সোমবার ৩ অগাস্ট ২০২০


ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় কোভিডে আক্রান্ত স্বাস্থ্যকর্মীর মৃত্যু


আমাদের কুমিল্লা .কম :
06.07.2020

তৌহিদুর রহমান নিটল, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।।
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় তথ্য গোপন করে চিকিৎসা নিতে যাওয়া কোভিডে আক্রান্ত সন্ধ্যা রানী (৬০) নামের এক স্বাস্থ্যকর্মীর মৃত্যু হয়েছে। রোববার সকাল সাড়ে সাতটার দিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালের করোনা আইসোলেশন কেন্দ্র ব্রাহ্মণবাড়িয়া নার্সিং ইনস্টিটিউটে নেওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ওই রোগীর মৃত্যু হয়।
সন্ধ্যা রানী নবীনগর উপজেলার শ্যামগ্রামের মৃত সচিন্দ্র সরকারের স্ত্রী। তিনি উপজেলার বড়িকান্দি ইউনিয়নের ধরাভাঙ্গা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্যকর্মী ছিলেন।
পরিবার ও হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, গত শনিবার জেলার বেসরকারি ব্রাহ্মণবাড়িয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পিসিআর ল্যাবে করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা দেন সন্ধ্যা রানী। শনিবারই তাঁর নমুনার ফলাফল পজিটিভ বলে সেখান থেকে জানানো হয়। রোববার সকালে তাঁর বুকে ব্যথা ও শ্বাসকষ্ট বেড়ে যায়। সকাল সোয়া সাতটার দিকে পরিবারের লোকজন তাঁকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যান। কিন্তু পরিবারের লোকজন কোভিডে আক্রান্ত হওয়ার তথ্যটি চিকিৎসকের কাছে গোপন রাখেন। হাসপাতালের জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক সন্ধ্যা রানীকে করোনায় সংক্রমিত সন্দেহে করোনা আইসোলেশন কেন্দ্র ব্রাহ্মণবাড়িয়া নার্সিং ইনস্টিটিউটে পাঠান। সেখান নেওয়ার পরপরই সন্ধ্যা রানীর মৃত্যু হয়। বেলা সাড়ে ১১টার দিকে তাঁর লাশ স্বজনেরা নিয়ে যান।
ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক শওকত হোসেন বলেন, ‘রোগী ও তাঁর স্বজনেরা করোনা আক্রান্তের তথ্য গোপন করেছিলেন। আমাদের তাঁরা জানাননি যে ওই নারী কোভিডে আক্রান্ত ছিলেন। হাসপাতাল থেকে করোনার আইসোলেশন কেন্দ্র নার্সিং ইনস্টিটিউটে নেওয়ার সময় ওই রোগী মারা যান।’ তিনি বলেন, ‘বিষয়টি খুব দুঃখজনক।