শনিবার ৮ অগাস্ট ২০২০


ডিবি পরিচয়ে ব্যবসায়ীর ৫ লাখ টাকা ছিনতাই


আমাদের কুমিল্লা .কম :
23.07.2020

লালমাই প্রতিনিধি।।
ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুমিল্লার পদুয়ার বাজার বিশ্বরোডে ডিবি পুলিশ পরিচয়ে তৈয়ব হোসেন নামে এক ব্যবসায়ীকে তুলে নিয়ে ৫ লক্ষাধিক টাকা ছিনতাই করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। মঙ্গলবার বিকালে এ ঘটনা ঘটেছে।
ব্যবসায়ী তৈয়ব হোসেন কুমিল্লা সদর দক্ষিণ উপজেলার ভাটপাড়া গ্রামের সাবেক ইউপি মেম্বার জাহের আহমেদের ছেলে। দীর্ঘদিন ধরে তিনি ভাটপাড়া রাস্তার মাথায় তৈয়ব ভ্যারাইটিজ স্টোর (বিকাশ ও কনফেকশনারী) নামে একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করে আসছেন।
ভুক্তভোগী ব্যবসায়ী তৈয়ব হোসেন জানান, মঙ্গলবার বিকাল অনুমান ৩টায় পদুয়ার বাজার বিশ্বরোডস্থ অগ্রণী ব্যাংক থেকে ৫ লক্ষ ৯ হাজার ৮শ ৫০ টাকা উত্তোলন করে নামতেই সিলভার কালারের একটি মাইক্রো থেকে ডিবি পুলিশের কটি পরা ৪ জন লোক এসে আমাকে হ্যান্ডকাফ পরিয়ে অস্ত্র ব্যবসায়ী অ্যাখ্যা দিয়ে মাইক্রোতে তুলে নিয়ে যায়। এরপর হ্যান্ডকাফ খুলে গামছা দিয়ে আমার হাত-পা বেঁধে ও মুখে স্কচটেপ লাগিয়ে ব্যাংক থেকে উত্তোলনকৃত টাকা, পকেটে থাকা নগদ ৭ হাজার টাকা ও বিকাশ ব্যবহৃত ২টি মোবাইল ছিনিয়ে নেয়। পরে তারা আমাকে গৌরিপুর এলাকার একটি ডোবায় ফেলে দেয়।
একজন পথচারীর মাধ্যমে জানতে পেরে ইলিয়টগঞ্জ হাইওয়ে পুলিশ আমাকে উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যায়।
ছিনতাইকারীদের বর্ণনা দিতে গিয়ে তৈয়ব আরো বলেন, তাদের মাইক্রোর বাইরে ইংরেজিতে এম.আই অক্ষর দিয়ে কিছু একটা লেখা রয়েছে। ছিনতাইকারীদের হাতে ওয়ারলেস ও পিস্তলও ছিল। মাইক্রোতে চালকসহ ৫জন ছিলেন। ছিনতাইকারীরা আমাকে মাদক ও অস্ত্র ব্যবসায়ী হিসেবে স্বীকারোক্তি দিতে চাপ দিয়েছিল।
ইলিয়টগঞ্জ হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির সার্জেন্ট সাকিল জানান, ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের ইলিয়টগঞ্জ এলাকার পুটিয়ায় একটি ডোবা থেকে মঙ্গলবার বিকাল সাড়ে ৫টায় হাত-পা বাঁধা অবস্থায় তৈয়ব হোসেন নামে একজনকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করি। পরে তৈয়ব হোসেনের পরিবারের সদস্যরা এসে তাকে নিয়ে যায়।
কুমিল্লা সদর দক্ষিণ মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মো: নজরুল ইসলাম জানান, বুধবার সকালে ভুক্তভোগী ব্যবসায়ীর মৌখিক অভিযোগের ভিত্তিতে থানার পরিদর্শক তদন্ত কমল কৃষ্ণ ধর ও সেকেন্ড অফিসার খাদেমুল বাহার ঘটনাস্থল পরিদর্শনে গেছেন। লিখিত অভিযোগ দিলে মামলা নেওয়া হবে। এছাড়া ব্যাংকের সিসি ক্যামরার ফুটেজও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।