সোমবার ৮ gvP© ২০২১


বরুড়ায় রাতের আঁধারে নাইট গার্ড খুন!


আমাদের কুমিল্লা .কম :
22.01.2021

স্টাফ রিপোর্টার।।
কুমিল্লার বরুড়ার লক্ষীপুর ইউনিয়নে রাতের আঁধারে এক গার্ডকে খুনের অভিযোগ উঠেছে। খুন হওয়া ঐ ব্যাক্তি এলাকার নলুয়া চাঁদপুর গ্রামের দোকানি বাড়ির আবুল হাশেম (৬০)।
স্থানীয় সূত্রে জানায়, নিহত আবুল হাশেম এলাকার নলুয়া চাঁদপুর বাস স্ট্যান্ডে বহুদিন যাবত নাইট গার্ডের কাজ করে আসছিলেন। কিছু দিন আগে এলাকার বাবুল মিয়া (৫০) নামের এক ব্যাক্তির সাথে হাশেমের কথা কাটাকাটি হয়। বাবুল মিয়া বহুবার আবুল হাশেমকে হুমকি ধুমকি দেয়। সর্বশেষ গত ২২ জানুয়ারি রাত প্রায় ২ টার দিকে বাবুল মিয়া বাসস্ট্যান্ডে আসেন। এত রাতে বাস স্ট্যান্ডে আসার কারণ জানতে চাইলে বাবুল মিয়া নাইট গার্ড আবুল হাশেমের উপর ক্ষিপ্ত হয়ে যান। এক পর্যায়ে বাবুল মিয়া আবুল হাশেমের মাথায় আঘাত করলে আবুল হাশেম মারা যায়।

আবুল হাশেমের সহযোগী সরুজ মিয়ার ছেলে জানান, ঘটনার পর থেকে আমার বাবা ষ্টোকের মত পড়ে আছে। এখন উনি ভালো করে কথা বলতে পারেন না। আমার বাবা বলেছেন, বাবুল মিয়া আবুল হাশেম কাকা ও আমার বাবার সাথে বাকবিতন্ডায় জড়িয়ে পড়ে। এক পর্যায়ে, বাবুল মিয়া আবুল হাশেম কাকার বুকে ঘুষি মারলে তিনি মরে যামু, মরে যামু বলে মাটিতে পড়ে যান। তারপর আমার বাবা বাজার কমিটির সভাপতি জাবেদ হোসেনকে জানায়। জাবেদ হোসেন আসতে আসতে হাশেম কাকা মারা যায়।
মৃত আবুল হাশেমের স্ত্রী মালেকা বানু জানান, আমি মামলা করতে যাচ্ছি। আমি দেশ ও দশের কাছে আমার স্বামী হত্যা বিচার চাই। আমার ছেলে-মেয়েরে যে এতিম করল। তার বিচার আমি প্রধানমন্ত্রীর কাছে চাই।
বরুড়া থানা অফিসার ইনচার্জ ইকবাল বাহার মজুমদার জানান, নলুয়া চাঁদপুর বাজারের নাইট গার্ড আবুল হাশেম ও তার সহযোগী রাত আনুমানিক ১২টার দিকে বাজারে আগুন পোহাচ্ছিলেন। তখন বাজারে পাশের বাড়ির বাবুল মিয়াকে বাজারে দেখেন নাইট গার্ড আবুল হাশেম। এক পর্যায়ে তারা বাকবিতন্ডায় জড়িয়ে পড়েন। পরে হঠাৎ আবুল হাশেম মাটিতে পড়ে যান বলে আমরা জানতে পেরেছি। তিনি আরো জানান, আমরা মৃতদেহটি ময়নাতদন্তের জন্য পাঠিয়েছি। এখন পর্যন্ত কোন মামলা জমা হয়নি। কিন্তু ময়নাতদন্তের পর আমরা আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করব।