বুধবার ২৫ নভেম্বর ২০২০


চান্দিনায় তুচ্ছ ঘটনায় বাড়ি-ঘর ভাঙচুর


আমাদের কুমিল্লা .কম :
08.11.2020

স্টাফ রিপোর্টার।
কুমিল্লার চান্দিনায় তুচ্ছ ঘটনায় নিজাম উদ্দিন ভূইয়া নামের এক ব্যক্তির বাড়িতে হামলা করে বাড়ি-ঘর ভাঙচুর করেছে দুর্বৃত্তরা।
শুক্রবার (৬ নভেম্বর) দুপুর উপজেলার বাড়েরা ইউনিয়নের চিলোড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এসময় ভুক্তভোগী পরিবারের সদস্যরা আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর জরুরি সেবা ৯৯৯ নম্বরে ফোনে করে পুলিশের সহযোগিতা নেয়। চান্দিনা থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে এবং আহতদের হাসপাতালে পাঠান।
আহতরা হলো- কুমিল্লার চান্দিনা উপজেলার চিলোড়া গ্রামের নিজাম উদ্দিন ভূইয়ার স্ত্রী সালেহা বেগম (৪৫), ছেলে নাজমুল আহসান ভূইয়া (২৫) ও পুত্রবধু খাদিজা আক্তার (১৮)।
নিজাম উদ্দিন ভূইয়া জানান- গত শুক্রবার দুপুরে রিকশা ভ্যান যোগে পাশ্ববর্তী সেলিম ভূইয়ার বাড়ি নির্মাণ কাজের জন্য রড নিয়ে যাওয়ার সময় ওই ভ্যান চালক আমার বাড়ির সীমানা বেড়া ভেঙে ফেলে। এই বিষয়ে প্রতিবাদ করায় ভ্যান চালক তার লোকজন নিয়ে আমার স্ত্রী, ছেলে ও পুত্রবধূর ওপর হামলা করে। পরে সেলিম ভূইয়ার লোকজন এসে আমাদের বাড়ি ঘর ভাঙচুর করে এবং লুটপাট করে। এতে আমার নগদ টাকা, স্বর্ণালংকার লুটে নেয়। পরে পুলিশ গিয়ে আমার পরিবারকে উদ্ধার করে নিয়ে আসলে আহতদের কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করাই। এ ঘটনায় আমি মামলা দায়ের করার প্রস্তুতি নিচ্ছি।
সেলিম ভূইয়া জানান, ভ্যান চালক রড নিয়ে যাওয়ার সময় রাস্তার পাশের টিনের সীমানা বেড়ায় রডের খোঁচা লাগে। এতে নিজাম উদ্দিনের ছেলে নাজমুল আহসান নাঈম ওই ভ্যান চালককে মারধর করে। এ ঘটনার পর ভ্যান চালকের পক্ষ নিয়ে এলাকার বেশ কিছু লোকজন জড়ো হয় এবং হান্নান ভূইয়া নামের এক ব্যক্তি এগিয়ে গেলে তাকে ছুরিকাঘাত করে। এসময় উত্তেজিত জনতা ওই বাড়িতে ইট-পাটকেল ছুড়ে। খবর পেয়ে আমি ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করি।
চান্দিনা থানার সহকারি উপ-পরিদর্শক (এএসআই) জেকসন জানান- ৯৯৯ নম্বরে ফোন করার পর আমাদের ওসি সাহেব আমাকে ঘটনাস্থলে পাঠান। আমি গিয়ে শতাধিক লোকজনের সমাগম দেখি। তাদের মধ্যে উৎসুক জনতাই বেশি। আমরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে নিজাম উদ্দিনের একটি ঘর ভাঙচুর দেখেছি। তাদেরকে থানায় এসে অভিযোগ করার জন্য পরামর্শ দিয়েছি।
চান্দিনা থানার অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) শামসউদ্দীন মোহাম্মদ ইলিয়াছ জানান- রডের ধাক্কায় টিনের বেড়া খোলাকে কেন্দ্র করে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় দুই পক্ষের মধ্যে মারামারি হয়েছে। নিজাম উদ্দিন এর পরিবারের কয়েকজন আহত হয়েছে। অপর দিকে প্রতিপক্ষের একজন গুরুতর আহত হওয়ায তারা একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। কিন্তু নিজাম উদ্দিন ভূইয়ার পরিবারের কেউ অভিযোগ করতে থানায় আসেনি।