শনিবার ২৩ জানুয়ারী ২০২১


কুমিল্লায় ৭ জয়িতাকে সম্বর্ধনা


আমাদের কুমিল্লা .কম :
09.12.2020

মাহফুজ নান্টু, কুমিল্লা।

আন্তজার্তিক নারী নিযার্তন প্রতিরোধ

পক্ষ ও বেগম রোকেয়া দিবস উপলক্ষে ৭ জন নারী জয়িতা পুরস্কারে ভূষিত
করা হয়। বেলা ১২ টায় কুমিল্লা জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে জেলা
প্রশাসক মোঃ আবুল ফজল মীর জয়িতাদের হাতে সম্মানা স্মারক ও সনদ
তুলে দেন।
জেলা মহিলা বিষয়ক কার্যালয়ের উদ্যোগে আয়োজিত অনুষ্ঠানে যারা
সংবর্ধিত হলেন জেলা ও উপজেলা পযার্য়ে অর্থনৈতিকভাবে সাফল্য
অর্জনকারী নাসিমা আক্তার, শিক্ষা ও কর্ম ক্ষেত্রে সাফল্য অর্জণকারী
মোসাঃ আলেয়া বেগম, সফল জননী নারী কুলছুম আক্তার, নিযার্তনের
বিভিষিকা মুছে নতুন উদ্যমে জীবন শুরু করে সফল হওয়া তাসলিমা
আশরাফ, জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে সমাজ উন্নয়নে অবদান রাখায়
তাহসিন বাহার সূচনা, উপজেলা পযার্য়ে শিক্ষা ও কর্মক্ষেত্রে সাফল্য
অর্জন করায় ফারহানা দিবা ও সফল জননী জাহানারা বেগম।
নারী জয়িতার পুরস্কার পাওয়ার অনুভূতি ব্যক্ত করেছেন কুমিল্লা জেলা ও
উপ জেলা পর্যায়ে সমাজ উন্নয়নে অসামান্য অবদান রাখা
স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক তাহসিন
বাহার সূচনা।

তিনি বলেন , নিশ্চয়ই স্বীকৃতি কাজের উৎসাহ
বাড়ায়। আজকের এই অর্জণের পেছনে তার বাবা বীরমুক্তিযােদ্ধা
আ.ক.ম বাহাউদ্দিন বাহার ও স্বামী সাইফুল আলম রনি ও পরিবারের
অবদান অনস্বীকার্য।

পাশাপাশি জাগ্রত মানবিকতা সংগঠনের যে সকল স্বেচ্ছাসেবী রয়েছেন ওইসব ভাই বোনদের অবদান সবচেয়ে বেশী। একটি সুন্দর সমাজ বিনির্মানে তাদের যে ত্যাগ ও মানুষকে সেবা দেয়ার যে মানসিকতা তা অনন্য। আমার এমন সম্মাননার নেপথ্যের শক্তি ওই সব স্বেচ্ছাসেবী ভাই বোনেরা।

সর্বোপরি কুমিল্লার সর্বস্তরের মানুষের
সহযোগিতাই আজ এমন সম্মাননার নেপথ্য ভূমিকা রেখেছে। এই
স্বীকৃতিটা ভবিষ্যতে আরো বিস্তৃত পরিসরে কাজ করার দায়বদ্ধতা
সৃষ্টি করলো। সবশেষে তাহসিন বাহার সূচনা তার এই সম্মাননাকে
সকল সংগ্রামী নারীদের প্রতি উৎসর্গ করেন।
অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোঃ
নুরুজ্জামান। আলোচনায় অংশ নেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আজিমুল
আহসান, নারী নেত্রী পাপড়ী বসু। অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত
ছিলেন সদর উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা আফরিন, সদর
উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান এড. হোসনেয়ারা বকুলসহ অন্যান্যরা।