সোমবার ৩০ নভেম্বর ২০২০


বাজারে পর্যাপ্ত সবজি থাকলেও দাম তেমন কমছে না


আমাদের কুমিল্লা .কম :
19.11.2020

আবদুল্লাহ আল মারুফ।।
কুমিল্লার সবজি বাজারে শীতকালীন নতুন সবজি আসতে শুরু করেছে। বাজারে বর্তমানে পর্যাপ্ত সবজি থাকলেও দাম তেমন একটা কমছে না। প্রতিদিনই সবজির দামে উঠা নামা করছে। দাম তেমন না কমায় ক্রেতারা সবজি আগের তুলনায় কম কিনছে বলে জানিয়েছে বিক্রেতারা। কিছু সবজির দাম কমেছে আবার কিছু সবজির দাম বেড়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার কুমিল্লা মহানগরীর বিভিন্ন বাজার ঘুরে এ চিত্র ফুটে উঠেছে দৈনিক আমাদের কুমিল্লার অনুসন্ধ্যানে।
বাজার ঘুরে দেখা যায়, কুমিল্লার বাজারে কিছু সবজিতে ৫ থেকে ৮ টাকা কমেছে। আবার কিছু সবজিতে ১০ টাকাও বেড়েছে। তাই এখনও পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে আসেনি সবজির দামে। দাম কমলেও এখনো ৪০ থেকে ৪৫ এর ঘরে সকল সবজি। বাড়তি এই দাম কবে নাগাদ কমবে তা এখনও নগরবাসীর কাছে ধোয়াশার চাঁদরে মোড়ানো। বাড়তি দামের কারণে সবজির চাহিদা কমিয়ে দিয়েছেন অনেক পরিবার।
টমছম ব্রিজ বাজারের ব্যবসায়ী হারেস মিয়া জানান, পর্যাপ্ত সবজি থাকলেও ক্রেতার তেমন চাপ নেই। যারা আসছে তারাও অল্প পরিমাণে সবজি নিয়েই সন্তুষ্ট থাকছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার কুমিল্লার রাণীর বাজার, চক বাজার, রাজগঞ্জ বাজার, টমছম ব্রিজ বাজার ঘুরে দেখা যায় দুয়েক প্রকারের সবজির দাম কমেছে ৫ থেকে ৮ টাকা পর্যন্ত । আবার বাকি সব প্রকারের সবজিতেই বেড়েছে ১০ টাকা পর্যন্ত। ব্যবসায়ীরা বলছেন একদিনের ব্যবধানেই সবজির দাম অনেক বেড়ে যায়, আবার কমেও যায়।
পটল-গত সপ্তাহে ছিল পটল ৫০ টাকা কিন্তু এখন বিক্রি হচ্ছে ৪৫ টাকা। কচুর ছড়া, লতি, কচুর কাঠ সবগুলোতেই কমেছে ৫-৮ টাকা করে। লাউ ও কুমড়ার প্রতি পিস গত সপ্তাহের তুলনায় ১০ টাকা কম দরে বিক্রি হচ্ছে। প্রতি আঁটি পুই শাকের দাম গত সপ্তাহে ছিল ৩০ টাকা এই সপ্তাহে ২৫ টাকা। ১০ টাকা বাড়তি দামে বিক্রি হচ্ছে বেগুন। ঢেঁড়স ৬৫ টাকা থেকে এখন ৭০ টাকা। টমেটো ১০ টাকা কমলেও ১০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। শশা এই সপ্তাহে ৭০ টাকা আর গত সপ্তাহে ছিল ৬০ টাকা। সিমের দাম একই আছে ৬০ টাকা। আর বরবটি ৬০ টাকা যা গত সপ্তাহে ৭০ টাকায় বিক্রি হয়েছিল। মূলা ৪০ টাকা যা গত সপ্তাহে ছিল ৫০ টাকা। ফুল কফি প্রতি পিস ৪০ টাকা গত সপ্তাহে ছিল ৫০ টাকা। করলা বিক্রি হচ্ছে ৫০ টাকা গত সপ্তাহে ছিল ৪০ টাকা। লাউ ৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে যা ছিল ৭০ টাকা। গাজর ১২০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে যা ছিল ৮০ টাকা। কাচা মরিচ মাত্র একদিনেই ২০ টাকা বেড়ে এখন ১৬০ টাকা বিক্রি হচ্ছে।
বাদশামিয়ার বাজারের ব্যবসায়ী শাহজালাল জানান, আগের তুলনায় সবজি বেশি আছে কিন্তু কাস্টমার নেই। দাম সিমিত পরিমানে কমেছে৷ আশাকরি ২ সপ্তাহে উৎপাদন বাড়লেই আরও কমে যাবে। আমরা যে দামে কিনি সে অনুসারে বিক্রি করতে হয়। আমরাও বিপাকের মধ্যে আছি। সবজি পাই না। আবার সবজি পেলে কাস্টমার পাইনা।