ সুপার মাহবুবুর রহমান জানান, ‘করোনা সংক্রমণ রোধে আমরা পুলিশ বাহিনী মানুষকে সচেতন করতে লড়াই করে যাচ্ছি। এটি করতে গিয়ে আমার পুলিশ ভাইয়েরা করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। আশা করি, যারা আক্রান্ত হয়েছেন, তারা ইনশাল্লাহ সুস্থ হয়ে উঠবেন। আর যেন কোনও পুলিশ সদস্য কিংবা অন্য কেউ আক্রান্ত না হন, সেটির জন্য সবার দোয়া চাই।’
প্রসঙ্গত, জেলায় এ পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৬০ জন। এর মধ্যে মৃত চার জন, সুস্থ ১৪ জন। বাকি ৪২ জন আইসোলেশনে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।