শুক্রবার ৭ অগাস্ট ২০২০


সেদিন কামরান ভাই, তানিম ভাইকে সাহস দিয়েছিলেন


আমাদের কুমিল্লা .কম :
16.06.2020

আহসানুল কবির।।

২০০৫ সনে এক ঘোর অমানিশার সময় আমাদের কাছে আলোর শিখা হয়ে পাশে দাড়িয়েছিলেন বদরউদ্দিন আহমেদ কামরান ভাই।আগের রাতে তানিম ভাইকে র‌্যাব তুলে নিয়ে গেছে।বাহার ভাই পবিত্র হজ্জ পালনে মক্কায়।আমরা কিংকর্তব্যবিমূড়।অসহায়ের মতো এর কাছে ওর কাছে ছুটোছুটি করছি।এর মাঝে দুপুর বারোটার দিকে খবর পেলাম সিলেটের নবনির্বাচিত প্রথম মেয়র কামরান ভাই কি এক কাজে কুমিল্লায় এসেছেন।খদ্দরের কাপড় কেনার জন্য এখন মনোহরপুর বিশুদ্ধ খদ্দর ভান্ডারে।রিফাত ভাই দৌঁড়ে আসলেন।আমি ডাঃ শহীদুল্লাহ সাহেবকে ফোন দিয়ে জানালাম।কারন তিনি একসময় সিলেটে ছিলেন এবং দেওয়ান ফরিদ গাজী থেকে শুরু করে সিলেটের নেতাদের সাথে উনার সুসম্পর্ক। উনিও আসলেন। আমরা ছুটে গেলাম।সবার সামনেই কামরান ভাই শহীদুল্লাহ চাচাকে পায়ে হাত দিয়ে সালাম করলেন।হাল আমলের নেতাদের মধ্যে এ বিনয় টুকু নেই।কামরান ভাই কে সব বললাম।তানিম ভাই কি অবস্হায় আছে আমরা কোন নির্ভরযোগ্য সংবাদ পাচ্ছিলামনা।সব শুনে কামরান ভাই আমাদের কে সাহস দিলেন।বললেন আমি নির্বাচিত জন প্রতিনিধি আমি সেখানে যাবো।দেখি আমাকে কে আটকায়।যেই কথা সেই কাজ।তিনি তানিম ভাই কে যেখানে রাখা হয়েছিলো সেখানে গেলেন।তানিম ভাই কে সাহস দিলেন র‌্যাব এর কর্মকর্তাদের সাথে কথা বলে আবার আমাদের মাঝে ফেরত আসলেন।বলাবাহুল্য তিনি সেদিন তার সমুদয় পূর্ব নির্ধারিত কর্মসূচি সেদিন বাতিল করেছিলেন।এরকম কর্মী বান্ধব নেতা এখন বিরল হয়ে যাচ্ছে।আওয়ামী রাজনীতির স্তম্ভ মোহাম্মদ হানিফ এ বি এম মহিউদ্দিন চৌধুরীর পর কামরান ভাই ও না ফেরার দেশে চলে গেলেন।একে একে বাতিশুন্য হয়ে যাচ্ছে দল।জানিনা এ কোন অশনি সংকেত।হে আল্লাহ আমাদের হেফাজত করুন।কামরান ভাইকে জান্নাতুল ফেরদৌস নসীব করুন।

লেখক : সাংস্কৃতিক সংগঠক,লেখক ও গবেষক । লেখককে প্রতিক্রিয়া জানাতে পারেন-০১৭১১-৩৯৩৮৫৭