শনিবার ২৩ জানুয়ারী ২০২১


পুরোনোতে ভরসা লাকসামে চৌদ্দগ্রাম-বরুড়ায় নতুন মুখ


আমাদের কুমিল্লা .কম :
28.12.2020

নাসির উদ্দিন চৌধুরী, আবুল বাশার রানা ও বিল্লাল হোসেন।।
৩০জানুয়ারি ৩য় দফায় কুমিল্লায় অনুষ্ঠিত হবে তিন পৌরসভার নির্বাচন। নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী চূড়ান্ত করা হয়েছে। লাকসামে বর্তমান মেয়রকে পুনরায় নৌকার নৌকার টিকিট দেওয়া হয়েছে। চৌদ্দগ্রাম ও বরুড়া পৌরসভায় আওয়ামী লীগের মনোনয়নে এসেছে পরিবর্তন। এ দুই উপজেলায় নৌকার টিকিট পেয়েছেন নতুন দুই মুখ। শনিবার বিকেলে আ’লীগের স্থানীয় সরকার জনপ্রতিনিধি মনোনয়ন বোর্ড সভায় এসব প্রার্থী চূড়ান্ত করা হয়।
বরুড়া পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে আ’লীগের দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মো. বকতার হোসেন বখতিয়ার। দলীয় মনোনয়ন পাওয়ায় বাংলাদেশ আ’লীগের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা এবং বরুড়া উপজেলা আ’লীগের সভাপতি কুমিল্লা-৮ আসনের এমপি নাছিমুল আলম চৌধুরী নজরুলের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন এই প্রার্থী। আল্লাহর রহমত ও সকলের সহযোগিতায় এবার মেয়র নির্বাচিত হবেন বলে আশাবাদী মো. বকতার হোসেন। তিনি জানান, নির্বাচিত হলে বরুড়া পৌরসভাকে একটি মডেল পৌরসভায় রূপান্তরিত করবেন। তিনি সকল নেতাকর্মী ও পৌরবাসীর সার্বিক সহযোগিতা ও দোয়া কামনা করছেন। গত শনিবার রাতে দলীয় নৌকা প্রতীক পাওয়ার খবরটি ছড়িয়ে পড়লে তার সমর্থিত নেতাকর্মীরা বরুড়া পৌর সদর বাজারে ব্যবসায়ী ও জনসাধারণের মাঝে মিষ্টি বিতরণ করেন।

চৌদ্দগ্রামে আওয়ামী লীগের চূড়ান্ত মনোনয়ন পেয়েছেন জিএম মীর হোসেন মীরু। তিনি উপজেলা আ’লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি। দলীয় সূত্র জানায়, মেয়র পদে দলীয় প্রার্থীতা পেতে উপজেলা আ’লীগের জুরি বোর্ডের কাছে ১০ জন প্রার্থী আবেদন করেন। এর মধ্যে পরিবর্তনের লক্ষে অধিকাংশ প্রার্থী বর্তমান মেয়র মিজানুর রহমানের বিপক্ষে অবস্থান করেন। এরপর তৃণমূলের ভোটাভুটি শেষে মেয়র মিজানুর রহমান ছাড়া তিনজনের নাম দলীয় হাইকমান্ডের কাছে পাঠানো হয়। কিন্তু মেয়র মিজানুর রহমান আ’লীগের দলীয় মনোনয়ন ফরম জমা দিয়েছিলেন। সর্বশেষ শনিবারই দলীয় চূড়ান্ত সিদ্ধান্তের মাধ্যমে নৌকার মনোনয়ন পান জিএম মীর হোসেন মীরু। তিনি উপজেলা আ’লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি ছাড়াও বিভিন্ন শিক্ষা ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান পরিচালনা কমিটির সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। চুড়ান্তভাবে জিএম মীর হোসেন মীরুকে নৌকার মনোনয়ন দেয়ায় আ’লীগের সভাপতি শেখ হাসিনা, সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের, সাবেক রেলপথ মন্ত্রী মুজিবুল হক এমপিকে অভিনন্দন জানিয়েছেন পৌরবাসী। অপরদিকে জিএম মীর হোসেন মীরু নৌকার মনোনয়ন পাওয়ার খবর শুনে গত শনিবার রাতে চৌদ্দগ্রাম বাজারস্থ মুজিবুল হক এমপির কার্যালয়ে বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী আনন্দ উল্লাস করতে দেখা গেছে। এ সময় জিএম মীর হোসেন মীরুসহ অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন পৌরসভা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন পাটোয়ারী, পৌর যুবলীগের সভাপতি সাইফুল ইসলাম পাটোয়ারী, সাধারণ সম্পাদক ফারুক আহমেদ খাঁ শামীমসহ বিভিন্ন পর্যায়ের আ’লীগ, যুবলীগ, শ্রমিকলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ ও ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ।

এদিকে, লাকসাম পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের একক প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন পেয়েছেন বর্তমান মেয়র ও উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক অধ্যাপক মো. আবুল খায়ের। অধ্যাপক মো. আবুল খায়ের ২০১৫ সালের ২৮ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত নির্বাচনেও আওয়ামী লীগের একক প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন পেয়েছিলেন। ওই নির্বাচনে বিপুল ভোটের ব্যবধানে মেয়র নির্বাচিত হয়ে ব্যাপক উন্নয়ন ও নাগরিক সুবিধা নিশ্চিতে নিরলস কাজ করেন।
লাকসাম পৌরসভাকে স্মার্ট সিটিতে রূপান্তরের লক্ষ্যে বর্তমানে বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়নাধীন রয়েছে। লাকসাম পৌর নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন লাভের পর তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় অধ্যাপক মো. আবুল খায়ের বলেন, আমাকে দলীয় প্রার্থী হিসেবে পুনরায় মনোনয়ন দেয়ায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও এলজিআরডি মন্ত্রীর নিকট কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। এলজিআরডি মন্ত্রীর আন্তরিকতায় বিগত ৫ বছরে লাকসাম পৌরসভায় রেকর্ড পরিমাণ উন্নয়ন হয়েছে। উন্নয়নের এ ধারাবাহিকতা অব্যাহত রাখতে পৌরবাসী আমাকে পুনরায় নির্বাচিত করবে বলে আমি মনে-প্রাণে বিশ্বাস করি।