সোমবার ১৩ জুলাই ২০২০


চান্দিনায় সামাজিক দূরত্ব মানছে না মানুষ


আমাদের কুমিল্লা .কম :
23.06.2020

মাসুমুর রহমান মাসুদ, চান্দিনা।।
কুমিল্লার চান্দিনায় চলমান করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব রোধে সামাজিক দূরত্ব মানছে না কেউ। হাট-বাজারে চলাফেরা, কেনা-কাটা কোন ক্ষেত্রেই মানা হচ্ছে না সামাজিক দূরত্ব! এতে করোনা ভাইরাসে সংক্রামিত রোগীর সংখ্যা দিনদিন বৃদ্ধি পাচ্ছে।

চান্দিনা উপজেলায় এ পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছেন ১শত ৬৬জন। এদের মধ্যে শুধুমাত্র চান্দিনা বাজার, পৌরসভা ও আশ-পাশের এলাকাতেই রয়েছে ১শত ০৪জন। আক্রান্তদের মধ্যে ১১ জন ইতোমধ্যে মৃত্যুবরণ করেছেন। এছাড়া করোনা উপসর্গ নিয়ে অনেকেই মৃত্যুবরণ করেছেন। তারপরও জনমনে করোনা সংক্রামন ভীতি চোখে পড়ছে না।

সোমবার (২২ জুন) দুপুরে চান্দিনা বাজারের বিভিন্ন স্থান ঘুরে দেখা গেছে প্রধান সড়কটিতে সিএনজি অটোরিক্সা, ইজিবাইক ও রিক্সার তীব্র যানজট। মধ্যবাজারের ওষুধ দোকান, কাপড় পট্টি, মুদি বাজারে মানুষের তীল ধারণের ঠাঁই নেই।

অনেক ব্যবসা প্রতিষ্ঠানেই নেই জীবানু নাশক স্প্রে বা হাত ধোয়ার ব্যবস্থা। উপরন্তু অধিকাংশ দোকানগুলোতে ক্রেতাদের গাদাগাদি সমাগম। সামাজিক দূরত্বের বৃত্ত চিহ্ন গুলোও যেন মুছে গেছে। ব্যাংকগুলোতে সামাজিক দূরত্বের চিহ্ন থাকলেও যথাযথ ভাবে মানছে না গ্রাহকরা। এছাড়া বেশিরভাগ মানুষই মাস্ক ব্যবহার করছেন না।

বাজারের ব্যবসায়ী এনামূল ভূইয়া জানান- একটি দোকানে ৩-৪জন কাস্টমার থাকা সত্বেও অন্যান্য ক্রেতারা সামাজিক দূরত্বে কথা চিন্তা না করে ওই দোকানেই ঢুকে পড়ছে। অনেক ক্রেতা ও বিক্রেতার মুখে মাস্ক পর্যন্ত থাকে না। কাস্টমার হারানোর ভয়ে কোন বিক্রেতাই মুখ খুলে কিছু বলছে না। ক্রেতাদের মধ্যে যেমন সামাজিক দূরত্বের চিন্তা নেই অপর দিকে ব্যবসায়ীরাও উদাসিন।

বাজারের বণিক সমিতির সভাপতি এরশাদ আলী ভূইয়া জানান- আমরা প্রতিটি সেক্টরের ব্যবসায়ীদের সাথে আলোচনা করে করোনা ভাইরাসের সংক্রামন রোধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের এবং সরকারি নির্দেশ মান্য করার জন্য বলেছি। তারপরও নিয়ন্ত্রণ করা যাচ্ছে না। উপজেলা নির্বাহী অফিসার প্রায়ই মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে জরিমানা আদায় করছে। জনমনে সচেতনতা বৃদ্ধি না হলে নিয়ন্ত্রণ করা কঠিন হবে।

এব্যাপারে চান্দিনা উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) ¯েœহাশীষ দাশ জানান- জনসচেতনা বৃদ্ধিতে আমরা বাজার সহ বিভিন্ন এলাকায় প্রচার-প্রচারণার চালিয়ে যাচ্ছি। পাশাপাশি ব্যবসায়ী নেতাদের সাথেও একাধিকবার আলোচনা করেছি। গত কয়েকদিনে চান্দিনা বাজারেই এক লক্ষাধিক টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে। নিয়ন-নীতি মেনে না চললে আরও কঠোর হতে বাধ্য হবে প্রশাসন।