বৃহস্পতিবার ৪ জুন ২০২০


আজ আমি ভাত খাব, ভাত!


আমাদের কুমিল্লা .কম :
18.05.2020

মোস্তাফিজুর রহমান জুয়েল।।

২০১৭ সালে নেপালে বেড়াতে গিয়েছিলাম আমি আর সবসময়ের বিশ্বস্ত বন্ধু এপে. জসিমউদ্দিন ভুইয়া। ওখানে গিয়ে ভাত পাই না। হায়রে মাথা নষ্ট। ৩দিন হয়ে গেছে ভাতের সাথে দেখা নাই। কি করব, কোথায় যাব, ভাতের অভাবে মারা যাব নাকি বেঁচে থাকব কিছুই ভাবতে পারছি না। বাড়ি থেকে গিন্নি কল দিলে বলি, ভাত খাই নাই। এটা খাই, ওটা খাই, কিন্তু ভাতের মজা পাই না, টাকাও প্রচুর খরচ হচ্ছে কিন্তু ভাত?
৪র্থ দিনে জানলাম, পোখারায় একটি মাত্র হোটেলে ভাত পাওয়া যায়, ডিমভাজা আর পাতলা ডাল দিয়ে। গেলাম, কি যে খুশি লাগছিল, ভাত খাব, আহহহ। কিন্তু ডিম ভাজছে বাফেলোর তেল দিয়ে, কি যে একটা গন্ধ নাকে লাগল। শেষে আর খেতে পারলাম না। হোটেলে ফিরে খালি হাত ধুই আর ধুই কিন্তু গন্ধ আর যায় না। যাক, ভাত না খাওয়ার কি যে কষ্ট তা লিখে বুঝানো যাবে না। পরেরদিন ২টায় ফ্লাইট কাঠমুন্ডু টু ঢাকা। বিমান ঢাকার আকাশে ঢুকার পর অপেক্ষায় ছিলাম কখন মোবাইলে নেট পাব? তখনো বিমানের চাকা মাটিতে স্পর্শ করেনি। বউকে কল দিলাম, আলহামদুলিল্লাহ, আমরা ল্যান্ড করছি, ফ্রিজে কি গরুর মাংস আছে? ও বলছে, আছে কিন্তু কেন? বললাম, বেশি করে ভাত রান্না কর আর মাংস রান্না কর। আজ আমি ভাত খাব, ভাত। খাবে ঠিক আছে কিন্তু তাড়া কেন? তুমি ত বাড়িতে পৌঁছতে আরো ৪/৫ ঘন্টা লাগবে। আমি বললাম, আসব, গোসল করব। কোন কথা হবে না, ভাত খাব ভাত। বাকিটা ইতিহাস।
ঘটনা সেটা না।
ঘটনা হলো ডাঃ জাহাঙ্গীর কবির স্যারের পরামর্শ গ্রহণ করে ভাত খাওয়া প্রায় ছেড়েই দিয়েছি। ইচ্ছে হলে ইচ্ছে মত খাই, আবার এক সপ্তাহ না খেলেও কিছু যায় আসে না।
ঘটনা কিন্তু সেটাও না।
ঘটনা হল, এই রোজায় একদিন বিরিয়ানি খেয়েছি ইচ্ছেমত আরেকদিন পরিমাণমত ভাত খেয়েছি। যা খেয়েছি বা খাই সবি ইফতার থেকে শুরু করে রাত সাড়ে ৯টার মধ্যে। প্রতিদিন সেহরিতে শুধু একমুঠো বাদাম আর এক গ্লাস লবন পানি।
শোকরিয়া ওজন আরো ৪কেজি কমে ৬৬কেজি। টার্গেট ছিল ৬৮ কেজি।
ঘটনা কিন্তু এটাও না।
আসল ঘটনা হল, ভাত রুটি ই আমাদেরকে অসুস্থ হওয়ার জন্য মোটা তাজা করে। ভাত রুটি ছেড়ে দিন, ওজন কমান, অনেক রোগ থেকে মুক্তি পান।
বাড়িতে থাকুন, সুস্থ থাকুন।

লেখক- যমুনা ব্যাংক ফেনী শাখার কর্মকর্তা ও এপেক্স ক্লাব অব কুমিল্লার সেবা পরিচালক,০১৯১৩-৫৭৮৪৯৪।