বুধবার ৮ জুলাই ২০২০


রাজনীতি নিয়ে আলকাসুর রহমানের সুপ্ত বাসনা  বিকশিত হতে পারেনি


আমাদের কুমিল্লা .কম :
17.06.2020

আহসানুল কবীর।।

আর নিতে পারছিনা।প্রতিদিন স্বজনদের মৃত্যু সংবাদে ভারাক্রান্ত হচ্ছি।আলকাসুর রহমান সাহেব কে চিনি তিন যুগের অধিক সময়।সজ্জন ভালো মানুষ নিবেদিত প্রাণ আওয়ামীলীগার।দেশের জন্য অস্ত্র হাতে যুদ্ধ করেছিলেন।রাজনীতিতে আরো বেশী অবদান রাখার স্বপ্ন নিয়ে লন্ডন থেকে দেশে ফিরে এশেছিলেন।সুপ্ত বাসনা ছিলো জনপ্রতিনিধি হয়ে জনগণের সেবা করবেন।কিন্তু ততোদিনে পদ্মা মেঘনার গতিপথ বদলে গেছে।রাজনীতিবিদদের জন্য রাজনীতি ক্রমঃশই সোনার হরিণে পরিণত হয়েছে।ফলে আলকাসুর রহমানের সুপ্ত বাসনা আর বিকশিত হতে পারেনি।সুপ্তই রয়ে গেছে। লন্ডন থেকে আসার পর প্রায় চার বছর তিনি আমাদের বাসায় ছিলেন।প্রথম সন্তান মুন্নী তখন হাটতে শুরু করেছে মাত্র।উনার স্ত্রী সূচি শিল্পে পারদর্শী ছিলেন।ঘরে বসে নান্দনিক সব শিল্পকর্ম করতেন।এখনো তিনি এগুলোর চর্চা অব্যাহত রেখেছেন কিনা জানিনা। আমি তখন স্কুলে পড়ি।ক্লাস এইটে পড়ার সময় তিনি আমাকে খন্দকার মোহাম্মদ ইলিয়াস এর লেখা মুজিববাদ বইটি পড়তে দিয়েছিলেন। পত্রিকা আমার লেখা প্রকাশ হলেই পড়ে মন্তব্য জানাতেন।লিখতে বিলম্ব হলে ফোনে তাড়া দিতেন।অজিত গুহ কলেজের অধ্যক্ষের দায়িত্ব নেয়ার পর আমাকে দাওয়াত দিয়ে চা খাইয়েছিলেন। “মতিন ভাই আমাকে এই চেয়ারে দেখলে আজ কত খুশি হতেন” একথা বলে কেঁদে ফেলেছিলেন।চৌয়ারা এলাকায় বিএনপির প্রবল প্রতাপের মাঝেও পাহাড়ের মতো অটল হয়ে দলকে আগলে রেখেছেন।আজ তিনিও স্মৃতি হয়ে গেলেন।আওয়ামীলীগের খুটিগুলো পড়ে যাচ্ছে।সামনে হয়তো আবাহনী মোহামেডান এর মত যে যত বেশী টাকা খরচ করতে পারবে তারাই টিকে থাকবে।রাজনৈতিক কর্মীদের স্বপ্ন শুধু ফিঁকেই হবে বঞ্চনার মিছিল একসময় মৃত্যুর মিছিলে পরিণত হবে।রাজনৈতিক কর্মীদের হাহাকার পুজিপতিদের জান্তব উল্লাসে হারিয়ে যাবে।ভাল থাকবেন প্রিয় মুজিব সেনা। ভালো থাকবেন শৈশবে যিনি আমার মাঝে মুজিবাদর্শের বীজ বপনে সারথী হয়েছিলেন।

লেখক : সাংস্কৃতিক সংগঠক,লেখক ও গবেষক। প্রতিক্রিয়া জানানোর জন্য ফোন করতে পারেন-০১৭১১-৩৯৩৮৫৭