শনিবার ২৪ অক্টোবর ২০২০


নগরীর মনোহরপুরে স্টুডিওর আড়ালে পাসপোর্টের দালালী


আমাদের কুমিল্লা .কম :
14.10.2020

স্টাফ রিপোর্টার।।
কুমিল্লা নগরীর মনোহরপুরে একটি স্টুডিও থেকে ২৮৬টি পাসপোর্ট, আবেদন ও নকল সিলমোহরসহ দালালচক্রের এক সদস্যকে আটক করেছে র‌্যাব।
বুধবার দুপুরে মনোহরপুর ফাইন স্টুডিওতে অভিযান চালিয়ে এসব পাসপোর্ট জব্দ করে র‌্যাব ১১ সিপিসি ২। এসময় স্টুডিওটির মালিক ও পাসপোর্ট দালাল চক্রের অন্যতম হোতা মোহাম্মদ আতি খানকে(৩৫) আটক করে র‌্যাব। আতিক কোতয়ালী থানার মনোহরপুর এলাকার আব্দুল মতিন খাঁনের ছেলে। স্টুডিওতে তল্লাসি চালিয়ে ২১১টি নতুন পাসপোর্ট, ৭৫টি পুরনো মেয়াদোত্তীর্ণ পাসপোর্ট, বিপুল পরিমাণ পাসপোর্টের আবেদন ফরম, বিভিন্ন সরকারি কর্মকর্তার পদবীসহ নকল সিলমোহর উদ্ধার করে র‌্যাব।
র‌্যাব ১১ সিপিসি ২ এর অধিনায়ক মেজর নাজমুস সাকিব জানান, ফটো স্টুডিওর আড়ালে মোঃ আতিক দীর্ঘদিন ধরে পাসপোর্টের দালালী ব্যবসা করে আসছে। এই চক্রের অন্য সদস্যদের আইনের আওতায় আনতে অভিযান অব্যাহত থাকবে।
এদিকে পাসপোর্ট অফিস নোয়াপাড়া এলাকা থেকে একই দিন কুমিল্লা জেলার কোতয়ালী থানার নোয়াপাড়া গ্রামের লাল মিয়া মেম্বারের ছেলে মোঃ ইকবাল হোসেন (৫০), কুমিল্লা র বুড়িচং থানার গণেশপুর গ্রামের আফিল উদ্দিনের ছেলে মোঃ আবুল কালাম আজাদ (৪৮) ও কুমিল্লা জেলার কোতয়ালি থানার নোয়াপাড়া গ্রামের মোসলেম উদ্দিনের ছেলে কাজী মিনহাজ উদ্দিন মিনুকে (৩০) আটক করা হয়। এসময়ে আসামিদের থেকে মোট ৪৩৬টি পাসপোর্ট, নগদ এক লক্ষ চুয়াল্লিশ হাজার টাকা এবং পাসপোর্ট তৈরির বিপুল পরিমাণ কাগজপত্র উদ্ধার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ ও অনুসন্ধানে গ্রেফতারকৃত আসামিরা সকলেই পাসপোর্ট দালাল চক্রের সক্রিয় সদস্য বলে স্বীকার করে। তারা দীর্ঘদিন যাবৎ পাসপোর্ট তৈরি করে দেওয়ার নাম করে ভূক্তভোগী লোকজনের নিকট থেকে বিপুল পরিমাণ টাকা হাতিয়ে নিয়ে আসছিল। তাদের কাছে টাকা জমা দিলে তারা নকল সীলমোহর ব্যবহার করে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র প্রস্তুত করে সকল কার্যক্রম সম্পন্ন করে পাসপোর্ট অফিস থেকে পাসপোর্ট সংগ্রহ করে সরবরাহ করে আসছিল। আসামিদের বিরুদ্ধে কুমিল্লা জেলার কোতয়ালী থানায় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।