বুধবার ৮ জুলাই ২০২০


কামাল লোহানী ছিলেন খুবই উদার ও আন্তরিক


আমাদের কুমিল্লা .কম :
21.06.2020

রেজাউল করিম শামিম।।
আমরা আরো একজন দেশবরণ্য ব্যক্তিত্বকে হারালাম।তিনি হলেন,কামাল লোহানী।তিনি একধারে ভাষা সৈনিক, বীর মুক্তিযোদ্ধা,স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রর অন্যতম সংগঠক,সাংস্কৃতিক সংগঠক সর্বপরি তিনি একজন প্রথিতযষা সাংবাদিক ছিলেন।বিভিন্ন ক্ষেত্রে তাঁর এই বহুমাত্রিক অবদানের জন্যে তিনি ২০১৫ সালে একুশে পদকে ভূষিত হয়েছেন।
কামাল ভাইকে,আমি কাছে পেয়েছিলাম,‘৭৩-৭৪ সালে। তিনি তখন,বাংলার বাণী পত্রিকায় বার্তা সম্পাদক ছিলেন।আমি ছিলাম ঐ পত্রিকার কুমিল্লা জেলা প্রতিনিধি।ঢাকায় গিয়ে প্রথম যেদিন ওনার সাথে দেখা হয়,সেদিন খুব ভয়ে ভয়েই ওনার কক্ষে ঢুকেছিলাম।একেতো সাংবাদিকতায় নতুন। তার উপর আবার ‘মফস্বলে“এর সাংবাদিক।ভয়টা এখানেই। ঢুকেই দেখলাম বেশ রাষভাড়ি ব্যক্তিত্ব কামাল লোহানীকে।সেসময় বাংলার বানীতে কর্মরত,যুবলীগ নেতা শফিকুল আজিজ মুকুল ভাইও ছিলেন ওনার কক্ষে।মুকুল ভাইয়ের সাথে আগে থেকেই পরিচয় ছিলো।তিনেই আমাকে লোহানি ভাইযের সাথে পরিচয় করে দিয়ে ছিলেন।পরে দেখলাম তিনি খুবই উদার ও আন্তরিক।এরপর থেকে অনেকবারই দেখা ও কথা হয়েছে । কেন জানিনা উনি আমাকে খুব স্নেহ করতেন।ঢাকায় পত্রিকা অফিসে গেলে, লেখা নিয়ে আগেই ওনাকে দেখাতাম।উনি খুবই ব্যস্থ থাকতেন। সেসময়তো,কম্পিউটার ছিলোনা। গ্রাফ সিটের উপরই কাট্ এবং প্যষ্ট করে মেকআপ দেয়া হতো। তৈরী করতে হতো ড্যমী।এসব ব্যস্থতার মধ্যেও উনি আমার লেখার প্রয়োজনীয় সংশোধন করতেন,সাথে সাথে বোঝাতেনও। কেন কাটা বা পরিবর্তন করা হচ্ছে তা বলে দিতেন।এভাবে অনেক কিছু শিখেছিও ওনার কাছ থেকে।
লেখক : কুমিল্লা প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি ও সিনিয়র স্টাফ রিপোর্টার,দৈনিক খবর।