শনিবার ১৫ অগাস্ট ২০২০
  • প্রচ্ছদ » sub lead 1 » লাকসামে প্রতিপক্ষের টেঁটাবিদ্ধ হয়ে যুবক নিহত, আহত ১০


লাকসামে প্রতিপক্ষের টেঁটাবিদ্ধ হয়ে যুবক নিহত, আহত ১০


আমাদের কুমিল্লা .কম :
16.07.2020

নাসির উদ্দিন চৌধুরী,লাকসাম।।

লাকসামে সম্পত্তি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে ঘুমন্ত অবস্থায় বাড়িঘরে হামলা ভাংচুর লুটপাট ও টেটার আঘাতে একজন নিহত ও মহিলাসহ অন্তত ১০জন আহত হয়েছে। নিহত মোহাম্মদ হোসেন (৩৬) উপজেলার শ্রীয়াং গ্রামের ছাড়াবাড়ির ইউনুসের ছেলে। বৃহস্পতিবার ভুইয়া ছাড়া বাড়িতে এঘটনা ঘটে। নিহত মোহাম্মদ হোসেনের চাচাতো ভাই সাইফুল বাদী হয়ে ২৬ জনের বিরুদ্ধে বৃহস্পতিবার লাকসাম থানা একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।
মামলার অভিযোগ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সম্পত্তি নিয়ে উপজেলার মুদাফরগঞ্জ দক্ষিণ ইউপির শ্রীয়াং গ্রামে আবু তাহের মরন ও মনির হোসেন মনুর দুই পক্ষের বিরোধ চলে আসছে। এ সম্পত্তি ঘিরে ৪০/৪৫ বছর ধরে দুই পক্ষের মধ্যে চারজন নিহত ও শতাধিক আহত হয়েছে। এ ঘটনা নিয়ে উভয় পক্ষের মালাও একাধিক হয়েছে। উচ্চ আদালতে তাদের মামলা বিচারাধীন অবস্থায় রয়েছে।
স্থানীয়রা আরো অভিযোগ করে বলেন, পূর্বে সুত্রতার জের ধরে বৃহস্পতিবার ভোরে অজ্ঞাত ৩৫/৪০জন ব্যক্তি মনির হোসেন মনুর বাড়িসহ ৫টি বসতবাড়িতে থাকা লোকজন ঘুমান্ত অবস্থায় হামলাকারীরা টেঁটা, বল্লম, চাকুসহ দেশীয় অস্ত্র নিয়ে তাদের বাড়ী ঘরে হামলা ভাংচর, লুটপাট সহ গাছ-পালা কেটে আতংক সৃষ্টি করে। এসময় মোহাম্মদ হোসেন ঘর থেকে বের আসলে তার বুকের মধ্যে টেঁটা বিদ্ধ করে হামলাকারীরা। তার চিৎকারে বাড়ির স্বজনরা এগিয়ে আসলে তাদেরকে পিটিয়ে আহত করে ঘাতকরা পালিয়ে যায়। ঘটনাস্থলেই মোহাম্মদ হোসেনের মৃত্যু হয়। লাকসাম থানা পুলিশ গিয়ে টেঁটাবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।
মামলার বাদী নিহত মোহাম্মদ হোসেনের চাচাতো ভাই সাইফুল জানান, নিহত সম্পত্তির জের ধরে আবু তাহের মনাদের সাথে দ্বন্দ্ব চলে আসছে। আবু তাহের মনার পক্ষে রাশেদ ও সাইফুলসহ কয়েকজন লোক দেশীয় অস্ত্র নিয়ে ভোরে বাড়ীতে হামলা ভাংচুর করে আমার ভাইয়ের বুকের মধ্য টেঁটার আঘাতে হত্যা করে। তাই আমি বাদী হয়ে একই এলাকার শাহজানের ছেলে রাশেদ ও আজিজের ছেলে সাইফুলসহ ২৬জনের বিরুদ্ধে হত্যার অভিযোগ এনে লাকসাম থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছি।
স্থানীয় ওয়ার্ড মেম্বার শহিদ উল্লাহ চৌধুরী বলেন, তাদের এ সমস্যা দীর্ঘ দিনের। একাধিকবার বিভিন্ন উচ্চ মহলের লোকজন এ সমস্যা সমাধানে বসা হলেও তাদের বিরোধ সমাধান সম্ভব হয়নি। একাধিক হামলা মামলা ও হতাহতের ঘটনাও ঘটেছে। ঘুমন্ত অবস্থায় মানুষের উপর আজকের হামলা পূর্ব পরিকল্পিত এবং দুঃখ জনক।
লাকসাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নিজাম উদ্দীন বলেন, নিহত মোহাম্মদ হোসেনের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। ওই এলাকায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের জন্য অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।