শনিবার ২৩ জানুয়ারী ২০২১
  • প্রচ্ছদ » sub lead 2 » চৌদ্দগ্রামের সলাকান্দি জিসি উচ্চবিদ্যালয় চার শিক্ষকের বিদায়ী সংবর্ধনা


চৌদ্দগ্রামের সলাকান্দি জিসি উচ্চবিদ্যালয় চার শিক্ষকের বিদায়ী সংবর্ধনা


আমাদের কুমিল্লা .কম :
09.01.2021

স্টাফ রিপোর্টার
তাঁরা কেউ অবসর নিয়েছেন এক দশক আগে। কেউ তারও আগে-পরে। এমন চার গুণী শিক্ষককে খুঁজে বের সংবর্ধনার আয়োজন করেছেন কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার ঘোলপাশা ইউনিয়নের সলাকান্দি জিসি উচ্চবিদ্যালয়ের প্রাক্তন শিক্ষার্থীরা। গতকাল শনিবার বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ঘটা করে চার শিক্ষককে সংবর্ধনা দেওয়া হয়। তাঁরা হলেন বিদ্যালয়ের সাবেক প্রধান শিক্ষক সুখময় রঞ্জন দেব, জ্যেষ্ঠ সহকারী শিক্ষক জসিম উদ্দিন, শাহ আলম ও শাহজাহান। তাঁদের ক্রেস্ট, নানা ধরনের উপহার ও ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয়।
এ উপলক্ষে দুপুর ১২ টায় বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটির বর্তমান সভাপতি ও কুমিল্লা কর অফিসের উপ-কর কমিশনার(ইনচার্জ) মনির আহমদের সভাপতিত্বে ওই অনুষ্ঠান হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন সিলেট জেলা পুলিশ সুপার ফরিদ উদ্দিন আহমেদ। বিশেষ অতিথি ছিলেন ঘোলপাশা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কাজী জাফর আহমদ, মুন্সীরহাট ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মাহফুজ আলম, ডাক ও টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রনালয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ফয়সাল বিন করিম, চৌদ্দগ্রাম উপজেলা আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক এডভোকেট খোরশেদ আলম, বিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্র তরুন শিল্পপতি আবদুল মতিন, ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি মাসুম বিল্লাহ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি এডভোকেট জুলফু মিয়া, বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটির সাবেক সহসভাপতি মো. রমিজ উদ্দিন, বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটির অভিভাবক সদস্য নজরুল ইসলাম, এ কে খোকন, মো. মাসুম, সংরক্ষিত মহিলা সদস্য জোসনা বেগম, অভিভাবক সদস্য মুক্তিযোদ্ধা সামছুল হক, কোপট সদস্য বি এম জাহাঙ্গীর। প্রধান বক্তা ছিলেন বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটির সাবেক সভাপতি আবদুল হামিদ তালুকদার। শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন প্রধান শিক্ষক মোবারক হোসেন । অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন বিদ্যালয়ের জ্যেষ্ঠ সহকারী শিক্ষক আইয়ুব আলী ও হিরš§য় চন্দ্র দে।
বিদ্যালয়ের প্রাক্তন কৃতী শিক্ষার্থী ও প্রধান অতিথি সিলেট জেলা পুলিশ সুপার ফরিদ উদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘বিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্ররা মিলে আমরা এই আয়োজন করেছি। অবসর নেওয়া শিক্ষকেরা আমাদের দেশের জন্য তৈরি করেছেন। আমরা তাঁদের আদর্শ নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছি। তাঁদের সংবর্ধনা দিতে পেরে আমরা ধন্য।’
বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি ও প্রাক্তন শিক্ষার্থী মনির আহমদ বলেন, ‘ শৈশবে, কৈশরে এই শিক্ষকেরা আমাদের পড়াশোনা করিয়েছেন। তাঁদের ঘটা করে সংবর্ধনা দিতে পেরে গর্বিত আমরা।’