বৃহস্পতিবার ১ অক্টোবর ২০২০
  • প্রচ্ছদ » sub lead 1 » তিতাসের ভাইস চেয়ারম্যানের ইয়াবা সেবনের ভিডিও ভাইরাল


তিতাসের ভাইস চেয়ারম্যানের ইয়াবা সেবনের ভিডিও ভাইরাল


আমাদের কুমিল্লা .কম :
12.08.2020

আবু সুফিয়ান রাসেল।।
কুমিল্লার তিতাসে ছাত্রলীগ নেতা ও উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ফরহাদ আহমেদ ফকিরের মাদক সেবনের ছবি ও ভিডিও ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে। এ বিষয়ে সামাজিক মাধ্যমে তৈরি হয়ে বিতর্ক। প্রশ্ন উঠেছে তার উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের অনিয়ম নিয়ে। তবে অভিযুক্ত ফরহাদ আহমেদ ফকির বলছেন, এটি ষড়যন্ত্র।
সূত্র জানায়, ২০১৪ সাল থেকে কুমিল্লা উত্তর জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক হিসাবে দায়িত্ব পালন করেছেন ফরহাদ হোসেন ফকির। গত বছর অক্টোবরে তিনি উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হন।
চান্দিনা উপজেলার সাবেক ছাত্রলীগ সভাপতি নজরুল ইসলাম সুমন এ ছবি ফেসবুকে দিয়ে লিখেছেন, জনাব ফরহাদ আহমেদ ফকির। কুমিল্লা উত্তর জেলা ছাত্রলীগের সেক্রেটারি, তিতাস উপজেলার বিনা ভোটে ভাইস চেয়ারম্যান। সত্য হলে পদত্যাগ করুন। প্রিয় নেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশ মাদককে না বলুন।
ফয়সাল আহমেদ বিপ্লব নামের একজন লিখেছেন, ফকির হয়ে ভাই এখন বাবাদের দলে, যদিও পুরাতন প্লেয়ার। বহু গিরিঙ্গিবাজি করছো মনু। এবার খাও, বেশী করে খাও বাবা।

সাইফুদ্দিন সুজন লিখেছেন, আওয়ামী লীগ সরকার মাদক নির্মূলে ব্যস্ত। সেখানে ছাত্রলীগ নেতার এহেন কা-ের ধিক্কার জানাই। অচিরেই কমিটি বিলুপ্ত করে ছাত্রলীগকে কলংক মুক্ত দেখতে চাই।
উত্তর জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি আবু কাউছার অনিক জানান, মাদক সেবনের ছবিটি ফেসবুকে নজরে পড়েছে। যতটুকু শুনেছি এটি পুরাতন ছবি। এটার সত্য-মিথ্যা আমি বলতে পারি না, কারণ দুইজন তো একসাথে থাকি না। হতে পারে তার বিরুদ্ধে চক্রান্ত। বিষয়টি অলরেডি সেন্ট্রাল ছাত্রলীগের অবজার বেশনে আছে। যদি ঘটনার সত্যতা পাওয়া যায়, ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় ভাবে সিদ্ধান্ত নিবে। এখানে আমার কিছু করার নেই।
তিতাস উপজেলা চেয়ারম্যান মো. পারভেজ হোসেন সরকার বলেন, ছেলে মানুষ, বয়স কম কোন সময়, কোথায় কী করেছে সে ছবি এখন ফেসবুকে গেছে। বিষয়টি আজ (মঙ্গলবার) সকালে ফেসবুকে দেখেছি। স্থানীয় এমপি মহোদয়, ইউএনও মহোদয়ও বিষয়টি অবগত আছেন। আজ জন্মাষ্টমীর বন্ধ, কাল অফিস খোলা হলে বিষয়টি মন্ত্রণালয়কে জানানো হবে। তদন্ত সাপেক্ষে যাচাই বাচাই করা যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। যেহেতু সে ছাত্রলীগের কমিটিতে আছে, আবার জনপ্রতিনিধি, এটা চক্রান্তও হতে পারে। অনেকে ছবি এডিট করে মাথা লাগিয়ে ফেসবুকে দেয়, এমনও হতো পারে। যেটাই হোক তদন্ত করে, যা করার মন্ত্রণালয় করবে।
এ বিষয়ে অভিযুক্ত ছাত্রলীগ নেতা ও তিতাস উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ফরহাদ আহমেদ ফকির বলেন, এটি আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র। উপজেলায় আমার এন্টি পাটি আছে, হয়তো তারা এ কাজ করেছে। বিষয়টি মিথ্যা, যারা ফেসবুকে লিখেছে, ডিলিট করার ব্যবস্থা করতেছি। তিনি নিউজটি না করারও অনুরোধ জানান।