শুক্রবার ১৪ অগাস্ট ২০২০


রেড জোনের আওতায় আসছে কুমিল্লা!


আমাদের কুমিল্লা .কম :
08.06.2020

স্টাফ রিপোর্টার।।
মহামারী করোনার প্রাদুর্ভাব এড়াতে কুমিল্লাকে রেডজোন হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। তবে এখনো আনুষ্ঠানিক সিদ্ধান্ত আসেনি। কুমিল্লাকে রেডজোন হিসেবে চিহ্নিত করার সিদ্ধান্ত আসলে পরে জেলার উপজেলার বিভিন্ন এলাকাও রেডজোন হিসেবে চিহ্নিত করবে স্থানীয় প্রশাসন । এসময় রেডজোন এলাকায় চলাফেরায় সব কিছুর বিষয়ে বাড়তি সতর্কতা অবলম্বন করা হবে। আগেরমত দায়সারা গোছের নয় এবার নাগরিকদের প্রস্তুত থাকতে হবে কঠোর লাক ডাউন মোকাবেলার জন্য। বাঁচতে হলে সুস্থ থাকতে হলে এর কোন বিকল্প নেই বলে জানিয়েছেন প্রশাসনের এক কর্মকর্তা।
জানা যায়, কুমিল্লাকে রেড জোন হিসেবে তালিকাভুক্ত করা হয়েছে। ফলে পুরোপুরি লকডাউনের আওতায় আসছে কুমিল্লা জেলা।
দেশে করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) সংক্রমণ ঠেকাতে নতুন নিয়মে শুরু হয়েছে লকডাউন। আক্রান্তের আধিক্য বিবেচনায় রেড জোন, ইয়েলো জোন ও গ্রিন জোনে চিহ্নিত করে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে বাস্তবায়ন হবে স্বাস্থ্যবিধি ও আইনি পদক্ষেপ। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে জানানো হয়েছে দেশের তিনটি বিভাগ, ৫০টি জেলা ও ৪০০টি উপজেলাকে পুরোপুরি লকডাউন (রেড জোন বিবেচিত) দেখানো হচ্ছে। আংশিক লকডাউন (ইয়েলো জোন বিবেচিত) দেখানো হচ্ছে পাঁচটি বিভাগ, ১৩টি জেলা ও ১৯টি উপজেলাকে। আর লকডাউন নয় (গ্রিন জোন বিবেচিত) এমন জেলা দেখানো হচ্ছে একটি এবং উপজেলা দেখানো হচ্ছে ৭৫টি।
সেই তালিকায় কুমিল্লা জেলাকে রেড জোন উল্লেখ করে পুরোপুরি লকডাউনের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। কুমিল্লা জেলায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ৪১৩ জনে। শনিবার পর্যন্ত মৃত্যু সংখ্যা ৪০ জনে আছে।
কুমিল্লা জেলার অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট জামেরী হাসান জানান, রেডজোন হিসেবে চিহ্নিত করার জন্য এখনো কুমিল্লা জেলা প্রশাসন আনুষ্ঠানিক কোন বার্তা পায় নি। তবে ধারণা করা হচ্ছে খুব শীঘ্রই সে বার্তাটি পাওয়া যাবে। বার্তা পেলে জেলার বিভিন্ন এলাকা যেমন দেবিদ্বার, সিটি কর্পোরেশনের মত বেশী আক্রান্ত এলাকাগুলোকে রেডজোন হিসেবে চিহ্নিত করে করোনা প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে কাজ করা হবে।