রবিবার ১৭ জানুয়ারী ২০২১


দেবিদ্বার ও ব্রাহ্মণপাড়ায় বেড়েছে গরু চুরি


আমাদের কুমিল্লা .কম :
01.12.2020

মোহাম্মদ শরীফ।।
কুমিল্লার দেবিদ্বার ও ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলায় গরু চুরির হিড়িক পড়েছে। দেবিদ্বারের মুগসাইর গ্রামের অবসরপ্রাপ্ত পুলিশ কর্মকর্তা তাজুল ইসলাম। পেনশনের টাকায় গরু কিনে পালন করেন। গত সপ্তাহে সকালে গোয়াল থেকে গরু বের করতে গিয়ে দেখেন গোয়াল থেকে সব গুলো গরু উধাও! তার বড় জাতের চারটি গরু নেই গোয়ালে। একই ঘটনা ঘটেছে প্রবাস ফেরত স্বপনের। প্রবাস জীবনের সঞ্চয়ের টাকায় কেনা তার গরু দু’টি গোয়াল থেকে উধাও। শনিবার ফতেহাবাদ গ্রামের খলিল মিয়ার গোয়াল থেকে উধাও দুই গরু। পশ্চিম পোমকাড়া গ্রামের আবদুর রশিদের গোয়াল থেকে দুইটি গরু উধাও হয়ে গেছে গত শুক্রবার! এমন গোয়াল থেকে গরু উধাও হওয়ার ঘটনা বেড়েই চলছে দেবিদ্বারের মুগসাইর, ফতেহাবাদ, সুবিল, পশ্চিম পোমকাড়া, বাহ্মণপাড়া উপজেলার বেড়াখলা, পোমকাড়া, শিদলাইসহ আশেপাশের গ্রামে। কথা হয় গরুর মালিকদের সাথে। তারা জানান, তাদের গরু গুলো এমন নিখুঁত ভাবে চুরি করে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে, মনে হতে পারে গোয়াল থেকে গরু হাওয়া হয়ে যাচ্ছে। একের পর এক এমন গরু চুরির ঘটনায় আতঙ্ক বেড়েছে গ্রাম সমূহে।
এগার গ্রামের আবু জাহের জানান, ‘ইদানিং গ্রাম সমূহে চুরি বেড়ে গেছে। শুক্রবার বাজারের একটি দোকান থেকে ৫০ হাজার টাকা চুরি করে নিয়ে গেছে’।
খোঁজ নিয়ে জানা যায়, মাদক ও জুয়ার প্রভাব বেড়ে যাওয়ায় চুরি বেড়েছে। মাদকে আসক্ত ও জুয়ায় ফতুর হওয়া মানুষ গুলো আয়ের উৎস হিসেবে চুরি বেছে নিয়েছে। গ্রাম গুলো দুই উপজেলা থেকে যোগাযোগ ব্যবস্থা নিম্ন মানের হওয়ায়, এখানে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর তৎপরতা তেমন লক্ষ্যণীয় নয়। এটিই চুরি বৃদ্ধির অন্যতম কারণ বলে মনে করেন অনেকে।
দেবিদ্বার উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা রাকিব হাসান জানান, গরুর বিষয়টি জেনেছি। শীঘ্রই ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।