শনিবার ২৪ অক্টোবর ২০২০


কুমিল্লায় প্রক্রিয়া অনুসরণ না করায় গাছ আটকে মামলা


আমাদের কুমিল্লা .কম :
18.10.2020

স্টাফ রিপোর্টার।।
কুমিল্লা সদর উপজেলা কার্যালয়ের সামনের কাটা গাছ আটক করেছে বন বিভাগ। আইনগত প্রক্রিয়া অনুসরণ না করায় এ গাছ আটক করে এনিয়ে আদালতে বৃহস্পতিবার মামলা দায়ের করা হয়েছে বলে দাবি বন বিভাগের।
রোববার আদর্শ সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা জাকিয়া আফরিন বলেন,তার কার্যালয়ের সামনের সড়কের পাশের কিছু গাছ নিয়ে লিখিত আবেদন পান। আবেদনে বলা হয়,গাছ গুলো ঝুঁিকপূর্ণ হয়ে পড়েছে। ডাল ভেঙে পথচারীদের ওপর পড়ে। তাই ফরেস্টারকে এবিষয়ে মতামত দিতে চিঠি দেই। তিনি জানিয়েছেন,গাছগুলো সড়ক ও জনপদ বিভাগের। পরবর্তীতে সড়ক ও জনপদ বিভাগকে এবিষয়ে ব্যবস্থা নিতে বলি। তারা টেন্ডারে গাছ বিক্রি করে। তারা সম্ভবত জেলা পরিবেশ ও বন উন্নয়ন কমিটির অনুমোদন নেয়নি। কাগজপত্র দেখে,সবার কথা শুনে বিস্তারিত বলতে পারবো।
গাছের ক্রেতা মামুনুর রহমান বলেন,সাতটি গাছের টেন্ডার পেয়েছেন কাউসার খন্দকার নামের এক ব্যক্তি। তার থেকে তিনি গাছ গুলো ক্রয় করেন। গাছ কাটার প্রথম থেকে বন বিভাগ বাধা দেয়নি। কয়েকটি গাছ কাটার পর ট্রাক্টরসহ নিয়ে গেছে। শুনেছি বন বিভাগ মামলা দিয়েছে।
কুমিল্লা সড়ক ও জনপদ বিভাগের বৃক্ষপালন উপ-বিভাগের সহকারী বৃক্ষপালনবিদ মো.আবদুর রহমান বলেন,আমরা যথাযথ প্রক্রিয়া অনুসরণের মাধ্যমে টেন্ডারে গাছ বিক্রি করেছি। বন বিভাগ শুধু শুধু বিষয়টি নিয়ে বাড়াবাড়ি করছে। তিনি অসুস্থ তাই বাসায় আছেন। তিনি প্রতিবেদককে অফিসে গিয়ে কাগজপত্র দেখার আহবান জানান।
কুমিল্লা সামাজিক বন বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা কাজী মুহাম্মদ নূরুল করিম জানান,গাছ সড়ক বিভাগের। তবে গাছ কাটতে হলে উপজেলা ও জেলা পরিবেশ ও বন উন্নয়ন কমিটির সভার অনুমোদন নিতে হবে। তারা সেই প্রক্রিয়া অনুসরণ করেননি। তাই গাছ আটক করে এনিয়ে বৃহস্পতিবার আদালতে মামলা দায়ের করা হয়েছে।